sleeping women

ওয়েবডেস্ক: সারা দিনের খাটাখাটুনি, মানসিক চাপ আর দূষণের শিকার হয়ে রাতে পর্যাপ্ত ঘুম হচ্ছে না? অথবা মানসিক টানাপোড়েন থেকে স্থায়ী ভাবে বাসা বেঁধেছে কি অনিদ্রা রোগ? এ ব্যাপারে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলে নির্ঘাৎ প্রতি রাতের সঙ্গী হয়ে উঠবে ঘুমের ওষুধ, যার আবার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মোটের উপর কম নয়। তা হলে উপায় ?

উদ্ভিদ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একবার পরখ করে দেখে নিতে পারেন তাঁদের গাছ-রেমেডি। আমাদের চার পাশে এমন কিছু গাছ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে যেগুলি শোয়ার ঘরে রাখলে নিশ্চিত ঘুমের পরিবেশ তৈরি হতে পারে। এই গাছগুলির উপস্থিতি এক দিকে যেমন ঘরের ভিতর দৃষ্টিনন্দন পরিবেশ তৈরি করবে তেমনই একটা প্রশান্তির আবহ রচনা করতে সক্ষম। এর থেক নির্গত সুবাসও সারা দিনের উদ্বেগ থেকে মুক্ত করতে পারে শরীর-মনকে।

চিকিৎসকদের মতে, অনিদ্রার একটি বড়ো কারণ অ্যালার্জি এবং হাঁপানি। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, এই গাছগুলি আমাদের শ্বাস-প্রশ্বাসকে ভীষণ ভাবে প্রভাবিত করতে পারে। যে কারণে ছোটো ছোটো সমস্যাগুলিকে কাটিয়ে উঠে শরীরকে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরিয়ে দিতে সহায়তা করে। আবার একটা মৃদু মাদকতার আবহ নির্মাণেও পুরোপুরি সফল এদের কয়েকটির মিষ্টি সুবাস। আপনি যে পৃথিবীর সুখী মানুষের এক জন, সেই রকম একটা মানসিকতা আপনাকে ঘুমের দেশে নিয়ে যেতে পারে কিছুক্ষণের মধ্যেই।

গবেষণা বলছে, সারা ঘরের প্রকৃতিকে সুষম ভাবে নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা রাখে এই পরিচিত গাছগুলি। যার ফলে এক দিকে যখন শরীরে বয়ে চলে ঘুমপাড়ানি হাওয়া তখন অন্য দিকে মন বলে, না আজ একটু জিরিয়ে নিই, নতুন আলোয় শুরু করব দৌড়। নীচে চিনে নিন সেই ১০টি  নিদ্রাদায়ক গাছকে।

জুঁই

jasemin

 

ল্যাভেন্ডার

lavender

মাদার-ইন-ল টাং বা শাশুড়ির জিভ

mother-in-law

অ্যালোভেরা

alovera

স্পাইডার প্ল্যান্ট

spider

পিস লিলি

গোল্ডেন পোথোস

golden-pothos

ব্যাম্বু পাম

bamboo-palm

ইংলিশ আইভি

english-ivy

ভ্যালেরিয়ান

valerian

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here