সকালে দুই পাঁক হেটেই দেখুন

ওয়েবডেস্ক: হাঁটা হল সব ধরনের ব্যায়ামের মধ্যে সবচেয়ে উপকারী। প্রতিদিন সকালে অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিট টানা হাঁটার অভ্যাস আছে অনেকেরই। আর যাদের এই অভ্যাস নেই তাদেরও এই অভ্যাস গড়ে তোলা উচিত। কারণ প্রতিদিন সকালে মাত্র ২০-৩০ মিনিট হাঁটলে স্বাস্থ্য ভালো ও সুস্থ থাকবেন।

প্রতিদিন হাঁটতে যাওয়ার আগে লক্ষ রাখুন আপনার পোশাকটি যথেষ্ট আরামদায়ক এবং হাঁটার উপযোগী কি না। হাঁটার আগে একটু ঢিলে ঢালা পোশাক পরে নিন। হাঁটার জন্য আরামদায়ক জুতো কিনে নিন। সঙ্গে অবশ্যই জল রাখবেন। প্রতি ১৫ মিনিট পর অল্প করে জল খান।

তা হলে চলুন, মর্নিং ওয়ার্কের ৭টি স্বাস্থ্য উপকারিতা জেনে নেওয়া যাক-

১। আয়ু বাড়ে

প্রতিদিন সকালের মর্নিং ওয়ার্কের সময় বিশুদ্ধ বাতাস ও সুন্দর পরিবেশ আপনার হৃৎপিণ্ড ও মনের কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। হাঁটার সময় হৃৎপিণ্ড শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করে। ফলে প্রতিটি অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সুস্থ ও সচল থাকে এবং মানুষ দীর্ঘজীবী হয়।

২। স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়

সকালে প্রতিদিন কিছুক্ষণ হাঁটলে ফুসফুসে শুদ্ধ বাতাস প্রবেশ করার সুযোগ পায়। এই বাতাস থেকে অক্সিজেন সংগ্রহ করে হৃৎপিণ্ড রক্তকে বিশুদ্ধ করে এবং অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্ত মস্তিষ্কে সরবরাহ করে। ফলে মস্তিষ্ক সচল থাকে এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

৩। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, সকালে নিয়মিত হাঁটলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। নিয়মিত সকালে হাঁটলে রক্তের লোহিত কণিকাগুলো থেকে চর্বি ঝরে যায়। এ ছাড়াও হাঁটার সময় রক্তের ইনসুলিন ও গ্লুকোজ ক্ষয় হয়। ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রিত থাকে।

৪। ত্বক ভালো করে

প্রতিদিন সকালে হাঁটলে প্রচুর পরিমাণে ঘাম হয়। ফলে ত্বকের লোমকূপগুলো খুলে যায় এবং শরীরের দূষিত পদার্থগুলো ঘামের মাধ্যমে বের হয়ে যায়। ফলে ত্বক উজ্জ্বল ও লাবন্যময় দেখায়।

আরও পড়ুন:  এই চারটি যোগাসনে ম্যাজিকের মতো কমবে ভুঁড়ি

৫। মেদ কমায়

নিয়মিত সকালে হাঁটলে মেদ ভুড়ির হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। হাঁটলে প্রচুর ক্যালরি ক্ষয় হয়। ফলে নিয়মিত কম ক্যালরির খাবার খাওয়ার পাশাপাশি প্রতিদিন সকালে অন্তত ৩০ মিনিট করে হাটলে মেদ কমে এবং দেহের আকৃতি সুন্দর হয়।

৬। দৃষ্টি শক্তি ভালো করে

প্রতিদিন কম্পিউটারের স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে কাজ করতে গিয়ে চোখের বারোটা বেজে যাচ্ছে? চোখকে কিছুটা আরাম দিতে এবং চোখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে প্রতিদিন সকালে হাঁটার বিকল্প নেই। গবেষণায় দেখা গেছে, সকালে খালি পায়ে ঘাসের উপর হাঁটলে দৃষ্টিশক্তি ভালো থাকে।

৭। মানসিক চাপ কমায়

প্রতিদিন হাঁটতে বেরিয়ে সকালের সুন্দর স্নিগ্ধতা উপভোগ করতে কার না ভালো লাগে বলুন! প্রতিদিন সকালের সুন্দর পরিবেশ ও কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি আপনার মন ভালো করে দিতে পারে নিমেষেই। প্রতিদিন সকালে কিছুক্ষণ হেঁটে আসলে সারাদিন কাজের উৎসাহ বাড়ে এবং মানসিক চাপ কমে যায়।

2 মন্তব্য

  1. বয়স্থ এবং উচ্চ রক্তচাপের রোগীর মর্নিং ওয়াকের বদলে ইভনিং ওয়াক করা উচিৎ। স্বাভাবিক নিয়মে (diurnal rhythm) রক্তচাপ বেশীর দিকে থাকে, তাই হাঁটার ফলে সেটি আর‌ও উচ্চ হতে পারে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here