baking-soda Benefits

ওয়েবডেস্ক: কেক বানাতে গেলে বেকিং সোডার প্রয়োজন হয়। জানেন কি বেকিং সোডার রয়েছে অনেক গুণ। অম্বল থেকে ক্যানসার, নানা রোগ নিরাময় এবং প্রতিরোধে ব্যবহার করতে পারেন বেকিং সোডা। আসুন জেনে নিই এর নানা গুণাগুণ।

শরীরের উপর কী ভাবে প্রভাব ফেলে বেকিং সোডা?

এই সোডা শরীরের মধ্যে সোডিয়াম আয়নে পরিণত হয়। এর রয়েছে শক্তিশালী কার্যকারিতা। তবে অতিরিক্ত মাত্রায় বেকিং সোডা খেলে পেশি, মস্তিষ্ক এবং হার্টের উপর প্রভাব পড়ে।

বেকিং সোডা জল খাওয়ার উপকারিতা

১. অ্যান্টাসিডের কাজ করে। এই সোডা জলে গুলে খেলে অম্বল নিরাময় হয়। বদহজমের কারণে শরীরের মধ্যে তৈরি হওয়া অতিরিক্ত হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিডকে ভেঙে ফেলে।

২.শরীরে ক্ষারের সমতা বজায় রাখে বেকিং সোডা। নিয়মিত বদহজমের কারণে শরীরে অ্যাসিড বেড়ে গেলে বাত, অস্টিওপোরোসিস এমনকি কিছু ধরনের ক্যানসারের সম্ভাবনা থাকে। পরিমিত পরিমাণে বেকিং সোডা জল খেলে অতিরিক্ত অ্যাসিড কমে এবং ক্ষারের পরিমাণ বজায় থাকে।

৩. কিডনিতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা রোধ করে বেকিং সোডা। অতিরিক্ত অ্যাসিড, লৌহের অভাব এবং জল কম খেলে কিডনিতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। বেকিং সোডা অ্যাসিডের পরিমাণ কমিয়ে শরীরের ক্ষারের সমতা বজায় রাখে।

inflammation

৪. অপরিচ্ছন্নতা, গর্ভাবস্থা এবং কিছু কিছু ওষুধ মূত্রাশয়ে সংক্রমণ তৈরি করতে পারে। এর ফলে ব্লাডারে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে পারে। বেকিং সোডা জীবণুনাশক হিসাবে কাজ করে। সোডা জল মূত্রে অ্যাসিডের পরিমাণ কমিয়ে দেয় এবং ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধে সাহায্য করে।

৫. গাঁটে প্রদাহ রোধ করে বেকিং সোডা। নিয়মিত পরিমিত মাত্রায় সোডা জল খেলে অ্যাসিডের পরিমাণ কমে এবং বাতের মতো অসুখকে দূরে রাখা যায়।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here