শীত মানেই দেদার পার্টি আর পিকনিক। সেইসঙ্গে জমিয়ে খাওয়াদাওয়া, ঠিকমতো ডায়েট না মানার ফলে শরীরের একেবারে বারোটাপাঁচ অব্স্থা হয়। শরীরে জমে অনেকটা মেদের বোঝা। তাই বেড়ে যাওয়া ওজনকে আয়ত্তে আনতে হলে একটু বেশি কসরত করতে হবে।

পেটের মেদ অতিরিক্ত হলেই সেই মেদ কমাতে নাজেহাল অব্স্থা হয়। তারপরে আবার যদি তলপেট বেড়ে যায় তাহলে তো বড় চিন্তার কারণ। তবে নিয়মিত সঠিক নিয়মে এক্সারসাইজ করতে পারলে তড়তড়িয়ে কমবে তলপেটের মেদ।

১।  বোটিং

প্রথমে মেঝেতে বসুন। পা দুটো সোজা করে ওপরের দিকে ওঠান। হাত দুটো সোজা করে হাটু বরাবর রাখুন। কোমর থেকে শরীরের ওপরের অংশ সোজা করে এমনভাবে রাখুন যেন আপনার পায়ের সঙ্গে সমকোণ তৈরি করে। এই অবস্থায় থেকে পাঁচ বার জোরে জোরে শ্বাস নিন এবং স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসুন। এই এক্সারসাইজটি দিনে ৫ বার করার চেষ্টা করুন।

২। লেগ রেইজ

পা দুটো মাটি থেকে ৯০ ডিগ্রি উপরে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে তুলুন। তারপর নিশ্বাস ছাড়তে ছাড়তে পা নিচে নামান। খেয়াল রাখবেন, পা যেন মাটি থেকে কিছুটা উপরে থাকে তাতে পেটে প্রেশার পড়ে। এইভাবে অন্তত ১৫-২০ বার করতে পারেন।

৩। সিটআপ

 উভয় পা ভাজ করে মেঝেতে শুয়ে পড়ুন। হাত সোজা রাখবেন। এরপরে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে পা ভাজ অবস্থায় সোজা উঠে বসুন। এরপরে আবার আগের অবস্থায় শুয়ে যান। এইভাবে ১২ টা সিটআপ অনায়েসে করতে পারেন।

৪। স্কোয়াট থ্রাস্ট

সোজা হয়ে দাড়িয়ে বসে পড়ুন। পায়ের পাতা সামনের দিকের অংশ এবং ২ টো হাত মেঝেতে রেখে বসুন। এরপর ২ টো হাতের উপর ভর দিয়ে কোমর থেকে নিচের অংশ পেছন দিকে ছড়িয়ে পায়ের আঙুলের উপর ভর রাখুন। এরপর আবার পা গুটিয়ে আগের মতো বসার স্টাইল করুন। তারপরে উঠে দাঁড়ান। এইভাবে পুরো এক্সারসাইজটি ৮ বার করে করুন।

৫। নি টু চেস্ট

শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে পা দুটো বুকের কাছে এনে পেটের সঙ্গে রাখুন। এইভাবে অন্তত এক সেকেন্ড চেপে রাখুন। তারপর ধীরে ধীরে পা সোজা করুন। পা দুটো মাটি থেকে কিছুটা উপরে রাখার চেষ্টা করতে হবে।

শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত খবর পড়তে এখানে ক্লিক করুন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন