এক চুটকি জাফরান খান, দেখুন কী উপকার পান

    আরও পড়ুন

    খবরঅনলাইন ডেস্ক: জাফরান বা কেশর হল বিশ্বের সব চেয়ে দামি মশলা। মশলা বলে এর কাজ কেবলমাত্র রান্নাঘরেই সীমাবদ্ধ নয়, এর গুণাবলি অনেক। জাফরান হল ক্রোকাস স্যাটিভাস (crocus sativus) ফুলের (যাকে অনেক সময় বলা হয় স্যাফরন ক্রোকাস, saffron crocus) শুকনো শিস বা গর্ভমুণ্ড। এটি একটি সুতোর মতো কাঠামোর হয় যা ফুলের কেন্দ্রস্থলে পরাগ ধরে থাকে। জাফরান গাছটি চারটি ফুল বহন করে, যা থেকে স্টাইলিশ এবং ক্রিমসন রঙের শিস সংগ্রহ করা ও শুকোনো হয়। একটি ফুল থেকে জাফরানের তিনটি সুতো পাওয়া যায় এবং এক পাউন্ড জাফরান তৈরি করতে প্রায় ১৪০০ জাফরান সুতো লাগে। 

    মূলত ইরান, ভারত এবং গ্রিসের কিছু জায়গায় এর উৎপাদন হয়। অনেকে মনে করেন জাফরানের আদিভূমি হল ইরান। আবার অনেক ঐতিহাসিকদের মতে, স্পেন হল জাফরানের আদিভূমি। জাফরান উৎপাদনে ভারত সারা বিশ্বে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। আগে কেবলমাত্র জম্মুওকাশ্মীরে চাষ হত, এখন হিমাচল প্রদেশেও চাষ করা হয়।

    Loading videos...

    জনপ্রিয় এই প্রাকৃতিক উপাদানটির উপকারিতা অনেক। সামান্য সর্দি-কাশি থেকে পেটের ব্যথা, জরায়ু রক্তপাত, অনিদ্রা, পেটফাঁপা, এমনকি হৃদরোগের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এটি দুর্দান্ত একটি প্রাকৃতিক ঔষধি। স্বাস্থ্যরক্ষায় বড়ো ভূমিকা পালন করে এক চুটকি জাফরান।

    এ ভাবেই ফুল থেকে বের করা হয় জাফরান।

    জাফরানের স্বাস্থ্যগুণ

    - Advertisement -

    সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে

    জাফরানে রয়েছে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি, অ্যান্টি-ফাঙ্গাল, ম্যাংগানিজ, যা ব্লাডসুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে। এর মধ্যে উপস্থিত রয়েছে ভিটামিন সি, যা শরীরকে ইনফেকশন বা সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে।

    ব্যথায় কাজ দেয়

    জাফরানের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান বাতের ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা, মাংসপেশির ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে। শারীরিক দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে এটি দারুণ কাজ দেয়।

    হরমোন উদ্দীপিত হয়

    শারীরিক দিক থেকে দুর্বল মেয়েদের জন্য জাফরান খুবই উপকারী। প্রত্যেক দিন এক চিমটে জাফরান দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে হরমোন উদ্দীপিত হয়।

    ভালো ঘুমের জন্য

    প্রত্যেক দিন ঘুমোতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস দুধে এক চিমটে জাফরান মিশিয়ে খেলে আপনার ভাইটালিটি বাড়বে। অনেকেই এই সমস্যায় ভোগেন। সে ক্ষেত্রে জাফরান ব্যবহার করতে পারেন। রাতে ঘুমোতে  যাওয়ার আগে এক গ্লাস গরম দুধে সামান্য জাফরান মিশিয়ে খান, দেখবেন ঘুম ভালো হবে।

    গ্যাসের সমস্যায়

    এর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ক্যানসার, অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং অ্যান্টি-হাইপারলিপিডেমিক উপাদানগুলি গ্যাসের সমস্যা দূর করে। অ্যাসিডিটি থেকে রেহাই পাবেন।

    ক্যানসার প্রতিরোধে

    ক্যানসারের মতো রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এর মধ্যে রয়েছে এক ধরনের ক্যারোটিন থাকে যাকে ক্রোসিন বলা হয়। এটি আমাদের শরীরে বিভিন্ন ধরনের ক্যানসার কোষ, যেমন লিউকোমিয়া, ওভারিয়ান কারসিনোমা, কোলন অ্যাডনোকারসিনোমা ইত্যাদি ধ্বংস করতে সাহায্য করে।

    গর্ভাবস্থায় উপকারী জাফরান।

    গর্ভাবস্থায় উপকারী

    গর্ভধারণের পর পঞ্চম মাস শুরু হলে তবেই শুধুমাত্র জাফরান গ্রহণ করুন। কারণ এই সময়ে গর্ভাবস্থা স্থিতিশীল থাকে এবং অকাল প্রসবের কারণে শিশুর বিপদে পড়ার ঝুঁকি হ্রাস পায়। গর্ভাবস্থায় রক্তস্বল্পতা দেখা দেওয়া একটি কম সমস্যা। নিয়মিত খাবার তালিকায় জাফরান রাখলে এটি আপনার শরীরে আয়রন ও হিমোগ্লোবিনের স্তর বজায় রাখতে সাহায্য করে।

    স্মৃতিশক্তি বাড়ায়

    সম্প্রতি গবেষণায় জানা গিয়েছে যে, জাফরান স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। জাপানে পারকিনসন এবং স্মৃতিশক্তি হারিয়ে যাওয়ার বিভিন্ন অসুখে জাফরান ব্যবহার করা হয়।

    আরও পড়ুন: খালি পেটে খান মৌরি-ভেজানো জল, এক সপ্তাহেই লক্ষ করুন পরিবর্তন

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর