সাবধান! ৫ ঘণ্টার বেশি স্মার্টফোনে কাটাবেন না, বলছে গবেষণা

0
fat
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: এর আগে একটি গবেষণা থেকে উঠে এসেছিল ফেসবুক হোয়াটস অ্যাপে বেশি সময় ব্যস্ত থাকলে তা অবসাদ দূর করতে সাহায্য করে। এ বার আরও একটি নতুন গবেষণার কথা আপনাদের জানানো যাক। এই নতুন গবেষণা থেকে জানা যাচ্ছে, দিনে পাঁচ ঘণ্টার বেশি স্মার্টফোনে ব্যস্ত থাকলে তা শরীরে নানা রকম রোগের দানা বাঁধতে সাহায্য করে।

গবেষক মিরারি মানটিল্লা মররনের মতে, স্মার্টফোনের বর্তমান কার্যকারিতা বহুমুখী। তার কোনো তুলনাই হয় না। ফলে অনেক কাজ যেমন স্মার্টফোন থেকে হয়ে যাচ্ছে, তেমনই স্মার্টফোনের নানান নিত্য নতুন ব্যবস্থা মানুষের মধ্যে তা নিয়ে দীর্ঘক্ষণ কাটিয়ে দেওয়ার প্রবণতা বাড়িয়ে দিচ্ছে। ফলে মানুষের শরীরের চলাচল কমে যাচ্ছে। শরীর ক্রমশ মোটা হতে থাকে। মোটা শরীর ক্রমশ ওবিসিটির শিকার হয়। আর ওবিস হয়ে যাওয়া মানেই শরীরে নানান রোগের বাসা তৈরি হয়। এতে করে সাধারণের থেকে ৪৩% ওবিসিটির সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তার থেকে শুরু হয় হৃদরোগ, অন্যান্য সমস্যা যেমন সময়ের আগে মৃত্যু, মধুমেহ রোগ, নানান ধরনের ক্যানসার, অস্টিওয়ার্টিকুলার ডিসকমফোর্ট।

গবেষকরা ২০১৮ সালের জুন থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত শিমন বলিভার ইউনিভার্সিটির এক হাজার ৬০ জন পড়ুয়াকে নিয়ে এই পরীক্ষাটি করে দেখেছেন। এই দলের মধ্যে ছিল ৭০০ জন মহিলা ও ৩৬০ জন পুরুষ। এদের সকলের বয়স যথাক্রমে ১৯ ও ২০ বছর। অংশগ্রহণকারী পুরুষদের ৩৬.১%-এর মধ্যে অতিরিক্ত ওজন হওয়ার সম্ভাবনা। ৪২.৬%-এর ওবিস হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। মহিলাদের মধ্যে ৬৩.৯% -এর ওজন বেশি হওয়ার সম্ভাবনা ও ৫৭.৪%-এর মধ্যে ওবিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি ছিল।

এই গবেষণাপত্রটি এসিসি লাতিন আমেরিকা কনফারেন্সে প্রকাশিত হয়েছিল।

তবে সময়ের সঠিক মাত্রা বজায় রাখতে পারলে হোয়াটসঅ্যাপ স্বাস্থ্যের জন্য ভালো, বলছে গবেষণা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.