Connect with us

খাওয়াদাওয়া

করোনা থেকে রূপচর্চা, কী ভাবে উপকার করে তুলসী পাতা? ১৪টি গুণ

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক : তুলসী পাতার উপকারিতার কোনো অন্ত নেই। বিশেষ করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এর তুলনা নেই। তাই করোনা-কালে এর চাহিদা ও কদর দুই-ই বেড়েছে। সকলেই শুনে শুনে তুলসী পাতার ব্যবহার শুরু করেছেন। কিন্তু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ঠিক আর কী কী উপকার হয় এর থেকে, তা অনেকেই বিস্তারে জানেন না। সে সবই এখন জেনে নেওয়া যাক –

১। শ্বাস-প্রশ্বাস

ঠান্ডা লাগলে  শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা হয় অনেকেরই। এই সময় তুলসী পাতা ম্যাজিকের মতো কাজ করে। গলার সংক্রমণ বা অন্য সমস্যা- সবেতেই তুলসী পাতা উপকারী।

২। হৃদযন্ত্রের অসুখ

তুলসী পাতায় আছে প্রচুর  ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এই উপাদান হৃদযন্ত্রকে বহু সমস্যা থেকে মুক্ত রাখে। হৃদযন্ত্রের কর্মক্ষমতা বাড়ায় ও স্বাস্থ্য ভালো রাখে।

৩। মানসিক চাপ

তুলসীর ভিটামিন সি ও অন্যান্য অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলো মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে। এই উপাদানগুলো নার্ভকে শান্ত করে। কর্টিসল হরমোনের সঙ্গে স্ট্রেস-এর সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে। এটি খেলে কর্টিসল হরমোনের ক্ষরণ কমে যেতে শুরু করে। ফলে স্ট্রেস লেভেলও কমতে শুরু করে। ডিপ্রেশন বা মানসিক অবসাদের প্রকোপ কমাতেও দারুণ ভাবে সাহায্য করে। এ ছাড়াও পাতার রস শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

৪। মাথা ব্যথা

মাথা ব্যথা ও শরীর ব্যথা কমাতে তুলসী খুবই উপকারী। এর বিশেষ উপাদান মাংশপেশীর খিঁচুনি রোধ করতে সহায়তা করে।

৫। রোগ নিরাময় ক্ষমতা

ঔষধি-গুণাবলি সমৃদ্ধ গাছ এটি। তুলসীকে কেউ কেউ ‘নার্ভের টনিক’ বলে থাকেন। এটি স্মরণশক্তি বাড়ানোর জন্য বেশ উপকারী। এটি শ্বাসনালী থেকে শ্লেষ্মাঘটিত সমস্যা দূর করে। তুলসী পাতা পাকস্থলীর ও কিডনির স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ভালো।

৬। রক্ত পরিশুদ্ধ হয়

প্রতিদিন সকালে খালি পেটে ২-৩টি তুলসী পাতা খাওয়ার অভ্যাস করলে রক্তে উপস্থিত ক্ষতিকর উপাদান এবং টক্সিন শরীরের বাইরে বেরিয়ে যায়। ফলে শরীর ভিতর থেকে চাঙ্গা হয়।

৭। ডায়াবেটিস দূরে থাকে

নিয়মিত এই পাতা খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা কমতে শুরু করে। সেই সঙ্গে ইনসুলিনের কর্মক্ষমতাও বাড়ে। ফলে শরীরে সুগারের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনাই থাকে না। প্রসঙ্গত, মেটাবলিক ড্যামেজের হাত থেকে লিভার এবং কিডনি-কে বাঁচাতেও দারুণ ভাবে সাহায্য করে তুলসী।

৮। ক্যান্সার রোধে

পাতায় উপস্থিত ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট শরীরের ভেতরে ক্যান্সার সেল যাতে কোনো ভাবেই জন্ম নিতে না পারে, সে দিকে খেয়াল রাখে। ফলে ক্যান্সার হওয়ার সুযোগই পায় না। এটি ফুসফুস, লিভার, ওরাল এবং স্কিন ক্যান্সার প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

৯। দৃষ্টিশক্তি

একাধিক পুষ্টিগুণে ভরপুর তুলসী, দৃষ্টিশক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি ছানি এবং গ্লুকোমার মতো চোখের রোগকে দূরে রাখতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। সেই সঙ্গে ম্যাকুলার ডি-জেনারেশন আটকাতেও সাহায্য করে।

১০। সর্দি–জ্বরে

তুলসী পাতা প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। জ্বর এবং সর্দি-কাশি সারাতে এই প্রাকৃতিক উপাদানটির বিকল্প হয় না। এই পাতা শরীরে প্রবেশ করা মাত্র যে যে ভাইরাসের কারণে জ্বর হয়েছে, সেই জীবাণুগুলোকে মারতে শুরু করে। ফলে শরীর ধীরে ধীরে চাঙ্গা হয়ে ওঠে।

১১। পোকার কামড়ে

তুলসী পাতা হল প্রোফাইল্যাক্টিভ। এটি পোকামাকড় কামড়ে দিলে উপশম করতে সক্ষম। পোকার কামড়ে আক্রান্ত স্থানে পাতার রস লাগিয়ে দিলে পোকার কামড়ের ব্যথা ও জ্বালা থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া যায়।

১২। বয়স রোধে

ভিটামিন সি, ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস ও এসেন্সিয়াল অয়েল চমৎকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের হিসেবে কাজ করে। বয়সের ছাপ কমায়।

১৩। ত্বকের সমস্যায়

তুলসী পাতার রস ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। তুলসী পাতা বেটে সারা মুখে লাগিয়ে রাখলে ত্বক সুন্দর ও মসৃণ হয়। এ ছাড়াও তিল তেলের মধ্যে তুলসী পাতা ফেলে হালকা গরম করে লাগালে ত্বকের যে কোনও সমস্যায় উপকার পাওয়া যায়। এ ছাড়াও কোনও অংশ পুড়ে গেলে তুলসীর রস এবং নারকেলের তেল ফেটিয়ে লাগালে জ্বালা কমবে এবং সেখানে কোনও দাগ থাকবে না।

১৪। ব্রণের প্রকোপে

তুলসী পাতায় উপস্থিত অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট শরীরে প্রবেশ করে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া এবং জীবাণু মেরে ফেলে। ফলে ব্রণের প্রকোপ কমতে শুরু করে। সেই সঙ্গে নানাবিধ সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও হ্রাস পায়। ব্রণের সমস্যায় এই পাতা খেতে পারেন অথবা সরাসরি মুখে পেস্ট বানিয়ে লাগাতেও পারেন। দুই ক্ষেত্রেই সমান উপকার পাওয়া যায়।

পরুন – ব্রকলি খাবেন কেন? তার ২২টি কারণ জেনে নিন

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

খাওয়াদাওয়া

পুজোর রেসিপি: মালপোয়া

দোকান থেকে নানা রকম মিষ্টি কিনে এনে অতিথিসেবার ব্যবস্থা করতে হয়। এ রকমই একটি জিভে জল আনা মিষ্টির পদ হল মালপোয়া।

Published

on

malpoa

মিষ্টি পদ দিয়ে পুজো শুরু করেছিলাম। মিষ্টি দিয়েই পুজো শেষ করি। বিজয়াদশমীর দিন বাড়িতে অতিথি আপ্যায়নের জন্য মিষ্টি তো লাগেই। দোকান থেকে নানা রকম মিষ্টি কিনে এনে অতিথিসেবার ব্যবস্থা করতে হয়। এ রকমই একটি জিভে জল আনা মিষ্টির পদ হল মালপোয়া। আসুন কিনে আনার পরিবর্তে বাড়িতে বানানো যাক। রইল সেই অতি লোভনীয় মালপোয়ার রেসিপি।

উপকরণ

২৫০ গ্রাম চিনির রস, ৫০ গ্রাম সুজি, ২৫০ গ্রাম ময়দা, কাজুবাদাম কুচি, পেস্তা কুচি, অল্প গোটা মৌরি, বড়োএলাচ গুঁড়ো পরিমাণমতো, সাদা তেল পরিমাণমতো, অল্প ঘি, দুধ পরিমাণমতো, জল।

পদ্ধতি

প্রথমেই একটি বড়ো পাত্র নিতে হবে। তাতে ময়দার সঙ্গে সুজি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণের মধ্যে কাজুবাদাম কুচি, পেস্তা কুচি, মৌরি এক চিমটে, বড়োএলাচ গুঁড়ো দিয়ে আবার ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এর পর পরিমাণমতো দুধ দিয়ে থকথকে করে ময়দাটা গুলে নিতে হবে। গোলা হয়ে গেলে ভালো ভাবে ফেটিয়ে নিতে হবে। এ বার ৩০ মিনিট রেখে দিতে হবে।

৩০ মিনিট পরে ব্যাটারটি গরম তেলে ভাজতে হবে। এর জন্য কড়াইয়ে পরিমাণমতো সাদা তেল ও ঘি মিলিয়ে গরম করতে হবে। গরম হয়ে গেলে ডাবু হাতা করে ব্যাটার তেলের মধ্যে ছাড়তে হবে। এক পিঠ এক পিঠ করে ভাজতে হবে। লাল লাল ভাজা হলে তেল ঝরিয়ে তুলে নিতে হবে।

অন্য একটি পাত্রে চিনি জলে মিশিয়ে গরম করতে হবে। এ ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে চিনি যদি দুই কাপ হয়, জল দিতে হবে এক কাপ। ভালো করে নেড়ে নেড়ে রস তৈরি করতে হবে।

তেল ঝরিয়ে তুলে নেওয়ার পর মালপোয়া চিনির রসে ডোবাতে হবে। ১০ মিনিট ডুবিয়ে রাখার পর মালপোয়ার ভেতরে রস ঢুকে যাবে।

এর পর পরিবেশনের পালা। পরিবেশনের সময় কিছুটা কাজুপেস্তা কুচি ওপর দিয়ে ছড়িয়ে দিলে দেখতে ভালো লাগবে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

পুজোর রেসিপি: লালশাক দিয়ে চিকেন

Continue Reading

খাওয়াদাওয়া

পুজোর রেসিপি: কাঁকরোলের দোরমা

পটলের দোরমা তো অনেকই খাওয়া হয়। কিন্তু পটলকে ছাড়াও দোরমা করতে এবং খেতে হলে ট্রাই করতে পারেন কাঁকরোল।

Published

on

kankrol's dorma
অনন্যা মল্লিক

দুর্গাপুজোর পাঁচ দিন বাড়িতে নানা রকম পদ বানিয়ে জিভের স্বাদ পালটাতেই পারেন। এ বার তো করোনার কারণে বাড়ির বাইরে খুব একটা যাওয়া হবে না। সুতরাং এ বারই সুযোগ আছে, নানা রকম পদ বানিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করা।

দুর্গাপুজোর মহাষ্টমীতে বেশির ভাগ বাঙালি বাড়িতেই নিরামিষ খাওয়া হয়। পটলের দোরমা তো অনেকই খাওয়া হয়। কিন্তু পটলকে ছাড়াও দোরমা করতে এবং খেতে হলে ট্রাই করতে পারেন কাঁকরোল। এমনিতে কাঁকরোলের কদর খাবার তালিকায় তেমন নেই ঠিকই। কিন্তু তা দিয়ে দোরমা বানালে আট থেকে আশি সকলেই তা চেটে পুটে খাবে।

উপকরণ

কাঁকরোল ৬টা, তেল, জল

পুরের জন্য

১. পেঁয়াজ ১টা ছোটো করে কাটা

২. কাঁকরোলের মাঝের অংশটা

৩. পনির কুরোনো ১/২ কাপ

৪. আদা ১ ইঞ্চি

৫. রসুন ২-৩ কোয়া

৬. কাঁচা লঙ্কা ২-৩টে

৭. নুন পরিমাণমতো

৮. চিনি পরিমাণমতো

৯. গরম মশলাগুঁড়ো ১/২ চা-চামচ

১০. কিশমিশ ১০-১২ টা

গ্রেভির জন্য

১. ছোটো এলাচ ২টো

২. লবঙ্গ ২টো

৩. দারচিনি ছোটো টুকরো

৪. গোটা গোলমরিচ ৩-৪ টে

৫. গোটা জিরে ১/২ চা-চামচ

৬. পেঁয়াজ টমেটোর পেস্ট ১/২ কাপ

৭. আদা-রসুনবাঁটা ১ চামচ

৮. লঙ্কাগুঁড়ো ১/২ চা-চামচ

৯. জিরেগুঁড়ো ১/২ চা-চামচ

১০. ধনেগুঁড়ো ১/২ চা-চামচ

১১. হলুদগুঁড়ো ১/২ চা-চামচ

১৩. নুন পরিমাণমতো

১৪. চিনি পরিমাণমতো

১৫. ফেটানো টক দই ১/৪ কাপ

১৬. পোস্ত কাজুবাদামের পেস্ট ২ চা-চামচ

১৪. গরম মশলা ১/২ চা-চামচ

কী ভাবে বানাবেন

১. কাঁকরোলগুলোর গা ভালো করে ঘষে নিতে হবে, যাতে কাঁটাগুলো না থাকে।

২. কাঁকরোলের দু’ দিক অল্প করে কেটে নিতে হবে।

৩. এ বার একটা দিক ভালো করে কেটে চামচের পিছন দিয়ে ভিতরের বীজ, শাঁস সব বার করে নিতে হবে।

