sex health

ওয়েবডেস্ক: ব্যঙ্গ করে বলা হয়ে থাকে পেনশনের শুরু তো যৌন সক্রিয়তার শেষ। অর্থাৎ ৬০ পার হলেই পুরুষের যৌন চাহিদায় যবনিকা পড়ে যায়। কিন্তু আমেরিকার মিচিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সমীক্ষা বলছে, আদতে তা সঠিক নয়। ৬৫ বছর পার হওয়ার পর টানা ১৫ বছর, অর্থাৎ ৮০ বছর বয়স পর্যন্ত যথেষ্ট ভাবে সক্রিয় থাকছে পুরুষের যৌন সক্রিয়তা।

সমীক্ষক দল বেছে নিয়েছিলেন এক হাজার প্রবীণ পুরুষকে। যাঁদের বয়স ৬৫-৮০ বছর। বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগ ‘ন্যাশনাল পোল অন হেলদি এজিং’ নামের ওই সমীক্ষাটি করে অনলাইনে। সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রবীণ তো বটেই, তাঁদের মধ্যে যাঁদের সঙ্গিনী রয়েছেন, তাঁদের মতামতও গ্রহণ করে। সেই সমীক্ষায় স্পষ্ট হয়, সমীক্ষায় অংশ নেওয়া এক হাজার প্রবীণের মধ্যে ৪০ শতাংশ স্বীকার করেছেন, তাঁরা যৌনকর্মে সক্ষম।

আরও পড়ুন: বয়স বাড়লে বাড়ান জল খাওয়ার পরিমাণ

বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে চিকিৎসক এরিকা সোলওয়ে জানান, “আমাদের স্বাভাবিক ধারণা হল বয়সের সঙ্গে সঙ্গেই যৌন ক্ষমতা কমতে থাকে। এবং তা একটি সময় গিয়ে পুরোপুরি বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে। আসলে শারীরিক সক্ষমতা বা যৌন সক্রিয়তা সব সময় ভিন্ন অভিমুখে চলতে পারে না। অর্থাৎ, শারীরিক সক্ষমতা যাঁদের থাকছে, যৌন সক্রিয়তাও তাঁদের মধ্যে থাকা কোনো অস্বাভাবিকত্ব নয়”।

তবে ওই সমীক্ষায় উঠে এসেছে আরও একটি সাধারণ তথ্য। ষাটোর্ধ্ব প্রবীণরা যতটা আগ্রহ দেখিয়েছেন, প্রবীণারা ঠিক ততটা নন। ৬৫-৮০ বছরের পুরুষদের মধ্যে ৮৪ শতাংশ মনে করেন, যৌন সুখ অনুভবে বয়স কোনো বাধা নয়। সেই জায়গায় ৬৯ শতাংশ মহিলা এই একই ধারণা পোষণ করে থাকেন বলে সমীক্ষাটিতে প্রকাশ পেয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here