winter-skin-care

ওয়েবডেস্ক : সারা বছরই ঋতু অনুযায়ী ত্বকের যত্ন নিতে হয়। সেই মতোই শীতকালেও ত্বকের বিশেষ যত্নের প্রয়োজন। শীতে ত্বক খুব শুষ্ক হয়ে যায়। চামড়ায় টান ধরে, হাত, পা, ঠোঁট ফাটে আর্দ্রতার অভাবে। তাই এই সময় ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনার জন্য দরকার পড়ে বার বার ময়েশ্চাররাইজ করা। তবে শুধু ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার লাগালেই হবে না। ঠিক পদ্ধতি মেনে তার ব্যবহার করা দরকার। তা ছাড়া আরও বেশ কিছু বিষয় আছে যেগুলো মেনে চললে ত্বক সুস্থ থাকে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়। রইল তেমনই কিছু ঘরোয়া টিপস।

স্ক্রাব :

এই সব কিছুর মধ্যে একটা অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, ত্বক পরিষ্কার রাখা তার জন্য প্রয়োজন স্ক্রাবার ব্যবহার করা। কারণ শীতকালে পরিবেশে প্রচুর ধুলো ওড়ে। তাই মুখ বা হাত পায়ের ত্বক পরিষ্কার না করে ক্রিম লাগানো উচিত নয়। তাই তার জন্য দরকার ভালো করে ত্বকের পরিচ্ছন্নতা। এর জন্য বাড়িতেই একটা প্যাক তৈরি করে নেওয়া যেতে পারে। স্ক্রাবারের কয়েকটা প্যাক —

এক। একটা কলা চটকে নিয়ে তার সঙ্গে দুই টেবিল চামচ ওটস আর মধু মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করে নিতে হবে। এ বার মুখে ক্লকওয়াইজ আর অ্যান্টিক্লকওয়াইজ করে সারকুলার ওয়েতে ঘুরিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলতে হবে।

দুই। দুই টেবিল চামচ চিনিতে তিন চার ফোঁটা অলিভ ওয়েল মিশিয়ে স্ক্রাবারের প্যাক তৈরি করে নেওয়া যায়।

তিন। দুই টেবিল চামচ কোকো পাউডারের সঙ্গে দু’ টেবিল চামচ চিনি মিশিয়ে তাতে অল্প পাতিলেবুর রস আর আমন্ড ওয়েল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিতে হবে। এর পর প্যাকটা মুখে লাগিয়ে রেখে কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেললেই, ঘরে বসে চকচকে ত্বক।

মেকআপ :

যাঁদের দিনের বেশির ভাগ সময় মুখে মেকআপ করে থাকতে হয়, তাঁদের শীতকালের জন্য মেকআপ কিটের সামান্য পরিবর্তন করা যেতে পারে। এতে ত্বকের জলের ঘাটতি কিছুটা পূরণ হয়। এই সময় শুকনো ফাউন্ডেশনের পরিবর্তে আর আর্দ্রতাযুক্ত অর্থাৎ জলীয় ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে ভালো। সঙ্গে সাদা রঙের অর্থাৎ কোনো রঙ ছাড়া ন্যাচারাল কালারের লিপবাম আর ক্রিমবেস ব্লাশ-অন ব্যবহার করা যেতে পারে।

খাবার :

শরীরের আর্দ্রতার পরিমাণ ঠিক রাখতে খাবারে তেল আর জলের পরিমাণ বাড়ানো যেতেই পারে। তার জন্য নিয়মিত খাবারে নারকেল তেল, অলিভ ওয়েল ব্যবহার করলে খুবই উপকার হয়। সঙ্গে খেতে হবে প্রচুর পরিমাণ জলও।

স্নানের পর শরীরের যত্ন :

শীতকালে স্নান করতে হবে হালকা গরম জলে। তার পর অবশ্যই সারা দেহে নারকেল তেল, অলিভ ওয়েল দিয়ে মাসাজ করলে শরীরে আর্দ্রতা বজায় থাকে। তা ছাড়া সামান্য দুধও সারা শরীরে মেখে নেওয়া যেতে পারে।

নিয়ম করে এগুলো অ্যাপ্লাই করে দেখুন উপকার হাতে নাতে পাবেনই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here