Connect with us

শরীরস্বাস্থ্য

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে এই ১০টি কাজ করা উচিত নয়

ওয়েবডেস্ক: সারা বিশ্ব জুড়ে ত্রাসের সৃষ্টি করেছে করানোভাইরাস (Coronavirus)। স্বাভাবিক ভাবেই সংক্রমণ এড়াতে সম্ভাব্য প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। তাই বলে আতঙ্কিত হওয়ার মতো সময় এখনও আসেনি বলেনি জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক, আতঙ্কের পরিবেশে কোন কাজগুলি করার কোনো দরকারই নেই।

১. ইন্টারনেটের উপর নির্ভরশীলতা

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটার পর এটিকে মহামারীর আখ্যা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। তবে ইন্টারনেটে করোনাভাইরাসের নিত্যনতুন খবর ছড়িয়ে পড়ছে অহরহ। এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনে সংক্রমণ এড়ানোর পদক্ষেপ নিতে হবে। ইন্টারনেটের ভুয়ো খবরের উপর নির্ভর করে নয়।

২. নিজের মুখে হাত দেওয়া নয়

হু জানিয়েছে, নিজের মুখ, চোখ, নাকে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। হাত মারফত ভাইরাসের সংক্রমণ যাতে মুখ, চোখ, নাক দিয়ে শরীরের বাঁসা না বাঁধতে পারে, সে কারণেই এই সতর্কতা।

৩. অযথা মুখোশ মজুত

হু-এর নির্দেশ মেনে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকও জানিয়েছে, মুখোশ বা মাস্ক সবার জন্য নয়। যাঁরা বিদেশ সফর করেছেন, অথবা তাঁদের পরিবারের সদস্যরা মূলত এই মুখোশ ব্যবহার করবেন। অথবা যিনি কোভিড -১৯ (Covid-19) আক্রান্ত হয়েছেন তিনি, এবং তাঁর পরিমণ্ডলে থাকা ব্যক্তিরা মুখোশ ব্যবহার করবেন। ফলে অযথা গাদাখানেক মুখোশ মজুত করে কোনো সুরাহা হবে না। সাধারণ মানুষের এই আগ্রহটির জন্যই বাজারে মুখোশের আকাল।

৪. জমায়েত এড়ানো

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খুব প্রয়োজন না হলে যেখানে অধিক সংখ্যক মানুষের জমায়েত হয়, সেই স্থানগুলি এড়িয়ে চলা ভালো। এক জায়গায় বেশি মানুষের সমাগম মানেই, ভাইরাস ছড়ানোর বেশি সম্ভাবনা। গণপরিবহণ, মেট্রো অথবা রেলের মতো মাধ্যমগুলি ব্যবহার করলে অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। প্রয়োজন সেলফ-কোয়ারেন্টিনের।

৫. বিকল্প চিকিৎসার ঝুঁকি এড়ানো

করোনাভাইরাসের হাত থেকে নিষ্কৃতি পেতে অনেকেই বিকল্প চিকিৎসা ব্যবস্থার দ্বারস্থ হওয়ার কথা বলছেন। কিন্তু সেটা এখনও পরীক্ষিত নয়। ফলে ওই ঝুঁকি এড়াতে হবে। কোনো লক্ষণ দেখা দিলে অবশ্যই হাসপাতালে যেতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শই সে ক্ষেত্রে একমাত্র অবলম্বন।

৬. অ্যান্টিবায়োটিক অপ্রয়োজনীয়

সবারই বাড়িতে কম-বেশি অ্যান্টিবায়োটিক থাকেই। কিন্তু চিকিৎসকেরা বলছেন, করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিকের প্রয়োগ সঠিক পদক্ষেপ নয়। জ্বর, সর্দি-কাশির মতো উপসর্গগুলি দেখা দিয়ে তৎক্ষণাৎ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

৭. সাধারণ জ্বরের সঙ্গে গুলিয়ে না ফেলা

সাধারণ জ্বর এবং কোভিড-১৯-এর অনেক মিল রয়েছে। কিন্তু পৃথক করা সম্ভব শুধুমাত্র পরীক্ষার মাধ্যমেই। ফলে জ্বর, সর্দি-কাশি হলে ঘরে বসে সাধারণ জ্বরের মতো চিকিৎসা না করিয়ে হাসপাতালে যাওয়া বাঞ্ছনীয়।

৮. আতঙ্কের ফলে ভুল সিদ্ধান্ত

অনেক সময়ই আতঙ্কিত হয়ে আমরা ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি। কিন্তু সতর্কতার সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম। রোগটিকে মহামারী আখ্যা দেওয়ার পর আতঙ্ক আরও ছড়িয়েছে। কিন্তু ভাইরাসটির সংক্রমণ ভারতে যে পর্যায়ে অবস্থান করছে, তাতে অযথা আতঙ্কিত হয়ে ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার কোনো মানেই হয় না।

৯. সফর বাতিল

সরকারি ভাবে প্রত্যেকটি নাগরিককে বিদেশ সফর বাতিল করার কথা বিভিন্ন মাধ্যম মারফত জানানো হচ্ছে। যাঁরা বিমানে অন্য দেশে যাওয়ার পরিকল্পনা আগে থেকেই করেছিলেন, তাঁদের সেই সফর বাতিল করা প্রয়োজন।

১০. আরও বেশ কয়েকটি সতর্কতা

বিস্তারিত পড়ুন এখানে ক্লিক করে: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এই বস্তুগুলি এড়িয়ে চলাই ভালো

শরীরস্বাস্থ্য

কোভিড রোগীকে ‘ক্যাশলেস পরিষেবা’ না দিলে হাসপাতালের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে পারবে বিমা সংস্থা

এসএলএ-তে উল্লেখিত শর্তসাপেক্ষে নেটওয়ার্কের মধ্যে থাকা পরিষেবা সরবরাহকারীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে।

ওয়েবডেস্ক: স্বাস্থ্য বিমা (Health insurance) থাকা সত্ত্বেও কোভিড-১৯ রোগীকে নগদবিহীন পরিষেবা (Cashless facility) না দেওয়ার অভিযোগের বহর বাড়ছে বেশ কিছু হাসপাতালের বিরুদ্ধে। এমন পরিস্থতিতে বিমা সংস্থাগুলির পক্ষে বিশেষ নির্দেশ দিল নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্সুরেন্স রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি অব ইন্ডিয়া (IRDAI)।

আইআরডিএ ১৪ জুনের নির্দেশে জানিয়েছে, কোভিড-১৯ (Covid-19) রোগীকে নগদবিহীন পরিষেবা দিতে অস্বীকার করলে নিজের নেটওয়ার্কে থাকা হাসপাতালের বিরুদ্ধে ‘যথাযথ ব্যবস্থা’ নিতে পারবে বিমা সংস্থাগুলি।

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, “বিমা সংস্থার নেটওয়ার্কে থাকা পরিষেবা প্রদানকারী সরবরাহকারী হাসপাতাল নগদবিহীন সুবিধা দিতে অস্বীকার করলে তা এসএলএ (সার্ভিস লেভেল এগ্রিমেন্ট)-এর শর্তকে লঙ্ঘন করার শামিল। এ ক্ষেত্রে বিমা সংস্থা এসএলএ-তে উল্লেখিত শর্তসাপেক্ষে নেটওয়ার্কের মধ্যে থাকা পরিষেবা সরবরাহকারীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে”।

একই সঙ্গে আইআরডিএআই জানিয়েছে, পলিসিধারকদের অভিযোগের দ্রুত সমাধানের জন্য বিমা সংস্থাগুলি পৃথক অভিযোগ নিষ্পত্তি ব্যবস্থা (grievance redressal system) চালু রাখবে।

বলা হয়েছে, বিমা সংস্থাগুলি পলিসিধারকদের কাছ থেকে এ ধরনের অভিযোগ পাওয়ার পর দ্রুত পদক্ষেপ নেবে। তাঁদের অভিযোগগুলি যতটা দ্রুত সম্ভব সমাধানের জন্য ওই নিষ্পত্তি ব্যবস্থা তালিকাভুক্ত হাসপাতালের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।

একই সঙ্গে পলিসিধারকের অভিযোগ সংশ্লিষ্ট সরকারি বিভাগের কাছেও পাঠাতে হবে। কারণ, সেখান থেকেই হাসপাতালগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়। শুধু তাই নয়, হাসপাতালের বিরুদ্ধে কী ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, সে বিষয়টি বিমা সংস্থার ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করতে হবে।

এ ছাড়া স্বাস্থ্য পরিষেবা কর্মীদের জন্য চালু হওয়া করোনা কবচ (Corona Kavach) পলিসির জন্যও প্রিমিয়ামে ৫ শতাংশ ছাড় দেবে বিমা সংস্থাগুলি।

করোনা কবচ

করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্তের চিকিৎসার খরচে সুবিধা দিতে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল আইআরডিএ। গত সপ্তাহে ২৯টি সাধারণ এবং স্বাস্থ্য বিমা সংস্থা সেই উদ্যোগে শামিল হয়ে নিয়ে এসেছে করোনা কবচ।

এই পলিসিতে সাধারণ স্বাস্থ্য বিমার পলিসির থেকে প্রিমিয়ামের পরিমাণ কম। নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশ মতোই পরিষেবা পাওয়া যাবে। সর্বনিম্ন সাড়ে তিন মাস থেকে সর্বোচ্চ সাড়ে ন’মাসের তিনটি মেয়াদে পলিসিটি করা যাবে।

এমনিতে সাধারণ স্বাস্থ্য বিমার ক্ষেত্রে যেখানে পলিসি কেনার ৩০ দিন পর চিকিৎসা পরিষেবা পাওয়া যায়, এ ক্ষেত্রে তা পাওয়া যাবে ১৫ দিন পর থেকেই। পলিসিধারকের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৬৫ বছর। বিমার অঙ্ক ৫০ হাজার থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

আরও পড়তে পারেন: কোভিড-১৯ রোগীর নাম প্রকাশ করলে কার কী লাভ?

Continue Reading

শরীরস্বাস্থ্য

থাইয়ের মেদ নিয়ে বিরক্ত? কমিয়ে ফেলুন ৩টি ব্যায়ামে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : মোটা থাইয়ের সমস্যা কমবেশি অনেকেরই আছে। পুরুষ বা মহিলা সকলেই এই যন্ত্রণার জন্য গরমকালে সমান সমস্যায় পড়েন। যেমন পায়ে পায়ে ঘষা লেগে থাই ছোড়ে যায়। তেমনই ঘামে ভিজেও নানান সমস্যা হয়। তা ছাড়া চলাফেরার সমস্যা তো আছেই। আর মহিলাদের ক্ষেত্রে বেশ কিছু পোশাক পরতে সমস্যা হয়। ইচ্ছে হলেও শারীরিক গঠনের বেঢপ ভাবের জন্য তা বাতিল করতে হয়। তাই তো?

তা হলে এর থেকে উপায় কী? অনেকেই জানেন ব্যায়াম মুক্তি দিতে পারে। কিন্তু ঠিক কোনটি উপযুক্ত ব্যায়াম ও ব্যস্ততার মাঝে কখনই বা করবেন এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর খুঁজে না পেয়ে এই সমস্যাকে মেনে নিচ্ছেন। না, আর নয়। এ বার এই সমস্যার সমাধান করতে ঘরেই প্রতি দিন ১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় ব্যয় করুন। ব্যস। করুন এই ব্যায়ামগুলি।

১। হিপ ব্রিজ

  • চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন।
  • দুই পা ভাঁজ করুন, দুই পায়ের পাতা যেন মাটির ওপর সমান ভাবে থাকে।
  • এ বার শরীরটা মাটি থেকে তুলে ধরুন। যেন কাঁধ থেকে হাঁটু পর্যন্ত অংশ একটা সরল রেখায় থাকে।
  • এই অবস্থায় ১ থেকে ২ সেকেন্ড থাকতে হবে। তার পর শরীর নামিয়ে আনতে হবে।
  • এই পদ্ধতি করার সময় দুই হাত দুই দিকের মাটিতে সমান ভাবে পাতা থাকবে।
  • এই ভাবে মোট এক মিনিট করতে হবে।

২। লঙ্গেস

  • প্রথমে সোজা হয়ে দাঁড়ান।
  • ডান দিকের পা সামনে দিকে লম্বা করে হাঁটুর ওপর বসুন। থাই যেন মাটির সমান্তরালে থাকে।
  • এর পর আবার সোজা হয়ে দাঁড়ান।
  • এর পর বাঁ পায়ে ঠিক একই ভাবে ব্যায়ামটি করুন।  
  • এই ভাবে ১ মিনিট করুন।

৩। সিঙ্গেল লেগ সার্কেল

  • পা সোজা করে মাটিয়ে শুয়ে পড়ুন।
  • দুই হাত দু’ দিকে শরীরের সমান্তরালে রাখুন।
  • এ বার ডান পাটিকে সোজা করে ওপরের দিকে তুলুন। যেন ছাদ বরাবর পায়ের আঙুল সোজা লক্ষ করে।
  • এ বার পা একবার ঘড়ির কাঁটার দিকে এক বার বিপরীত দিকে ঘোরান।
  • এর পর পা আবার নামিয়ে এনে মাটির ওপর সোজা করে রাখুন।
  • একই পদ্ধতি বাঁ পায়েও করুন।
  • ধীরে ধীরে গোলের আকার বড়ো করতে হবে।

এই ব্যায়ামগুলি করার সময় শ্বাসপ্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকবে। খেয়াল রাখবেন পেট যেন খালি থাকে। ব্যায়ামের শেষে শবাসনে ৫ মিনিট বিশ্রাম নিয়ে উঠে পড়ুন।

দেখে নিন – কোমরের পেছনের মেদ কমান এই ব্যায়ামগুলির সাহায্যে

Continue Reading

কেনাকাটা

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজারহ্যান্ডওয়াশ। এই লড়াইয়ের শুরুতে  একটা লম্বা সময় বাজারে এই তিনটে জিনিসই অমিল ছিল। এখন কমবেশি এগুলি পাওয়া যাচ্ছে। অ্যামাজনে রয়েছে হ্যান্ডওয়াশের ওপর বিশেষ ছাড়

প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তাই দেওয়া হল

১। লাইফবয় টোটাল ১০ অ্যাকটিভ ন্যাচরাল জার্ম প্রোটেকশন হ্যান্ডওয়াশ ৫৮০ এমএল

দাম ২০% ছাড়ে ১৫৯ টাকা

২। ডেটল অরিজিন্যাল লিকিউড হ্যান্ডওয়াশ ২০০ এমএল

দাম ৭৯ টাকা

৩। স্যাভলন ময়েশ্চার শিল্ড জার্ম প্রোটেকশন লিকুইড হ্যান্ডওয়াশ রিফিল পাউচ ১৫০০ এমএল

দাম ৩৮% ছাড় দিয়ে ১৯৯ টাকা

৪। সন্তুর ক্ল্যাসিক জেন্টল হ্যান্ডওয়াশ ইউথ ন্যাচরাল গুডনেস অব স্যান্ডেলউড অ্যান্ড তুলসী ৭৫০ এমএল (২টি)

দাম ৪% ছাড়ে ১৮৯ টাকা

৫। গোদরেজ প্রোটেক্ট মাস্টারসেফ’স জার্ম প্রোটেকশন লিকুইড হ্যান্ডওয়াশ ১৫০০ এমএল

দাম ১০% ছাড়ে ১৯৮ টাকা

৬। হিমালয় পিওর হ্যান্ডস ডিপ ক্ল্যান্সিং তুলসী অ্যান্ড লেমন রিফিল প্যাক ৭৫০ এমএল

দাম ১৭৫ টাকা

৭। পামোলিভ ন্যাচরাল সি মিনারেলস লিকুইড হ্যান্ডওয়াশ রিফিল প্যাক ১৮৫ এমএল

দাম ৪৯ টাকা

৮। ফেম সফট হ্যান্ডস হ্যান্ডওয়াশ সেনসেটিভ ভ্যানিলা গ্লিসারিন ১৫০০ এমএল

দাম ২৫% ছেড়ে ১৬৫ টাকা

৯। সোলিমো অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল হ্যান্ডওয়াশ লিকুইড রিফিল রোজ ৭৫০ এমএল

 দাম ৩০% ছাড়ে ১০৫ টাকা

 ১০। ফিয়ামা ফ্রেশ হ্যান্ডওয়াশ ১০০০ এমএল

দাম ১৯% ছাড়ে ২৪২ টাকা

দেখুন – হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

Continue Reading
Advertisement
দেশ18 mins ago

কেরল সোনা পাচারকাণ্ড: সিনিয়র আইএএস অফিসারকে বরখাস্ত করলেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন

দেশ1 hour ago

জেলবন্দি কবি-সমাজকর্মী ভারাভারা রাও করোনা পজিটিভ

রাজ্য1 hour ago

রেকর্ড সংখ্যক নমুনা পরীক্ষার দিন রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যাতেও রেকর্ড, কমল মৃত্যুহার

বিদেশ3 hours ago

আবুধাবিতে শুরু চিনের করোনা ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ

দেশ4 hours ago

নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশে ফের আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা চালু করছে কেন্দ্র

বিনোদন4 hours ago

অবশেষে নতুন এপিসোড নিয়ে সাব টিভির পর্দায় ফিরছে ‘তারক মেহকা উলটা চশমা’ও, জেনে নিন কবে থেকে

দেশ4 hours ago

অসমে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ, বিপন্ন কাজিরাঙার বন্যপ্রাণও

রাজ্য5 hours ago

আরও চার হাজার বেড বাড়ছে রাজ্যে, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা1 day ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা7 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে