ওয়েবডেস্ক: সাজগোজ করবেন অথচ নখে নেলপলিশ থাকবে না তা বললে কী করে হয়। এখন তো বাজারে হরেক রকমের বিভিন্ন রঙের নেলপলিশের ছড়াছড়ি। কেউ দোকান থেকে কিনছেন তাঁদের পছন্দের নেলপলিশ আবার কেউ বা অনলাইন থেকেই কিনে নিচ্ছেন নিজের পছন্দমতো।

এখন নেলপলিশ পরার মধ্যে এসেছে আধুনিকত্বের ছোঁয়া। আমরা নখের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য এখন একটা রঙের নেলপলিশ ব্যবহার করি তো আবার কিছুক্ষণ পরেই আরেকটা। কিন্তু এটা কি জানেন, নেলপলিশ যেমন আমাদের সৌন্দর্য বৃদ্ধি  করে ঠিকই আবার অনেক সময় নানা রকম ক্ষতিও করে থাকে।

নেলপলিশের মধ্যে নানা রকম রাসায়নিক ব্যবহৃত হয়। এগুলি অনেক সময় অত্যন্ত খারাপ প্রভাব ফেলে আমাদের শরীরের ওপর।

চলুন জেনে নেওয়া যাক নেলপলিশের ক্ষতিকারক দিকগুলি সম্পর্কে-

১। টক্সিন

নেলপলিশ নানা ধরনের রাসায়নিকের মিশ্রণে তৈরি হয়। এতে নানা ধরনের টক্সিন থাকে। সব থেকে বেশি টক্সিন নেলপলিশেই থাকে। যেমন- পাথালেটস, ফর্মালডিহাইড ইত্যাদি। এগুলি সাধারণত গন্ধ এবং রঙের জন্য ব্যবহার করা হয় এবং খুব তাড়াতাড়ি হাওয়ার সাথে মিশে যায়। ফলে যত বার আমরা নেলপলিশ ব্যবহার করি তত বার এগুলি আমাদের নিঃশ্বাসের সঙ্গে গ্রহণ করে থাকি। যা আমাদের শরীরের মারাত্মক ভাবে ক্ষতি করে।

এই কারণে নেলপলিশ ব্যবহার করার সময় নাক মুখ ঢেকে নেওয়া ভালো। এ ছাড়া সপ্তাহে ১ বার বা ২ বারের বেশি ব্যবহার না করাই ভালো।

২। সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেমকে ক্ষতিগ্রস্ত করে

Image result for damage nail care

বিভিন্ন রঙের নেলপলিশ দেখলেই আমাদের মনে হয় কোনটা বাদ দিয়ে কোনটা কিনব। অনেক সময়ই আমরা দেখে থাকি অনেকেই প্রায় প্রতি দিনই নেলপলিশ লাগিয়ে থাকে। এটি অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এটা আমাদের সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেমকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এর ফলে অনেক সময় রিপ্রোডাক্টিভ সিস্টেমের কার্যকারিতা কম হতে থাকে।

৩। নখের ক্ষতি

নেলপলিশে ব্যবহৃত ক্ষতিকারক রাসায়নিকগুলি নানা রকম রোগের কারণ হতে পারে। এর ফলে অনেক সময় আমাদের নখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। নখের মধ্যে লাল লাল ছোপ পড়তে দেখা যায়। এ ছাড়া নানা ধরনের এলার্জি হয় যা ত্বক ও চোখের ক্ষতি করে।

৪। স্কিন ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা

এতে ব্যবহৃত রাসায়নিকগুলি কার্সিনোজেন তৈরি করে। এই কার্সিনোজেন ক্যানসার হওয়ার একটি কারণ। অনেক সময়ই আমরা এর উপাদানগুলি না দেখে বা যে কোনো ব্র্যান্ডের নেলপলিশ ব্যবহার করে থাকি। কম দামি নেলপলিশগুলিতে সাধারণত রাসায়নিক উপাদান বেশি করে ব্যবহৃত হয়। এর ফলে স্কিন ক্যানসার হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here