Connect with us

জীবন যেমন

মানসিক স্বাস্থ্য সম্বন্ধে সচেতনতা বাড়াতে নীরজা বিড়লা এবং অমিতাভ বচ্চনের যৌথ প্রচেষ্টায় প্রচারাভিযান

যৌথ প্রচেষ্টায় চালু হল দেশজোড়া ‘#SunoDekhoKaho’ প্রচারাভিযান।

Published

on

অমিতাভ বচ্চন এবং নীরজা বিড়লা

খবর অনলাইন ডেস্ক: মানসিক স্বাস্থ্য সম্বন্ধে নাগরিকদের সচেতন করতে নীরজা বিড়লার (Neerja Birla) এম্পাওয়ার এবং অমিতাভ বচ্চনের (Amitabh Bachchan) যৌথ প্রচেষ্টায় চালু হল দেশজোড়া প্রচারাভিযান ‘#SunoDekhoKaho’।

এই উপলক্ষে প্রকাশিত হল নীরজা বিড়লা ও অমিতাভ বচ্চনের কথোপকথনের ভিডিও, যেখানে তাঁরা ভারতে মানসিক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।

দেশে মানসিক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার ক্রমবর্ধমান প্রবণতা লক্ষ্য করে এম্পাওয়ার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারপার্সন নীরজা বিড়লা এবং বলিউড আইকন অমিতাভ বচ্চন এই সমস্যাগুলো নিয়ে আলোচনায় অংশ নিয়েছেন। এম্পাওয়ারের ইউটিউব, ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রাম পেজে আজ প্রকাশিত হয়েছে তাঁদের সেই কথাবার্তার ভিডিও। সেই খোলামেলা আলোচনায় নিজ নিজ ক্ষেত্রের এই দুই নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিত্ব মানসিক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নির্মম বাস্তবের ছবি তুলে ধরেছেন। বহু মানুষকে মানসিক স্বাস্থ্যের কারণে যে সব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়, এবং তেমন মানুষের সঙ্গে সমাজ কী ভাবে সহানুভূতিপূর্ণ ব্যবহার করতে পারে, সে সব নিয়ে দু’জনে আলোচনা করেছেন।

Loading videos...

দর্শকদের কার্যকরী মতামত দেওয়ার সুবিধার্থে এই আলোচনায় অকারণ ভয়ের সঙ্গে উদ্বেগের তফাত নিয়ে বিস্তারিত ভাবে কথা বলা হয়েছে। উদ্বেগের কারণে রুটিন কাজকর্মও করে উঠতে পারছেন না, এ রকম অবস্থায় পৌঁছানোর আগেই কী করে ব্যাপারটাকে সামলানো যায় তা আলোচনা করা হয়েছে।

সব মিলিয়ে #SunoDekhoKaho র পিছনের ভাবনাটাও খুব সুন্দর করে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। ‘শুনো’, এমন কেউ, যে মন দিয়ে তার কথা শুনতে পারে, যার কাউকে নিজের কথা শোনানো খুব জরুরি। ‘দেখো’, চোখ-কান খোলা রেখে মানসিক অসুস্থতার লক্ষণ এবং কষ্ট পাচ্ছেন এমন ব্যক্তিদের খেয়াল করুন। আর ‘কহো’, কাউকে সাহায্য করুন এবং মানসিক স্বাস্থ্য সম্বন্ধে সকলকে বলুন, সচেতনতা সৃষ্টি করতে সাহায্য করুন।

স্কুলের শিশু থেকে কর্পোরেট কর্মী, শিল্পী থেকে রাজনীতিবিদ, কে যে ভিতরে ভিতরে কোন সমস্যায় ভুগছেন তা বুঝতে পারা সহজ নয়। নীরজা-অমিতাভের কথাবার্তায়, মানসিক সমস্যার কথা ‘প্রকাশ’ করলে যে কলঙ্কের শিকার হতে হয় তা নিয়েও কথা বলা হয়েছে। তাঁরা মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে আরও বেশি সচেতনতা সৃষ্টি করার উপর জোর দিয়েছেন। বিশেষ করে যাঁরা শারীরিক নির্যাতন এবং নেশার শিকার, তাঁদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করা দরকার, কারণ দু’টোই মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটায়।