৪. কড়াইয়ে তেল গরম করতে হবে।

৫. কাঁকরোলগুলো ৬-৭ মিনিট ভেজে নিতে হবে।

কী ভাবে পুর তৈরি করবেন

১. কিশমিশগুলো জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে।

২. কাঁকরোলের মাঝের অংশ, আদা, রসুন, লঙ্কা, পনির সব মিক্সিতে পেস্ট করে নিতে হবে।

৩. কড়াইয়ে অল্প তেল গরম করতে হবে।

৪. কুচিয়ে রাখা পেঁয়াজ ভাজতে হবে।

৬. পেঁয়াজ ভাজা হয়ে গেলে তাতে পেস্টটা দিতে হবে।

৭. পরিমাণমতো নুন, চিনি, গরম মসলা, কিশমিশ দিয়ে ভালো করে নাড়তে হবে।

৮. মাখামাখা হয়ে গেলে নামাতে হবে।

হয়ে গেল পুর তৈরি। এ বার ভেজে রাখা কাঁকরোলগুলোর ভিতর পুরটা ভালো করে ভোরে দিন।

কী ভাবে গ্রেভি তৈরি করবেন

১. কড়াইয়ে তেল গরম করতে হবে।

২. ছোটো এলাচ, লবঙ্গ, দারচিনি, গোটা গোলমরিচ, গোটা জিরে ফোঁড়ন দিতে হবে।

৩. পেয়াঁজ টমেটোর পেস্টটা দিতে হবে।

৪. আদা-রসুনবাঁটা দিতে হবে।

৫. লঙ্কাগুঁড়ো, জিরেগুঁড়ো, ধনেগুঁড়ো, হলুদগুঁড়ো, নুন, চিনি দিয়ে অল্প জল দিয়ে ভালো করে কষতে হবে।

৬. তেল ছাড়লে ফেটানো টক দই, কাজু-পোস্ত পেস্টটা দিতে হবে।

৭. ভালো করে কষিয়ে তেল ছাড়লে জল দিতে হবে।

৮. এ বার কাঁকরোলগুলো দিয়ে ঢাকা দিতে হবে।

৯. ১৫ মিনিট পর ঢাকা খুলে একটু নাড়িয়ে আরও ৫ মিনিট ঢাকা দিতে হবে।

১০. এ বার গরম মশলাগুঁড়ো ছড়িয়ে দিতে হবে।

১১. ভালো করে ফুটিয়ে গা মাখা পছন্দ হলে গা মাখা করে, না হলে অল্প গ্রেভি রাখলেও হবে।

গরম গরম পরিবেশন করতে হবে কাঁকরোলের দোরমা।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

পুজোর রেসিপি: ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে কচুশাক

Continue Reading

খাওয়াদাওয়া

পুজোর রেসিপি: ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে কচুশাক

যে কোনো আনাজপাতিই ইলিশের ছোঁয়ায় মধুর হয়ে ওঠে। তেমনই একটি হল কচুশাক।

Published

on

kachuilish

বাজারে ইলিশ মাছের অবশ্য বিপুল দাম। তবু পুজোর একটা দিন তো ইলিশ মাছের কিছু পদ খেতে ইচ্ছে করতেই পারে। সপ্তমীর দিন ইলিশ মাছ বাড়িতে ঢোকাতেই পারেন।

ইলিশ মাছ মানেই রকমারি স্বাদের বাহার। যে কোনো আনাজপাতিই ইলিশের ছোঁয়ায় মধুর হয়ে ওঠে। তেমনই একটি হল কচুশাক।

কাটাকাটির ঝামেলার জন্য আজকালকার দিনে কচু রান্না অনেক বাড়ি থেকে প্রায় উঠেই গিয়েছে। কিন্তু যদি ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে কচুশাক রান্না করে খাওয়া যায় তা হলে আর ঝামেলা মনে হবে না। মাঝে মধ্যেই তা রান্না করে খেতে মন চাইবে। এ বার জেনে নেওয়া যাক ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে কচুশাক রান্না করার একটি অতি সহজ পদ্ধতি।

