এই ৩টি উপায়ে বিয়ের আগে কমিয়ে ফেলুন ওজন

ওয়েবডেস্ক: আর হাতে গোনা মাত্র কয়েকটা দিন বিয়ের সানাই বাজতে! এখন ভাবছেন বিয়ে তো চলেই এল কিন্তু এত অল্প সময়ের মধ্যে কী ভাবে নিজের ওজন কমাবেন। চেষ্টা করলে যে সবই হয়, এই কথাটা নিশ্চয় জানা আছে।

তবে এই অল্প সময়ের মধ্যে ওজন কমাতে হলে কিছু নিয়ম মেনে তো চলতেই হবে। খাওয়া-দাওয়া থেকে শুরু করে জীবনযাপনের ক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম মানতে হবে।

কিন্তু কী নিয়ম মেনে চলবেন, আসুন জেনে নেওয়া যাক।

১। যাঁরা নিয়মিত জিমে যেতে অভ্যস্ত তাঁদের জন্য বিয়ের আগে ১৪ মিনিটের ইন্টারভাল ট্রেনিং আদর্শ। ওয়ার্মআপ করার পর ২  মিনিট স্কোয়াট করুন। ৩০ সেকেন্ড বিশ্রাম নিয়ে ২ মিনিট স্পটজগিং করুন। আ‍বার বিরতি নিয়ে ২ মিনিট পুশ আপস করুন। প্রত্যেকটা এক্সারসাইজের ফাঁকে ৩০ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট পর্যন্ত বিরতি নিতে পারেন। পুশআপসের পর ২ মিনিট জাম্পিং জ্যাক, ক্রাঞ্চেস এবং স্কিপিং করুন। সবশেষে ২ মিনিট প্লাঙ্ক করুন। হাতে যদি আরও সপ্তাহ দু’য়েক থাকে তা হলে এই ১৪ মিনিটের রুটিন পর পর দু’বার রিপিট করুন।

২। যাঁরা কোনও দিন জিমে যাননি বা কখনও কোনও এক্সারসাইজ় করেননি, তাঁরা শুধুমাত্র বিয়ে ঠিক হয়েছে বলেই জিমে দৌড়াবেন না। বরং বাড়িতেই প্রতিদিন ৪০ মিনিট ঘরের মধ্যে এমন কোনও পরিশ্রমের কাজ করুন যাতে বেশ ঘাম ঝরে৷ অনেক ফিটনেস এক্সপার্টই বলেন যে, বিয়ের মরশুম শুরু হলেই অনেক মহিলাই বলেন যে পিঠ এবং হাতের ফ্যাট কমিয়ে দিতে হবে। সেটা কিন্তু রাতারাতি সম্ভব হয় না। প্রপার ডায়েটের সঙ্গে সঠিক ব্যায়ামের রুটিনে পুরো শরীরেরই ফ্যাট রিডাকশান ঘটে।

[আরও পড়ুন: শীতকালে পার্টির মরশুমে খাওয়া না কমিয়ে রোগা হওয়ার সহজ ৫টি উপায়] 

৩। যাঁরা জিম করেন না, তাঁরা শুধু সকাল ও সন্ধেবেলায় ২০ মিনিট হাঁটুন। খুব আস্তেও হাঁটবেন না, আবার দৌড়বেনও না। হাঁটার গতি থাকবে এর মাঝামাঝি। হাঁটতে হাঁটতে মাঝে মাঝে হাত দুটো উপরে তুলুন, দুই সাইডে এবং পিছনে স্ট্রেচ করুন। বিয়ের আগে হাতে যেটুকু সময় আছে সেইমতো হিসেব করে হাঁটার রুটিন ঠিক করে নিন। প্রথমদিন ২০ মিনিট হাঁটলে দু’দিন পর থেকে ৩০ মিনিট হাঁটুন। এই ভাবে ১০ মিনিট করে হাঁটার সময়সীমা বাড়িয়ে দিন। দেখবেন, বিয়ের আগে আপনার শরীরের বাড়তি মেদ অনেকটাই ঝরে যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here