আলোচনা এগনোরর সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে প্রচলিত ভ্রান্ত ধারণাগুলো দূর করার চেষ্টাও করেছেন। এই ধারণাগুলোর মধ্যে সব থেকে জরুরি ধারণাটা হল, মানসিক অসুখের চিকিৎসা ব্যয়বহুল। এই ধারণার ফলে বহু মানুষ প্রয়োজনীয় সাহায্য নিতে চান না। নীরজা জানান, কী ভাবে এম্পাওয়ার সমাজের বিস্তীর্ণ অংশের মানুষের কাউন্সেলিং করেছে, যাতে কেউ সম্মানজনক জীবনযাপনের সুযোগ থেকে বঞ্চিত না হন।

এই উদ্যোগে অমিতাভের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার বিষয়ে নীরজা বললেন, “অমিতাভ অনেকদিন ধরেই স্বাস্থ্যের নানারকম সমস্যা সম্বন্ধে সচেতনতা তৈরি করার কাজে যুক্ত আছেন। সেগুলো এমন সব সমস্যা যেগুলোর সঙ্গে আমরা ভারতীয়রা লড়াই করি। সেইজন্য আমরা তাঁকে জিজ্ঞেস করেছিলাম তিনি মানসিক স্বাস্থ্যের মতো একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে প্রকাশ্য আলোচনা করতে সাহায্য করবেন কিনা। তিনি সানন্দে এই বিষয়ে সাহায্য করতে রাজি হয়ে যান। আমরা তাঁর সঙ্গে যৌথ ভাবে এই ক্যাম্পেন করতে পেরে আনন্দিত। এ এমন এক ক্যাম্পেন, যা মানসিক ভাবে ভালো থাকার গুরুত্ব বুঝিয়ে দেয়। আমাদের সৌভাগ্য যে তাঁর মতো একজন কিংবদন্তি আমাদের সমাজের গভীরে প্রোথিত এ রকম একটা সংবেদনশীল বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন”।

অমিতাভের অংশগ্রহণে এই প্রচার অন্য মাত্রা পাবে বলে আশাপ্রকাশ করে তিনি বলেন, “এত শক্তিশালী একটা স্বর মানসিক স্বাস্থ্যের সমস্যার দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে আমাদের সাহায্য করবে। এই মুহূর্তে সেটা দরকার। এক প্রচণ্ড প্রতিযোগিতার যুগে আমরা বাস করছি। এই সময় মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কথা বলা, সমস্যাগুলোর দিকে আলো ফেলা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। #SunoDekhoKaho-র মাধ্যমে আমরা নাগরিকদের শিক্ষিত করতে চাই এবং ভারতের মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবার সহজলভ্যতা সম্বন্ধে সচেতন করতে চাই। আমরা সত্যিই আশা করছি যে অমিতাভ যেহেতু এই কথাগুলো অনেক বেশি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে পারবেন, সেহেতু মানসিক স্বাস্থ্যের সঙ্গে যে ‘কলঙ্ক’ জড়িয়ে আছে, ক্রমশ তা দূর করতে পারব”।

এক মাসব্যাপী #SunoDekhoKaho প্রচার মানুষকে শুনতে, সজাগ হতে এবং মুখ খুলে সাহায্য চাইতে উৎসাহিত করতে চায়। যাঁদের সাহায্য দরকার, তাঁদের সকলকে এম্পাওয়ার সাহায্য করবে এবং মানসিক স্বাস্থ্যের সমস্যার সাথে যুঝবার শক্তি দেবে।

আরও পড়ুন – আপনি কি কোনো কারণে হতাশা বা ডিপ্রেশনে ভুগছেন? বুঝবেন এই লক্ষণগুলি থেকে: পর্ব ২

আরও পড়ুন – আপনি কি কোনো কারণে হতাশা বা ডিপ্রেশনে ভুগছেন? বুঝবেন এই লক্ষণগুলি থেকে: পর্ব ১

ঘরদোর

ঘর রঙ করার কথা ভাবছেন? মাথায় রাখুন এই পরামর্শগুলি

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর রঙ করানো খুবই ঝক্কির কাজ। আবার রঙ করালেই হল না, পরে তা নিয়ে মন খুঁত খুঁতও করতে পারে। তাই আগে থেকেই বুঝে পা ফেলুন। রঙ করানোর আগে এই বিষয়গুলি মাথায় রাখুন।

যদি প্রথম বার রঙ করান তা হলে দেওয়ালে সিমেন্টের আস্তরণ দেওয়ার ৯০ দিন পর রঙের কাজ করান। সিমেন্টের আস্তরণ পুরোপুরি শুকোতে তিন মাস সময় লাগে।

ডিস্টেম্পার

ইট, কংক্রিট ও প্লাস্টারের ওপর ডিসটেম্পার করা হয়। এই ডিসটেম্পার বিভিন্ন ধরনের হয়। যেমন, অ্যাক্রেলিক, সিনথেটিক, ড্রাই ইত্যাদি। অ্যাক্রেলিক ডিসটেম্পার জল দিয়ে ধোয়া যায়। অন্যগুলি যায় না।

Loading videos...

প্লাস্টিক পেন্ট 

প্লাস্টিক ইমালশন নামেই বেশি পরিচিত। এটি জলভিত্তিক রঙ, দীর্ঘস্থায়ী ও ধোয়াও যায়। প্লাস্টিক পেন্ট তিন ধরনের। রেগুলার, ইকোনমিক ও প্রিমিয়ার ইমালশন।

নানা পরামর্শ

ঘর ফাঁকা   

ঘর ফাঁকা করে রঙ করা ভালো। ঘরের বড়ো আসবাবগুলোকে ঘরের মাঝখানে নিয়ে এসে সেগুলি পুরোনো কাপড়, কাগজ, প্লাস্টিক দিয়ে ঢাকা দেওয়া দরকার।

মেঝে ঢাকা

রঙ করার আগে মেঝেও ঢাকতে হবে। কাপড়, খবরের কাগজ বা প্লাস্টিক দিয়ে ঢেকে নিন।

খুঁত ভরাট

রঙ করার আগে দেওয়ালের খুঁতগুলি ভরাট করতে হবে। না হলে কালচে লাগবে।

পুরোনো রঙ

পুরনো রঙ ভালো করে ঘষে তুলে নিতে হবে।

দেখে নিন –

আপনার পছন্দের শেড পেতে হলে আগে পরীক্ষা করে নিন। ঘরে কোনটা মানাবে তা নির্ভর করে ঘরের আকৃতি, আলো ইত্যাদির ওপর। তাই প্রথমে অল্প জায়গা রঙ করে দিনরাতের প্রেক্ষিতে সেটি দেখে তার পর গোটাটা রঙ করান।

ছোটো ঘরের রঙ –

ঠিক রঙে ছোটো ঘর বড়ো দেখানোর জন্য আগে পরিকল্পনা করে তার পর কাজ করান। একাধিক রঙও বাছতে পারেন। খুব ছোটো ঘরে কমলা বা বেগুনি রঙ না করাই ভালো।

প্রাইমার

প্রাইমার দিলে দেয়ালের খুঁত ভরাট হয়। রঙও কম লাগে। রঙ ধরেও ভালো। প্রাইমার করার পরে রঙ এক কোট দিলেও চলে। রঙের খরচও বাঁচে।

রোলার ও ব্রাশ ব্যবহার  

প্রথমে ব্রাশ ব্যবহার করে তার পর রোলার ব্যবহার করুন।  তাতে রঙ ভালো হয়। মেঝে, ছাদ, দেয়ালের কোণগুলিতে রোলার পৌঁছোয় না। সেখানে ব্রাশের কাজ নিখুঁত হয়।

নিজের জন্য

চোখে সেফটি গ্লাস ব্যবহার করা ভালো। হাতে গ্লাভস। এতে রঙ থেকে কোনো ক্ষতি হবে না।

পড়ুন – ফ্রিজ কেনার আগে অবশ্যই এগুলি দেখে নিন

আরও – খরুচে মানুষের জন্য কয়েকটি মজার পরামর্শ

Continue Reading

জীবন যেমন

গোড়ালি ফাটায় এই ৫টি টোটকা অব্যর্থ কাজ করে

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক : এর আগের পর্বে শীতে পা ফাটা আটকাতে বা সমস্যার সমাধান করতে ৫টি ঘরোয়া টোটকা কী ভাবে প্রয়োগ করবেন সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছিল। এই পর্বে আরও ৫টি অব্যর্থ টোটকা আলোচনা করা হল। প্রয়োগ করে দেখুন সুফল পাবেনই পাবেন।

১। নরম গোড়ালি পেতে ঘরে বানান ময়শ্চারাইজার। বেসনের সঙ্গে দুধের সর, মধু, হলুদ বাটা মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। গোড়ালিতে এই পেস্ট লাগিয়ে ভেজা হাত দিয়ে ঘষে ধুয়ে ফেলুন।

২। পাকা কলা ভালো ভাবে চটকে অল্প নারকেল তেল আর দুধের সর এক সঙ্গে মিশিয়ে গোড়ালিতে লাগান। ৮-১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

Loading videos...

৩। পা ফাটার কষ্ট কম করতে চাইলে গোলাপজল, গ্লিসারিন মিশিয়ে তাতে অল্প লেবুর রস দিয়ে একটি পাত্রে করে ফ্রিজে রেখে দিন এবং প্রতি দিন ব্যবহার করুন।

৪। রাতে ঘুমোনোর আগে হালকা গরম জলে সামান্য নুন ও শ্যাম্পু মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রিল্যাক্স করুন। এতে গোড়ালিতে জমে থাকা ধুলো-ময়লা সহজে পরিষ্কার হয়ে যাবে। তার পর ভালো ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম বা ভিটামিন ‘ই’ সমৃদ্ধ ফুট লোশন দিয়ে পা ও গোড়ালি মালিশ করুন। ঘুমোনোর আগে তুলো দিয়ে অতিরিক্ত ক্রিম বা লোশন মুছে ফেলুন।

৫। পা ভালো করে পরিষ্কার করার পর ক্রিমের বদলে পেট্রোলিয়াম জেলির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে পা ফাটার ওপর নিয়মিত লাগান। নিয়মিত যত্নে গোড়ালি ফাটার সমস্যা দূর হবে।

আরও – শীতের শুরুতে রুক্ষ চুল! ৮টি ঘরোয়া টোটকা, মসৃণতা ফিরে আসবেই

আরও পড়ুন – শীতকালে গ্লিসারিন ব্যবহার করবেন কী ভাবে? ৪টি অতি সহজ পদ্ধতি

Continue Reading

জীবন যেমন

শীতের শুরুতেই নিন গোড়ালির বিশেষ যত্ন, ৫টি অব্যর্থ টোটকা

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: শীত এসে গেছে। শীতের শুরু থেকেই নিয়মিত ত্বকের বিশেষ যত্ন নিতে হয়। কারণ তা না হলে ত্বক ফেটে চৌচির। শীতে পা ফাটার সমস্যায় কম-বেশি সবাই ভুগে থাকেন। পায়ের সঠিক যত্নের প্রয়োজন খুব। এই সময় আর্দ্রতার অভাবে হাত ও পায়ের ত্বক রুক্ষ হয়। একই কারণে পা-ও ফাটে।

পায়ের যত্নে রইল কয়েকটি বিশেষ টিপ।

১। নিয়মিত স্নানের সময় পিউমিস স্টোন অর্থাৎ গোড়ালি ঘষার পাথর অথবা ধুধুল ও সাবান দিয়ে পা ভালো করে ঘষে পরিষ্কার করুন। এর পর ময়েশ্চারাইজার, হিলগার্ড ক্রিম বা বডি অয়েল গোড়ালিতে মালিশ করুন।

২। গোড়ালি সুস্থ রাখতে নারকেল তেল, তিলের তেল বা আমন্ড অয়েল খুবই ভালো। সরষের তেলও ব্যবহার করা যেতে পারে। এ ছাড়া ফুট স্ক্র্যাবার বা ফুট মাস্কও ব্যবহার করতে পারেন।

Loading videos...

