পালস অক্সিমিটার-সহ ৫টি চিকিৎসা সরঞ্জামের দাম কমাল কেন্দ্র

0
রক্তচাপ মাপার মেশিন ও পালস অক্সিমিটার। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ট্রেড মার্জিন সংশোধন করতেই চিকিৎসা সরঞ্জাম-সহ ৬২০টি পণ্যের দাম কমল। কেন্দ্রীয় সরকার এই পণ্যগুলির ‘প্রাইস টু ডিস্ট্রিবিউটর’ (PTD) ৭০ শতাংশ পর্যন্ত সীমাবদ্ধ করায় বেশ কিছুর দাম অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে। বিশেষ করে বিদেশ থেকে আমদানিকৃত পালস অক্সিমিটারের (pulse oximeter) দাম তুলনামূলক ভাবে অনেকটাই কমেছে।

পালস অক্সিমিটার-সহ উল্লেখযোগ্য ভাবে দাম কমেছে রক্তচাপ মাপার যন্ত্র (Blood Pressure Monitoring Machine), নেবুলাইজার (Nebulizer), ডিজিটাল থার্মোমিটার (Digital Thermometer) এবং গ্লুকো মিটারের (Glucometer)।

Shyamsundar

কেন্দ্রের রাসায়নিক ও সার মন্ত্রকের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে জাতীয় ফার্মাসিউটিক্যাল প্রাইসিং কর্তৃপক্ষ (NPPA) এই পাঁচটি চিকিৎসা সরজ্ঞামের ট্রেড মার্জিন নতুন করে বেঁধে দিয়েছে। সব মিলিয়ে ৬৮৪টি পণ্য/ব্র্যান্ডের দাম সংশোধন হয়েছে। নতুন এই সংশোধিত সর্বোচ্চ বিক্রিত মূল্য কার্যকর করার কথা বলা হয়েছে ২০ জুলাই থেকে।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট রাজ্য ড্রাগ কন্ট্রোলারদের উদ্দেশে কঠোর নজরদারি এবং সংশোধিত দাম কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রক।

নির্দেশ সংক্রান্ত যাবতীয় বিবরণ পাওয়া যাচ্ছে এনপিপিএ-র অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.nppa.gov.in-এ। পাশাপাশি প্রস্তুতকারী অথবা আমদানিকারকদেরও নিজেদের স্টক সম্পর্কিত তথ্য জানাতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় পালস অক্সিমটারের চাহিদা তুঙ্গে পৌঁছেছিল। ওই সময় দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা চার লক্ষ ছাড়িয়ে যায়। শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা নেমে যাওয়ায় শ্বাসকষ্ট ভুগছিলেন অসংখ্য কোভিডরোগী। চিকিৎসকদের পরামর্শ মতো অক্সিজেনের মাত্রা নির্ণয়ে পালস অক্সিমিটারের চাহিদা যে কারণে অস্বাভাবিক হারে ভাবে বেড়ে যায়। এক দিকে চাহিদা বৃদ্ধি, অন্য দিকে পর্যাপ্ত জোগানের অভাবে বাড়তে থাকে দাম।

অনলাইনে অক্সিমিটার কিনতে হলে এখানে ক্লিক করুন।

আরও পড়তে পারেন: প্রকাশিত হল আইসিএসই এবং আইএসসি পরীক্ষার ফলাফল, দেখে নিন এখানে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন