insomnia
অনিদ্রার প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: ব্যস্ততাময় জীবন যাত্রায় অতিরিক্ত চাপ আর চিন্তার কারণে অনেকেই অনিদ্রায় ভোগেন। তবে সব ক্ষেত্রে অনিদ্রার কারণ যে এগুলিই তা কিন্তু ঠিক ধারণা নয়। অনেক ক্ষেত্রেই খাবার খাওয়ার ভুলভ্রান্তির কারণেও অনিদ্রা হয়ে থাকে। তাই খেয়াল রাখতে হবে রাতের খাবারের প্রতি। রাতের খাবার থেকে বাদ দিতে হবে এই খাবারগুলি-

লেবুজাতীয় খাবার

রাতের বালায় কোনো লেবুজাতীয় খাবার খেয়ে শোওয়া উচিত নয়। লেবুতে যে অ্যাসিড থাকে তা অনেক ক্ষেত্রে অম্বল সৃষ্টি করে তার ফলে গ্যাস হয়ে ঘুমের বারোটা বাজিয়ে দেয়। তা ছাড়া লেবুতে শর্করা থাকে, এর থেকে প্রচুর এনার্জি পাওয়া যায়। এই এনার্জি রাতের জন্য অপ্রয়োজনীয়।

cucumber
শশা

ব্রকোলি বা কপি শাকপাতা জাতীয় খাবার

এই জাতীয় খাবারে থাকে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার। যা মোটেই রাতের জন্য সহজ পাচ্য নয়। হজম ভালো না হওয়ার ফলে গ্যাস তৈরি করে। তা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়।

আরও পড়ুন – উচ্চবর্ণের জন্য সংরক্ষিত ১০ শতাংশ আসনে প্রার্থী নিয়োগ শুরু ১ ফেব্রুয়ারি থেকেই

ধনে পাতা, শশা

রাতে অনেকেই খাবার সঙ্গে স্যালাড খেয়ে থাকেন তাতে থাকে ধনে পাতা, শসা ইত্যাদি। কিন্তু এগুলিতে জলের পরিমাণ অনেক বেশি থাকে। রাতে জল কম খাওয়া হলেও এই সব খাবারগুলিতে থাকা জল মূত্র থলি ভরাট করে। ফলে বার বার মূত্র ত্যাগ করতে উঠতে হয়। এর ফলেও ঘুম নষ্ট হয়। একই সমস্যা হয় নানান ধরনের কপির ক্ষেত্রেও।

 celery
ধনেপাতা

পাঁঠার মাংস

পাঁঠার মাংসে প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন, ফ্যাট ইত্যাদি থাকে। এই সব খাদ্যগুণ কঠিনপাচ্য। ফলে হজমের সমস্যা আর অম্বল তৈরি করে। এর ফলেও ঘুম হয় না।

মশলাদার খাবার

মশলাদার খাবার হজমের অন্যতম শত্রু। আর রাতের বেলায় তা আরও ভয়ঙ্কর। ফলে রাতে শোওয়ার আগে মশলাদার খাবার খাওয়া উচিত নয়।

 redmeat
লাল মাংস

মিষ্টি

অনেকেই রাতে মিষ্টি খেয়ে ঘুমোতে যান। কিন্তু এটি শর্করায় ভরপুর সঙ্গে প্রচুর এনার্জিও। ফলে মিষ্টি ঘুম তাড়ায় আর জেগে থাকতে বাধ্য করে।

চকোলেট

একই কথা চকোলেটের ক্ষেত্রেও। এনার্জি থাকলে ঘুম আসে না। তাই ঘুমের আগে চকোলেট খাওয়া উচিত নয়। তা ছাড়া এতে আছে থিওব্রোমাইন নামের এক প্রকার পদার্থ, এটি হার্ট রেট বাড়ায়। আছে সুগার আর ক্যাফিনও। এগুলি সহজে ঘুম আসতে দেয় না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here