৩। পায়ের গোড়ালির জন্য ঘরোয়া উপকরণ, যেমন পাতিলেবু, হলুদ, টকদই, দুধের সর, বেসন ইত্যাদি খুবই কার্যকর।

৪। বাড়িতে একটি পাত্রে ঈষৎ উষ্ণ জল নিয়ে তাতে আধা চা-চামচ নারকেল তেল, সামান্য নুন দিয়ে ৮ থেকে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এই জলে পা ডুবিয়ে রাখতে পারেন। অথবা মিশ্রণটি পায়ে মালিশ করে মিতে পারেন। যে কোনো একটি পদ্ধতি করার পর একটি পিউমিস স্টোন দিয়ে গোড়ালি ও পায়ের পাতা ভালো করে ঘষে নিন। তার পর গরম জলে পা ভালো করে ধুয়ে নিন।

৫। আবার পায়ের ফাটা অংশে ময়লা জমলে দু’তিন চা-চামচ চালের গুঁড়ির সঙ্গে এক টেবিল চামচ মধু ও ভিনেগার মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে পায়ে লাগান। হালকা ভাবে কিছুক্ষণ ঘষার পর ধুয়ে ফেলুন পা। এতে গোড়ালির মরা কোষ, ধুলো-ময়লা চলে যাবে।

আরও – শীতের শুরুতে রুক্ষ চুল! ৮টি ঘরোয়া টোটকা, মসৃণতা ফিরে আসবেই

আরও পড়ুন – শীতকালে গ্লিসারিন ব্যবহার করবেন কী ভাবে? ৪টি অতি সহজ পদ্ধতি

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
Kolkata High Court
রাজ্য49 mins ago

স্যাটের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই হাইকোর্টে ডিএ মামলার শুনানি

ফুটবল9 hours ago

মরশুমের প্রথম জয় বেঙ্গালুরুর, প্রথম হার চেন্নাইয়ের

রাজ্য11 hours ago

দুয়ারে সরকার: চার দিনেই ৭৫৮টি ক্যাম্পে ১৪ লক্ষ উপস্থিতি

রাজ্য11 hours ago

কলকাতায় সক্রিয় রোগী ৬ হাজারের নীচে, রাজ্যে নতুন সংক্রমণে ব্যাপক পতন

Vijay Mallya
বিদেশ12 hours ago

ফ্রান্সে বিজয় মাল্যের ১৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি

দেশ13 hours ago

হায়দরাবাদে উত্থান বিজেপির, ইস্তফা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির!

দেশ13 hours ago

হায়দরাবাদ পুরভোটে টিআরএস বৃহত্তম দল হলেও পোক্ত বিজেপির ভিত!

দঃ ২৪ পরগনা14 hours ago

সুন্দরবনের মৎস্যজীবীদের বিকল্প কাজ-সহ একাধিক দাবিতে চিতুরি বন দফতরে ডেপুটেশন

কেনাকাটা

কেনাকাটা22 hours ago

পোর্টেবল গিজারের ওপর বিশেষ ছাড় বেশ কয়েকটি মডেলে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীতকাল মানেই কনকনে ঠান্ডায় উষ্ণ জলের প্রয়োজন। সেই গরম জলের প্রয়োজন মেটাতে পারে গিজার। অ্যামাজনে কয়েক ধরনের...

কেনাকাটা4 days ago

ব্র্যান্ডেড কোম্পানির ইমারশন রডে ২ বছর পর্যন্ত ওয়ার‍্যান্টি পাওয়া যাচ্ছে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীতকালে গরম জলে স্নান করার মজাই আলাদা। জল গরম করার জন্য কি ওয়াটার হিটার খুঁজছেন? কিনতে পারেন...

কেনাকাটা1 week ago

৫০০ টাকার মধ্যে অত্যাধুনিক হেডফোন

খবর অনলাইন ডেস্ক: হেডফোন খারাপ হয়ে গেছে? সস্তায় নতুন ধরনের হেডফোন খুঁজছেন? হেডফোনের কয়েকটি অত্যাধুনিক কালেকশন রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা1 week ago

শীতের নতুন কিছু আইটেম, দাম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীত এসে গিয়েছে। সোয়েটার জ্যাকেট কেনার দরকার। কিন্তু বাইরে বেরিয়ে কিনতে যাওয়া মানেই বাড়ি এসে এই ঠান্ডায়...

কেনাকাটা1 week ago

ঘর সাজানোর জন্য সস্তার নজরকাড়া আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরকে একঘেয়ে দেখতে অনেকেরই ভালো লাগে না। তাই আসবারপত্র ঘুরিয়ে ফিরে রেখে ঘরের ভোলবদলের চেষ্টা অনেকেই করেন।...

কেনাকাটা2 weeks ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা1 month ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

নজরে