উপকরণ

২টি ইলিশ মাছের মাথা, ২ আঁটি কচুশাক টুকরো করে কাটা, আধ মালা নারকেল কোরা, ২টি কাঁচা লঙ্কা চেরা, ২ চা চামচ জিরেগুঁড়ো, সামান্য হলুদগুঁড়ো, পরিমাণমতো নুন, পরিমাণমতো চিনি, ২টি তেজপাতা, ২টি শুকনো লঙ্কা ও সরষের তেল।

প্রণালী

প্রথমে টুকরো করা কচুশাক সেদ্ধ করে জল ঝরিয়ে রাখতে হবে। ইলিশ মাছের মাথা ভালো করে ধুয়ে নুন-হলুদ মাখিয়ে রাখতে হবে। এর পরে কড়াইয়ে সরষের তেল দিয়ে গরম করতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে ইলিশ মাছের মাথা সরষের তেলে হালকা ভেজে তুলে রাখতে হবে। এ বার এই তেলেই তেজপাতা আর শুকনো লঙ্কা, চেরা কাঁচা লঙ্কা ফোঁড়ন দিতে হবে। এর মধ্যে কচুশাক দিয়ে অল্প নাড়াচাড়া করে তাতে জিড়েগুঁড়ো, নারকেল কোরা, পরিমাণমতো নুন ও চিনি দিয়ে আবার নাড়তে থাকতে হবে। কিছু সময় পরে এর মধ্যেই ইলিশ মাছের মাথাও কড়াইয়ে দিয়ে নাড়তে থাকতে হবে। জল শুকিয়ে এলেই নামিয়ে নিতে হবে।

এর পর ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন গরম গরম ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে কচুশাক।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

পুজোর রেসিপি: মালপোয়া

Continue Reading

Amazon

Advertisement
uddhav thackeray
দেশ19 mins ago

সংঘাত বাড়ল কেন্দ্রের সঙ্গে, সিবিআইকে তদন্তের জন্য সাধারণ সম্মতি প্রত্যাহার করল মহারাষ্ট্র সরকার

রাজ্য41 mins ago

‘সব বাঙালি বাংলাদেশি’, বাঙালি বিরোধী আন্দোলনে উত্তপ্ত মেঘালয়

বিদেশ60 mins ago

ব্রাজিলে মৃত স্বেচ্ছাসেবক টিকা নেয়নি, বন্ধ হচ্ছে না ট্রায়াল

রাজ্য1 hour ago

ষষ্ঠীর সকাল থেকে কলকাতায় ঝোড়ো হাওয়া, উপকূলে বৃষ্টি শুরু

Ekdalia Evergreen
কলকাতা7 hours ago

আজ ষষ্ঠী: পঞ্চমীর রাতে অচেনা কলকাতা, মাস্ক পরে প্রতিমাদর্শন

জীবন যেমন9 hours ago

এই লক্ষণগুলি থাকলে নির্ভয়ে পুজোতেই প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে ফেলুন

শরীরস্বাস্থ্য9 hours ago

নিয়মিত মিষ্টি আলু খাবেন কেন? জেনে নিন

দেশ9 hours ago

বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তীতে চালু হয়ে যাচ্ছে চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথ

দেশ23 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫৪০৪৪, সুস্থ ৬১৭৭৫

দেশ2 days ago

আজ থেকে ৩৯২টি উৎসব স্পেশাল ট্রেন, দেখে নিন পূর্ণাঙ্গ তালিকা

দেশ2 days ago

কোভিড মহামারিতে বিহার ভোটে খরচের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ল ১০ শতাংশ

দুর্গা পার্বণ3 days ago

পুজোয় রোজই বৃষ্টি, ষষ্ঠী থেকে অষ্টমী সম্ভাবনা ভারী বর্ষণের

durga
রাজ্য3 days ago

রাজ্যের সব পুজো প্যান্ডেল ‘নো এন্ট্রি জোন’, ঐতিহাসিক রায় কলকাতা হাইকোর্টের

কলকাতা3 days ago

‘অন্য রকম পুজো ২০২০’, যৌনকর্মীদের পাশে সৃষ্টি ড্যান্স অ্যাকাডেমি

ক্রিকেট3 days ago

সামনের বছরের শুরুতেই ইংল্যান্ড আসছে ভারতে, ইডেনেই হয়তো দিন রাতের টেস্ট

রাজ্য12 hours ago

প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন নরেন্দ্র মোদী, আদর্শ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়: বিমল গুরুং

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 weeks ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা3 weeks ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা3 weeks ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা3 weeks ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা3 weeks ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা4 weeks ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা4 weeks ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা4 weeks ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 month ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 month ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

নজরে