debopriya_picদেবপ্রিয়া মুখার্জি

শুক্রবার আমাদের সকলেরই বড্ড প্রিয়, তা-ই না? আর হবে না-ই বা কেন? শুক্রবার আসা মানেই উইকএন্ড আসা, আর উইকএন্ড মানেই জমিয়ে পেটপুজো। এ বারের উইকএন্ডে ঘুরে আসাই যায় টিজিআই ফ্রাইড্রেস-এ। যার পুরো নাম ‘থ্যাঙ্ক গড, ইটস্ ফ্রাইডে’। শুক্রবার এলে এটাই বোধহয় আমাদের মনের কথা হয়ে যায়।

friday2

ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায়, ১৯৬৫ সালের ১৫ মার্চ নিউ ইয়র্ক সিটিতে পথ চলা শুরু হয় টিজিআইএফের। যার স্লোগান ছিল ‘গিভ মি মোর ফ্রাইডে’। বর্তমানে সারা বিশ্ব জুড়ে এর প্রায় ৯৯২টি শাখা রয়েছে।

friday3

কলকাতায় এই রেস্তোরাঁর একটাই আউটলেট রয়েছে। এলগিন রোডের ফোরাম মলে। টেক্সান-মেক্সিকান এবং আমেরিকান খাবারের মজা নিতে হলে পৌঁছে যেতে হবে টিজিআই ফ্রাইডেস-এ। এখানে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের মুখরোচক স্যালাডের সম্ভার। বারবিকিউ চিকেন স্যালাড, চিকেন এবং ভেজ সিজার স্যালাড, গ্রিলড স্যামন সিজার স্যালাড, বারবিকিউ কটেজ চিজ স্যালাড ইত্যাদি। এ ছাড়াও পিৎজা, বার্গার, পাস্তা থেকে শুরু করে সি-ফুড প্ল্যাটার, ভেজিটেবিল প্ল্যাটার, মেক্সিকান রাইস, মেক্সিকান ট্যাকো, আমেরিকান সিজলার, সবই পাবেন এখানে। রয়েছে ব্রাজিলিয়ান চিকেন, ইটালিয়ান চিকেন, কোরিয়ান চিকেনের মতো জিভে-জল-আনা একাধিক প্রিপারেশন।

friday4

চমক রয়েছে ডেসার্টের মেনুতেও। পাইন্যাপেল চিজ কেক, ক্লাসিক চকোলেট মল্ট কেক, মাড পাই ললিপপ সবই পাবেন এই রেস্তোরাঁয়। এত খাবারের নাম শুনে নিশ্চয়ই এতক্ষণে জিভে জল এসে গেছে? দেরি না করে এখনই  উইকএন্ডের প্ল্যানটা করে ফেলুন। তবে এই সব খাবার চেখে দেখতে গেলে পকেটকে একটু ভারী রাখতে হবে। এই রেস্তোরাঁয় দু’জনের জন্য খরচ ১৮০০ টাকা।

friday5

নিজেদের সুন্দর করে সাজাতে আমরা কত টাকাই তো খরচ করি। মাঝে মাঝে না হয় একটু বেশি খরচ করে জমিয়ে পেটপুজো করলাম। কথা দিতে পারি, পয়সা উসুল করে দেবে টিজিআই ফ্রাইডেস।

TGIfridays

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here