ওয়েবডেস্ক: বেস্ট ফ্রেন্ডের বিয়ে বলে কথা, প্রিয়াঙ্কার বিয়ের জন্য সেই কবে থেকে মুখিয়ে আছে অস্মিতা। কিন্তু গেল বছর সেপ্টেম্বর থেকেই পুজো, দীপাবলি, ভাইফোঁটা, একটার পর একটা অনুষ্ঠান লেগেই আছে বাড়িতে না হয় অফিসে। প্রিয়াঙ্কার রিসেপশন পার্টিতে পরবে বলে নি লেন্থ একটা ড্রেস কিনেছিল। দিন দুয়েক আগে ট্রায়াল দিতে গিয়ে দেখে কোমরের কাছে বেশ চেপে বসছে। ব্যাস, অমনি মুখ গোমড়া হয়ে গেছে মেয়ের। সাধ করে কেনা ড্রেসটা তাহলে পড়া হবে না? হাতে এখনও মাস দেড়েক সময় অবশ্য আছে। প্রিয়াঙ্কার মতো আপনারও এমন কোনো উপায় জানা খুব দরকার? নীচের পয়েন্টগুলো তাহলে মিস করবেন না।

নিজেকে প্রশ্ন করুন, সত্যিই কী চাইছে আপনার শরীর?

অধিকাংশ সময়ে আমাদের খিদে পাওয়ার আগেই আমরা কিছু না কিছু খেতে থাকি। কী খাবেন, সে ব্যাপারে প্রশ্ন করুন নিজের শরীরকে। মিষ্টি খেতে ইচ্ছে করছে? সত্যিই খিদে পেয়েছে, নাকি খাবার দেখে লোভ সামলাতে পারছেন না? কোনো কারণে খুব চাপে আছেন? অথবা একঘেয়ে লাগছে? মানসিক ভাবে ক্লান্ত? মনকে অন্যদিকে ব্যস্ত রাখুন। পছন্দের সঙ্গীর সঙ্গে দেখা করে একটু গল্প করে নিন, অথবা সে সুযোগ না থাকলে চট করে অল্প একটু ঘুমিয়ে নিন। দেখবেন খিদে খিদে ভাবটার কথা ভুলেই গেছেন।

স্বাস্থ্যকর ব্রেকফাস্ট করুন রোজ সকালে

প্রাতরাশ অবশ্যই করুন। সকালে স্বাস্থ্যকর ব্রেকফাস্ট করলে সারাদিনে ভুলভাল খাবার খাওয়ার ঝোঁকটা কমে। ব্রেকফাস্টে ডিম থাকলে তো কথাই নেই। ডিম খেলে পেট ভরা থাকে অনেকক্ষণ। খিচুড়ি কিংবা মিউসলি খেলে আরাম হয়।

মাঝরাতে উঠে খাবার খোঁজার অভ্যেস থেকে বেরোন

দিন যত গড়াতে থাকে, তত বেশি খিদে পায় আপনার? আপনি কিন্তু একা নন, এই সমস্যার শিকার অনেকেই। সারাদিনের কাজের শেষে রাতের খাওয়া দাওয়া মিটলে টিভি চালিয়ে কাউচে বসেই শুরু হয় খুচখাচ খাওয়া। মাঝরাতে কেক, পেস্ট্রি, কুকিস, চকোলেট-এর দিকে হাত বাড়ালে ওজন বাড়া থেকে আটকাবে কে? প্রয়োজনে রাতের খাওয়া হয়ে গেলে ঘণ্টা দুয়েকের মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ুন, মাঝ রাতে খিদে পাক, সেরকম সুযোগ আসতেই দেবেন না।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন