ওয়েবডেস্ক: ব্যস্ততা যেন এখন মানুষের পিছু ছাড়ে না। প্রত্যেক মানুষই কোনো না কোনো কাজ নিয়ে ব্যস্ত। আর সেই ব্যস্ত সময়ের মধ্যে থেকেও কেউ কেউ চেষ্টা করেন নিজের জন্য কিছুটা সময় বের করার। আর সবাই চান সেই সময়টা হবে তাঁর একান্তই ব্যক্তিগত।

অনেকেই তাই বেছে নেন সেই কিছুটা সময় যদি জিমে কাটানো যায় তা হলে শরীরচর্চা করা যায়। সে তো খুবই ভালো কথা। নিয়ম করে এখন প্রতিদিন কত জনই বা নিজের শরীর চর্চা করেন। সেই ঘুরে ফিরে কারণ সময়ের অভাব।

অথচ দেখুন, মাঝের মধ্যেই আকাশে দেখা যাচ্ছে কালো মেঘের আবরণ। আবার কখনও হালকা থেকে ভারী বৃষ্টি হয়েই চলেছে।

আর সেখান থেকেই যত সমস্যার উৎপত্তি। বৃষ্টির মধ্যে যেমন অনেকেরই বাইরে বেরোতে ইচ্ছা করে না। আর বাইরে বেরোলেই রাস্তার ওই প্যাচপ্যাচে কাদা পায়ের মধ্যে তো লাগবেই। আবার কোথাও রাস্তা চলে যায় জলের তলায়।

তখন আর মনে হয় না, পায়ের মধ্যে কাদা লাগিয়ে বা সাঁতরে জিমে যেতে। নাই বা গেলেন জিমে। বাড়িতে বসে ঘরোয়া পদ্ধতিতে আপনি নিতে পারেন আপনার শরীরের যত্ন।

তা হলে জেনে নেওয়া যাক কী সেই চারটি পদ্ধতি-

১। পদহস্তাসন

খুব সহজেই বাড়িতে বসে ভুঁড়ি কমানোর জন্য পদহস্তাসন করুন। শুধু ভুঁড়ি কমবে না এই আসন করলে গ্যাস-অম্বলের সমস্যা থেকেও মুক্তি পাবেন। প্রতিদিন সকালে চেষ্টা করুন নিয়ম করে পদহস্তাসন ব্যায়ামটি করার।

২। বজ্রাসন

প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস জল খেয়ে খালি পেটে বজ্রাসন করুন। এতে যেমন শরীরের অলসতা দূর হয়, সর্দি-কাশির হাত থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। এ ছাড়াও অনেকেই অনেক সময় মাইগ্রেনের ব্যাথা নিয়ে কষ্ট পান। সেই সমস্যা থেকেও মুক্তি পেতে পারেন বজ্রাসন করলে।

৩। উষ্ট্রাসন

অনেকে মানুষের চেহারার গঠন একটু বাল্কি ধরনের হয়। সে হতেই পারে। কিন্তু বাড়িতে বসে উষ্ট্রাসন করে দেখুন। আপনার শরীরের বাড়তি মেদও  কমবে আর পেটে যদি ভুড়ি থাকে সেই ভুড়িও ১ মাসের মধ্যে কমে যাবে।

৪। গোমুখাসন 

চেষ্টা করুন প্রতিদিন সকালে নিয়ম করে গোমুখ আসন করতে। কোনো কাজে মনসংযোগের ব্যাঘাত ঘটলে এই আসন করলে দেখবেন আপনার মন শান্ত থাকবে। শরীরে যদি বাতের ব্যাথা থাকে তাও কমে যাবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here