কয়েক মাসের মধ্যে হাঁপানি রোগীদের সুখবর দিতে পারেন বলে মনে করছেন লন্ডনের কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষক। তাঁদের মতে গবেষণা সফল হলে এই রোগ নিরাময়ের ক্ষেত্রে নতুন দিক খুলে যেতে পারে। সেই নতুন নিরাময় পদ্ধতি হল হাঁপানি রোগীদের ওপর ভিটামিন-ডি প্রয়োগ, যা এই রোগ সারানোর কাজে বিশেষ সহযোগী হতে পারে।

পৃথিবী জুড়ে প্রায় ৩০ কোটি মানুষ এই রোগে আক্রান্ত। এই রোগের লক্ষণের মধ্যে রয়েছে দম বন্ধ ভাব, নিশ্বাসের সমস্যা, সর্দি-কাশির সমস্যা ইত্যাদি। গবেষণা সফল হলে ভিটামিন–ডির প্রয়োগে এই রোগীদের ঝুঁকি অনেক কমে যাবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জাপান, ভারত, পোল্যান্ড, ব্রিটেন প্রভৃতি দেশের হাঁপানি রোগীদের ওপর পরীক্ষা করে দেখা গেছে ভিটামিন-ডি ট্যাবলেট খেয়ে তাঁদের বিপদের আশঙ্কা অনেক কমে গেছে। এমনকি হাসপাতালে চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তাও প্রায় ৩ থেকে ৬ শতাংশ পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণ করা গেছে।

কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসপিরেটরি ইনফেকশন ও ইমিউনিটি বিভাগের অধ্যাপক অ্যাডরিয়ান মারটিনেউ জানান, ইতিমধ্যে তিন দফায় পরীক্ষা করা হয়েছে। সে ক্ষেত্রে প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে যাঁদের হাঁপানির প্রকোপ অল্প বা তার চেয়ে একটু বেশি, তাঁদের ওপর পরীক্ষা করেই ভালো ফল হওয়া গেছে। কিন্তু যে সব বাচ্চা বা বয়স্কের মধ্যে এই রোগ  বেশি জটিল আকার নিয়েছে তাদের ওপর ভিটামিন-ডির প্রভাব কী হয়, তা পরীক্ষা করে দেখা দরকার। তার জন্য গবেষণা এখনও চলছে। কয়েক মাসের মধ্যেই তার ফল সামনে আসবে।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here