স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন বংশগত ভাবে সম্ভাব্য ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে পারে, বলছে গবেষণা

0
cancer
ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে পারে স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন, যেমন ধূমপান এবং মদ্যপান থেকে বিরত থাকা, দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা এবং শরীরচর্চা বংশগত ভাবে সম্ভাব্য ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে পারে বলে জানাল একটি গবেষণা।

আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর ক্যান্সার রিসার্চ-এর জার্নালে এই গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে। নানজিং মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক গুয়াংফু জিন এই গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

Shyamsundar

ক্যানসারের ঝুঁকিকে প্রভাবিত করতে পারে কি না, এমন নির্দিষ্ট পরিবর্তিত ডিএনএ নিয়ে গবেষণা অব্যাহত রয়েছে। এ ক্ষেত্রে গবেষকরা অনুমানের ভিত্তিতে পলিজেনিক রিস্ক স্কোর (PRS) নির্ধারণ করেন। তবে বেশির ভাগ পিআরএস সম্পূর্ণ ক্যানসারের ঝুঁকির থেকে নির্দিষ্ট ধরনের ক্যানসারের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে বলে অনুমান গবেষকদের।

জিন বলেছেন, “একটি পিআরএস নির্দিষ্ট ক্যানসারের ঝুঁকিপূর্ণ ইঙ্গিত দেয়, তবে এটি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ”। তাঁর কথায়, “সামগ্রিক ভাবে ক্যানসারের জিনগত ঝুঁকি পরিমাপ করার জন্য আমরা একটি সূচক তৈরি করার চেষ্টা করেছি – সেটা হল ক্যানসার পলিজেনিক রিস্ক স্কোর (CPRS)”।

জিনোম-ওয়াইড অ্যাসোসিয়েশন স্টাডি থেকে প্রাপ্ত তথ্য ব্যবহার করে পুরুষদের মধ্যে ১৬টি এবং মহিলাদের মধ্যে ১৮টি পৃথক ক্যানসারের পিআরএস গণনা করেছিলেন গবেষকরা। সেখান থেকেই তাঁরা একেক ধরনের ক্যানসারের তুলনামূলক অনুপাতের ভিত্তিতে এই স্কোরগুলোর একক পরিমাপ করেছিলেন। পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য পৃথক সিপিআরএস তৈরি করা হয়েছিল।

নিজেদের সিপিআরএস যাচাইয়ের জন্য গবেষকরা ইউকে বায়োব্যাঙ্কের ২০২৪৪২ জন পুরুষ এবং ২৩৯৬৫৯ জন মহিলার তথ্য ব্যবহার করেছিলেন। অংশগ্রহণকারীদের জেনোটাইপ তথ্য এক সঙ্গে ব্যবহার করে প্রতিটি ব্যক্তির জন্য সিপিআরএস গণনা করেছিলেন গবেষকরা।

বিস্তৃত এই গবেষণার ফলাফল হিসেবে বলা হয়েছে, ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে প্রত্যেকেরই উচিত স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন। বিশেষত, যাঁদের মধ্যে বংশগত ভাবে ক্যানসারের ঝুঁকি রয়েছে, স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা তা হ্রাস করতে পারে। গবেষকরা আশাবাদী, সিপিআরএস সামগ্রিক ভাবে ক্যানসারে বিরুদ্ধে মানুষকে আরও সচেতন করে তুলবে।

আরও পড়তে পারেন: রেড মিট এবং প্রক্রিয়াজাত মাংস ঝুঁকি বাড়াচ্ছে হৃদরোগের, বলেছে বিশ্বের বৃহত্তম গবেষণা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন