আপনি কি আপনার ত্বক নিয়ে সমস্যায় আছেন ? ত্বকের অনুজ্জ্বলতার জন্য সেলফি নিশ্চয়ই ভালো উঠছে না ?

এত চিন্তা করার কোনও কারণ নেই। সমাধান তো আপনার নিজের হাতেই। কী করে সেটাই ভাবছেন তো?

দিনে দু’বার মুখ ধুয়ে নিন

তেমন কিছুই না। সবার আগে যেটা করতে হবে প্রতি দিন দু’বার করে ফেস ওয়াস দিয়ে মুখ ধুতে হবে। তার ফলে মুখে জমে থাকা তেল-ময়লা, বেরিয়ে যাবে আর ত্বক তরতাজা হয়ে উঠবে। তবে ফেস-ওয়াশ বাছতে হবে আপনার স্কিন-টাইপ অনুযায়ী। আর দরকার রোদে বেরোনোর আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা। তবে সেটা অবশ্যই নিজের স্কিন টাইপ অনুযায়ী ব্যবহার করতে হবে।

সঠিক খাদ্যাভ্যাস জরুরি

শুধু বাইরে থেকে ত্বকের যত্ন নিলেই হবে না। ভেতর থেকেও যত্ন করতে হবে। তার জন্য দরকার সঠিক আর উপযুক্ত পরিমাণের খাবার খাওয়া। তার মধ্যে দুধ ও দুগ্ধজাত খাবারের পরিমাণ কম রাখতে হবে, কারণ এই জাতীয় খাবার ত্বককে তৈলাক্ত করে। ফলে লোমকূপগুলি বন্ধ হয়ে যায়। তার থেকে ত্বকে ব্রনো, ফুসকুড়ি হয়। তাই আপনার রোজের খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে নানা ধরণের খাদ্যশস্য, বিনস্ জাতীয় খাবার, টাটকা শাকসবজি, প্রচুর ফল ও পরিমাণ মত জল।

ব্যায়ামের বিকল্প নেই

স্বাস্থ্য সতেজ ও সুন্দর রাখতে যোগ ব্যায়ামের কোনও বিকল্প নেই। ঠিক তেমন ভাবেই আপনার ত্বকের জন্যও যোগ ব্যায়াম খুবই উপকারী। বাড়িতে হালকা ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম করলেও উপকার পাবেন। ব্যায়াম করলে যেমন  বাড়তি মেদ কমবে তেমনই আপনার ত্বকের তেলতেলে ভাব কেটে যাব। তবে ব্যায়াম করার পর অবশ্যই ভালো করে ত্বক পরিষ্কার করা খুবই দরকার। তা না হলে তেল, মৃত কোষ সব জমে থেকে লোমকূপকে বন্ধ করে দেবে। তাতে হিতে বিপরীত হবে।

 

পর্যাপ্ত ঘুম

স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ত্বকের জন্য যেটা খুব দরকার তা হল ঘুম। একটা লম্বা টানা ঘুম শরীরের সঙ্গে সঙ্গে ত্বককেও সতেজ করে। ত্বককে তারুণ্যে ভরে তোলে। তাই রাতে অন্তত সাত ঘণ্টা ঘুমতেই হবে।

টানা এক মাস এই পদ্ধতি মেনে চললে আপনার ত্বকের পরিবর্তনে আপনি নিজেই মুগ্ধ হয়ে যাবেন। তবে দীর্ঘ অভ্যাসে ফলও দীর্ঘস্থায়ী হবে।

ছবি ইন্টারনেট থেকে নেওয়া।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here