কী ভাবে কমাবেন পেটের ওজন জেনে নিন

ওয়েবডেস্ক: শীতকালে উৎসবের মরশুমে খাওয়া-দাওয়ার কোনও লাগাম থাকে না। অনিয়ম ও ব্যস্ত লাইফস্টাইল এখন নারী-পুরুষ উভয়েরই চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। জাঙ্কফুডের বদঅভ্যাস ও খাওয়ার অনিয়মে পেটে মেদ বাড়ছে।

এর থেকে সৃষ্টি হচ্ছে নানা রকম রোগের। তবে এ সমস্যা থেকে খুব সহজেই রেহাই পেতে পারেন। মাত্র এই ৪টি নিয়ম মেনে চলুন, আর কমিয়ে ফেলুন পেটের মেদ।

(ক) ১ম ধাপ-

পেটের মেদ কমানোর জন্য সর্ব প্রথম কাজ হচ্ছে ব্যায়াম করতে হবে। শুধু পেটের ব্যায়ামই নয়, করতে হবে পুরো শরীরের ব্যায়াম। পুশ-আপ, পুল-আপ করতে হবে। দড়িলাফ করতে পারলে সব চাইতে ভালো। এ ছাড়া ১ সপ্তাহের মধ্যে পেটের মেদ কমাতে চাইলে প্রতিদিন ব্যায়াম করেই ৫০০ থেকে ৬০০ ক্যালোরির মতো ক্ষয় করতে হবে।

(খ) ২য় ধাপ-

দিন শুরু করুন পাতিলেবু ও জল দিয়ে। প্রতিদিন সকালবেলা নিয়ম করে ১ গ্লাস লেবু দিয়ে গরম জল খান। সকালের ব্রেকফাস্টের আগে কোনও একটা ফল ও অনেকটা জল খান। মনে রাখবেন, জল মেদ ঝরাতে মোক্ষম ওষুধ।

(গ) ৩য় ধাপ-

পেটের মেদ কমাতে খাবার থেকে চিনি এবং কার্বোহাইড্রেট বাদ দিতে হবে। কার্বোহাইড্রেট সামান্য রাখতে পারেন দেহের এনার্জির মাত্রা ঠিক রাখার জন্য। কিন্তু অবশ্যই চিনি বাদ দিতে হবে। মাছ এবং মুরগির মাংস, প্রচুর পরিমাণে শাকসবজি এবং ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খান। এবং প্রতিদিন একটি বা দু’টি তাজা ফল খেতে হবে। যে কোনও খাবরাই খান না কেন, তাতে নুনের ভাগ যেনও খুব কম থাকে।

[আরও পড়ুন: চটজলদি ওজন কমাতে ডায়েট চার্টে রাখুন সেদ্ধ আলু]

(ঘ) ৪র্থ ধাপ-

মশলাবর্জিত খাবারে ব্যবহার করুন শুধু দারুচিনি, গোলমরিচ ও আদা। এইসব মশলা পেটের মেদ দূর করতে সাহায্য করে। রসুনও পেটের মেদ দূর করে। আদা এবং রসুন কাঁচা চিবিয়ে খাওয়ার অভ্যাস করতে পারেন এতে শুধু মেদই নয়, সর্দি-কাশি ও নানাধরনের রোগ সেরে যায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here