Connect with us

খাওয়াদাওয়া

মাইক্রোওভেন ছাড়াই বানান পনির টিক্কা

food

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনে বাইরে বেরোনো এক রকম বন্ধই। হোটেল রেস্টুরেন্ট তো নয়ই। ঘরের এক ঘেয়েমি কাটাতে মাঝে মাঝেই সঙ্গী হচ্ছে রান্নাঘর। নিত্যনতুন স্বাদের সৃষ্টি মনের কোণে এনে দিচ্ছে আনন্দ এবং তৃপ্তি। এইটুকুই ভরসা এই স্বাদহীন জীবনে। তাই এই আনন্দে আরও একটু স্বাদ জোগাতে স্বল্প উপকরণে বানিয়ে ফেলুন এই রেসিপিটি। পনির টিক্কা।

উপকরণ

পনির ৫০০ গ্রাম, টক দই ২৫০ গ্রাম, বেসন ৪ চা চামচ, হলুদ আধ চা চামচ, গোলমরিচগুঁড়ো আধ চা চামচ, কাশ্মীরি লঙ্কাগুঁড়ো ২ চা চামচ, কস্তুরি মেথি ১ চা চামচ, ধনেগুঁড়ো ১ চা চামচ, জিরেগুঁড়ো ১ চা চামচ, তন্দুরি মশলা ১ চা চামচ, চাট মশলা ১ চা চামচ, পাতিলেবুর রস ১ টেবিল চামচ, নুন স্বাদমতো, সাদা তেল  ৪ টেবিল চামচ, মাঝারি মাপের পেঁয়াজ ৪/৫টি, টমেটো ৪/৫টি ও ক্যাপসিকাম ৪টি।

আরও পড়ুন – গরমে পেট ঠান্ডা করতে রইল ৩টি লস্যির রেসিপি

প্রণালী

পনির চৌকো চৌকো করে টুকরো করে নিন। এ বার পেঁয়াজ, ক্যাপসিকাম, টমেটোও পনিরের মতো করেই  চৌকো করে কেটে নিতে হবে। পেঁয়াজের স্তরগুলো আলাদা করে নিন।

এ বার একটি পাত্রে টক দই নিয়ে জল ঝরিয়ে নিন। তার পর দই ফেটিয়ে নিন। দইয়ের মধ্যে একে একে মশলা গুঁড়ো, বেসন এবং নুন দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

এর পর এই মশলার মিশ্রণে পনির এবং সবজি ফেলে ভালো করে মাখিয়ে নিন। এই বার মশলা মাখানো সবজি পনির দিয়ে ৪৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন ম্যারিনেট করতে।

ম্যারিনেট হয়ে গেলে পনির, ক্যাপসিকাম ও টম্যাটো পেঁয়াজ স্কিউয়ারে গেঁথে নিন। এ ক্ষেত্রে সব কিছু একটি একটি করে গাঁথবেন। অর্থাৎ প্রথমে একটি পনির, তার পর সব রকমের সবজি একটি করে গেঁথে আবার পনির দিয়ে শুরু করতে হবে। একটি স্টিকে যতগুলি ধরবে।

গ্যাসে ননস্টিক প্যান বা লোহার চাটু বসিয়েই এইগুলি ভাজতে পারবেন। মাইক্রোওভেন লাগবে না। তাওয়ায় এক টেবিল চামচ তেল দিয়ে গরম করুন। তাওয়া গরম হলে স্কিউয়ারগুলো দিন। কম সংখ্যক স্কিউয়ার তাওয়ায় দেবেন।  একটা দিক বাদামি হয়ে গেলে ঘুরিয়ে অন্য দিক ভাজতে হবে। বাদামি হয়ে গেলে নামিয়ে নিন।

পনির টিক্কা তৈরি, পাত্রে সাজিয়ে লেবুর রস ও চাট মশলা বা গোলমরিচ গুঁড়ো ছড়িয়ে ধনে পাতার চাটনি বা আচার বা কাসুন্দি দিয়ে স্যালাডের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

আরও পড়ুন – আজই বানান মাইক্রোওভেন এবং ডিম ছাড়াই স্পঞ্জি চকোলেট কেক

খাওয়াদাওয়া

প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে রোজের খাদ্যতালিকায় অবশ্যই রাখুন এই খাবারগুলি

food

খবরঅনলাইন ডেস্ক :  করোনাকালে সব থেকে বেশি দরকার রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ানো। তা হলে এই ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য দরকার উপযুক্ত খাবারেরও। কয়েকটি খাবার নিয়মিত খেলে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়বেই বাড়বে।

১। রসুন –

এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। ধমনীতে দূষিত পদার্থ জমতে দেয় না। রক্ত সংবহনতন্ত্র সংকীর্ণকারী উৎসেচক নির্গত হওয়া কমায়।

২। চকোলেট –

শুনলে অবাক হবেন না, চকোলেটও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে খুব সাহায্য করে। হৃদরোগ ও স্ট্রোকের আশঙ্কা কমায়। হাভার্ডের একটি গবেষণায় জানা গিয়েছে, নিয়মিত বিশুদ্ধ কোকো খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে ও হাইপারটেনশন হয় না।

৩। আমন্ড –

এটি কগনেটিভ ফাংশনকে ভালো করে, হৃদরোগ হতে দেয় না। খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়।

৪। বেদানা –

রক্তনালি সাফ রাখতে সাহায্য করে বেদানা। প্রচুর অ্যান্টিওক্সিডেন্টে ভরপুর তাই অক্সিডেন্ট জমতে দেয় না। প্রস্টেট ক্যানসার, মধুমেহ, স্ট্রোক ইত্যাদির আশঙ্কা কমায়।

৫। বিট –

যদিও শীতকাল ছাড়া পাওয়া একটু সমস্যা। তবুও বিট স্বাস্থ্যের জন্য দারুণ। প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ রয়েছে এতে।

৬। হলুদ –

হলুদের তুলনা হয় না। হৃদযন্ত্র বড়ো হয়ে যাওয়া আটকায় হলুদ। উচ্চ রক্তচাপ কমায়, মোটা হয়ে যাওয়া আটকায়। খাদ্যগুণ অসীম।

৭। আপেল –

এতে আছে প্রচুর পরিমাণ মিনারেল, অ্যান্টিওক্সিডেন্ট, ভিটামিন। হৃদরোগের আশঙ্কা কমায়, উচ্চ রক্তচাপ কমায়।

৮। বেগুন –

নাম বেগুন হলেও গুণ অপরিসীম। ফ্ল্যাবোনয়েড, খনিজ, ভিটামিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে প্রচুর। হৃদরোগের আশঙ্কা কমায়।

৯। ব্রকলি –

রক্তনালির ক্ষমতা বাড়ায়, খারাপ কোলেস্টেরল কমায়। রয়েছে অ্যান্টিইনফ্লেমটারি উপাদান। ব্ল্যাড সুগার সংক্রান্ত সব রকম সমস্যা কমায়।

১০। গাজর –

হৃদযন্ত্র ভালো রাখতে অন্যতম খাদ্য গাজর। প্রচুর খনিজ ও ভিটামিন রয়েছে। ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। হাড় ও হৃদযন্ত্রের ক্ষমতা বাড়ায়।  

পড়ুন – করোনা কালে হৃদযন্ত্রকে শক্তিশালী করতে এই ১০টি খাবার অবশ্যই খান

Continue Reading

খাওয়াদাওয়া

করোনা কালে হৃদযন্ত্রকে শক্তিশালী করতে এই ১০টি খাবার অবশ্যই খান

food

খবরঅনলাইন ডেস্ক : শুধু করোনা প্রতিহত করতে নয়, সার্বিক ভাবেই হৃদযন্ত্রকে শক্তিশালী করা দরকার। তাতে অনেক সমস্যার হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়। আর হৃদযন্ত্রের কার্যক্ষমতা বাড়াতে হলে নিয়ম মেনে জীবনযাপনের পাশাপাশি দরকার কিছু এমন খাবার খাওয়া যা হৃদযন্ত্রকে শক্তিশালী করতে বিশেষ ভূমিকা নেয়। এমন খাবার আমাদের চারপাশে অনেকই আছে। তার মধ্যে দশটি আজ দেখে নেওয়া যাক –

১। ছোলা বা চানামটর –

দেখতে ছোটো হলেও গুণ অনেক। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার, নানান পুষ্টিগুণ, পটাশিয়াম, ভিটামিন ইত্যাদি। এর খাদ্যগুণে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে, হৃদরোগের আশঙ্কা কমে।

২। কফি –

কফি কম না বেশি কতটা খাওয়া উচিত তা নিয়ে বিতর্ক থাকলেও কফি কিন্তু হৃদযন্ত্রের জন্য খুবই ভালো। উপযুক্ত পরিমাণ কফি সেবন হার্ট অ্যাটাক, হার্ট ফেল, করোনারি ডিজিজ ইত্যাদির আশঙ্কা কমায়।  

৩। ক্র্যানবেরি –

বেরি জাতীয় এই খাবারটি খেতেও সুস্বাদু, গুণেও ভরপুর। এতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও খনিজ। এটি বহু রকমের হৃদরোগ, ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন, দাঁতের সমস্যা, স্টম্যাক আলসার এবং ক্যানসারের আশঙ্কা কমায়।

৪। ডুমুর –

তেমন কদর না দিলেও ডুমুরের উপকারিতা কিন্তু প্রচুর। হৃদযন্ত্রকে সুস্থ রাখতে এর তুলনা নেই। এতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও ফাইবার রয়েছে। কার্ডিওভাসকুলার রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষেত্রেও এর তুলনা নেই। 

৫। ফ্লেক্স সিড –

যারা মাছ ও বাদাম খান না তাদের জন্য ফ্লেক্স সিড আদর্শ। এই খাবারগুলির অভাব পূরণ করতে অর্থাৎ ওমেগা থ্রি পেতে হলে ফ্লেক্স সিড। হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্যরক্ষায় এটি উপকারী। এতে আছে প্রচুর ইস্টোজেন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজগুণ।  

৬। লাল ক্যাপসিকাম –

এটি হৃদযন্ত্রের সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে। এটি খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

৭। আদা –

যাঁরা নিয়মিত আদা খান তাঁদের জন্য সুখবর। আদা কার্ডিওভাসকুলার রোগের আশঙ্কা কমায়। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে করে, করোনারি হার্ট ডিজিজের আশঙ্কা কমায়।

৮। গ্রিন টি –

শরীর ও হৃদযন্ত্র সতেজ করে। প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ পানীয়। ট্রাইগ্লিসারয়েড, কোলেস্টেরল, এলডিএল কমায়। সুতরাং হৃদযন্ত্রকে স্বাস্থ্যবান করতে গ্রিন টি খুবই ভালো।  

৯। কিডনি বিনস –

অনেকে একে শিম বীজও বলে থাকেন। এতে ম্যাগনেশিয়াম, ফোলেট, প্রোটিন, ফাইবার রয়েছে প্রচুর পরিমাণে। খুব কম পরিমাণ ফ্যাট। সব রকম হৃদরোগ, ক্যানসারের আশঙ্কা কমায়।

১০। কমলা লেবু –

এতে প্রচুর ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, খনিজ পদার্থ, ফাইবার রয়েছে। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

দেখতে পারেন – বাতের ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছেন? এই ৮টি খাবার খাদ্য তালিকায় অবশ্যই রাখুন

Continue Reading

আহার-বিহার

রেসিপি পাঠিয়ে পুরস্কার জিতুন মিডিয়া ফাইভের ‘মুঠোয় হেঁশেল.কম’-এ

cook

খবরঅনলাইন ডেস্ক : মিডিয়া ফাইভের মুকুটে যুক্ত হল আরও একটি পালক। শুরু হয়ে গেল মিডিয়া ফাইভের চতুর্থ প্রচেষ্টা ‘মুঠোয় হেঁশেল.কম’। রকমারি সুস্বাদু রান্নার এক অসামান্য পোর্টাল এই ‘মুঠোয় হেঁশেল’। পাঠকদের পাঠানো রান্নার রেসিপি প্রকাশ করা হয় এই সাইটে। সঙ্গে রয়েছে সেরা রান্নার রেসিপি প্রেরকের জন্য বিশেষ পুরস্কারও।

আপাতত চটজলদি রান্না, ফিউশন ফুড, রকমারি ব্রেকফাস্ট, মা ঠাকুমার রান্না এই চারটি বিভাগের জন্য রান্নার রেসিপি নেওয়া হচ্ছে। রেসিপি পাঠাতে পারেন ‘মুঠোয় হেঁশেল’-এর ফেসবুক পেজের ইনবক্সে। ফেসবুক পেজটি হল https://www.facebook.com/MuthoyHeshel/। অথবা হোয়াটস অ্যাপ করতে পারেন ৭৮৯০৭৮৫৩০৭ এই নম্বরে।

এ ছাড়াও ‘মুঠোয় হেঁশেল’-এর রয়েছে নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলও। ইউটিউব চ্যানেলের লিঙ্ক হল https://www.youtube.com/channel/UCmno4zAKYBq6mGTIWT63Bbg

প্রতি মাসে সেরা রেসিপি প্রেরকের জন্য রয়েছে বিশেষ পুরস্কার। যে রেসিপিতে সব থেকে বেশি রেটিং থাকবে সেই রেসিপি প্রেরককে দেওয়া হবে পুরস্কার।

আপনারা জানেন, মিডিয়া ফাইভের ‘মুঠোয় হেঁশেল’ ছাড়াও রয়েছে খবরের সাইট ‘খবরঅনলাইন.কম’ । সব রকম খবরের খুঁটিনাটি নজরে আনতে নির্ভরযোগ্য সাইট খবর অনলাইন।

ভ্রমণ সংক্রান্ত সমস্ত খবরাখবরের জন্য রয়েছে ‘ভ্রমণঅনলাইন.কম’। কাছে দূরের ভ্রমণ নিয়ে যাবতীয় তথ্য ও পরামর্শ পেতে এটি একটি বিশ্বাসযোগ্য সাইট।  

স্বাস্থ্য সম্বন্ধীয় সাইট রয়েছে ‘স্বাস্থ্যঅনলাইন.ইন’

Continue Reading
Advertisement
শিল্প-বাণিজ্য1 min ago

কোভিড-১৯ মহামারি ভারতীয়দের সঞ্চয়ের অভ্যেস বদলে দিয়েছে: সমীক্ষা

fat
শরীরস্বাস্থ্য13 mins ago

কোমরের পেছনের মেদ কমান এই ব্যায়ামগুলির সাহায্যে

বিদেশ36 mins ago

নরেন্দ্র মোদীর ‘বিস্তারবাদী’ মন্তব্যের পর চিনের কড়া প্রতিক্রিয়া

রাজ্য1 hour ago

এ বার মাস্ক না পরলে শাস্তি‍! নতুন নির্দেশিকা রাজ্যের

ক্রিকেট1 hour ago

২০১১ বিশ্বকাপ কাণ্ড: ম্যাচ গড়াপেটার তদন্ত বন্ধ করল শ্রীলঙ্কা

দেশ2 hours ago

নাগাল্যান্ডে নিষিদ্ধ হল কুকুরের মাংস

দেশ2 hours ago

রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা, রেল বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে ট্রেড ইউনিয়নগুলি

দেশ3 hours ago

‘বিস্তারবাদ’ অতীত, বিশ্বে এখন ‘বিকাশবাদ’ প্রাসঙ্গিক, লাদাখে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

নজরে