শিশুদের মধ্যে কোভিড: আতংকিত হওয়ার দরকার নেই, বলছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা

0

নয়াদিল্লি: স্কুল খুলতে দেশের কয়েকটি জায়গা থেকে ফের পড়ুয়াদের করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এতে আতংকিত হওয়ার কারণ নেই।

1. সাধারণ কিছু নিয়ম

মাস্ক পরার পাশাপাশি সাধারণ কয়েকটি আচরণ মেনে চলা উচিত। যেমন স্যানিটাইজেশন। এ ধরনের কোভিডবিধি মেনে চললেই উদ্বেগ দূর হবে বলে পরামর্শ তাঁদের।

2. শিশুদের উপসর্গ হালকা

এইমস-এর ডিরেক্টর ডা. রণদীপ গুলেরিয়া জানিয়েছেন, আতংকিত হওয়ার কারণ নেই। অতীতের তথ্য স্পষ্ট দেখিয়েছে, শিশুরা করোনা সংক্রমিত হলেও তাদের উপসর্গ হালকা। সাধারণ চিকিৎসাতেই তারা সুস্থ হয়ে উঠছে।

3. টিকাকরণে জোর

তবে যে পড়ুয়ারা বয়সানুযায়ী টিকা নেওয়ার যোগ্য, তাদের টিকা নেওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন এইমস-এর ডিরেক্টর। তাই বলে যারা টিকা পাচ্ছে না, তাদের আতংকিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

4. যখন স্কুল বন্ধ ছিল

মহামারি বিশেষজ্ঞ এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. চন্দ্রকান্ত লাহারিয়া বলেছেন, “আমাদের মনে রাখা দরকার যে যখন স্কুল বন্ধ ছিল, তখনও শিশুদের কোভিড আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়েছিলাম আমরা”।

5. পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

কয়েকটা মাত্র স্কুল থেকে পড়ুয়াদের করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবর মিলেছে। তাতে উদ্বেগের কিছু নেই। কারণ, অতীতে করোনার রূপ বদল হলেও শিশুদের উপর তার কোনো মারাত্মক প্রভাব দেখা যায়নি। এমনকী নতুন রূপের ক্ষেত্রেও তাদের ঝুঁকি কম।

6. বিশ্বব্যাপী প্রমাণ

আইসিএমআর-এর অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর সমীর পণ্ডা জানিয়েছেন, বিশ্বব্য়াপী তথ্য বলছে স্কুলগুলি মোটেই কোভিড সংক্রমণের অন্যতম কেন্দ্রস্থল নয়। তবে পড়ুয়া, শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের অবশ্যই বিধি মেনে চলতে হবে।

7. বড়োদের থেকে ঝুঁকি কম

তিনি আরও বলেন, “১-১৭ বছর বয়সিদের মধ্যেও প্রাপ্তবয়স্কদের মতোই কোভিডের সংক্রমণ ছড়াতে পারে। তবে, শিশুদের মধ্যে গুরুতর রোগ এবং মৃত্যুর ঝুঁকি বড়োদের তুলনায় অনেক কম”।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল