Acidity Problem

ওয়েবডেস্ক: অ্যাসিডিটি বা অম্বল কেন হয়? এমন প্রশ্নের সঠিক উত্তর সবার কাছে না থাকলেও অ্যাসিডিটিতে ভোগা মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। তবে এটুকু জানলেই চলে খাবারের সঠিক পাচন না হওয়ার ফলেই এই অ্যাসিড বা অম্লের উৎপত্তি। এবং ভোগান্তি। হাতের কাছে রয়েছে, তিনটি সহজ উপায় (কোনো ওষুধ নয়)।

খাবার বাছাই

হজমের বা পাচনের গোলমাল থেকেই অ্যাসিডিটির শিকার হতে হয়। ফলে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় যে উপকরণগুলি থাকছে, সেগুলির দিকে কড়া নজর রাখতে হবে। বিশেষ করে জোর দিতে হবে ফাইবারযুক্ত খাবারে। খাবারের মধ্যে থাকা ফাইবারের আধিক্য পাচন প্রক্রিয়াকে অনেকটাই সহজ-সরল করে দিতে সক্ষম। কারণ, তারা খুব সহজেই অপাচ্য খাবার থেকে পুষ্টি শোষণ করতে পারে। যদি কেউ কোষ্ঠকাঠিন্যে ভোগেন, তা হলে এই ফাইবার সমৃদ্ধ খাবারই শৌচকর্মের যন্ত্রণা লাঘব করবে।

না বলতে শিখতে হবে

এমন কিছু খাবার রয়েছে যা মানুষের পাচন প্রক্রিয়ায় বিঘ্ন ঘটায়। শুধু তাই নয়, পাচনতন্ত্রে সৃষ্টি করে থাকে একাধিক রোগ। যা দিনের পর দিন হতে থাকলে এক সময় আতঙ্কের আকার নিয়ে থাকে। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন, বলা হচ্ছে মশলাদার খাবারের কথা। মশলাদার খাবারকে যত কাছে টেনে নেওয়া যাবে, ততই বাড়বে হজমের গোলমাল। যার থেকে অ্যাসিডিটি। যাঁদের সহ্য হয়, তাঁদের কথা আলাদা। কিন্তু যাঁদের অম্বলের ধাত রয়েছে, তাঁরা কিন্তু এই ধরনের খাবার থেকে দূরে থাকতে হবে। শুধু মশলা নয়,  একইভাবে, ক্যাফিন বা অ্যালকোহল মতো উপাদান রয়েছে এমন কোনো খাদ্যবস্তু থেকেও সাবধান! 

জলে ডুবে থাকুন!

প্রয়োজন মতো জলের প্রয়োজন প্রত্যেকটি জীবেরই। কিন্তু কোনো না কোনো কারণে নিয়মিত পরিমিত জল পান থেকে দূরে থাকার ঘটনা তো নিত্যদিনের সঙ্গী। কোষ্ঠকাঠিন্যের একটা মূল কারণ, পরিমাণ মতো জল না পান করা। জল যে শুধু তেষ্টা মেটানোর জন্য নয়, এমন মানসিকতার বহর যত বাড়বে, ততই কমবে শরীরে ঢুকে পড়া বিষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here