এক টুকরো মেথি বীজে যত্ন নিন স্বাস্থ্যের

0

শরীর নিয়ে নাজেহাল! স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখার সময় নেই। যত দিন যাচ্ছে শরীর আরও বিগড়ে যাচ্ছে।

তাহলে আপনার শরীরের যত্ন নেওয়ার ব্যাপারে আপনাকে তো এবার ভাবতেই হবে।

অনেক সময়ে হয়ত শরীরের ওপর থেকে যত্ন আপনি নিচ্ছেন যোগাসন, এক্সসারসাইজ, সাইকেলিং, সুইমিং এর মাধ্যমে। তবে সবসময় যে এই টোটকাগুলি কাজে দেবে। এমনটা নাও হতে পারে।

amazon

অনেক সময়ে শরীরকে ভালো রাখার অনেক গুণাগুণ লুকিয়ে থাকে খাবারের মধ্যে।  

১। দেহের ওজন কমাতে

প্রতিদিন সকালে মেথি ভেজানো জল খেলে শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য করে।

গবেষকদের মতানুযায়ী, কেউ যদি প্রতিদিন সকালে খালি পেটে মেথি বীজ জলে ভিজিয়ে খাওয়ার অভ্যাস করেন তাহলে তার শরীরে ধীরে ধীরে ফাইবারের মাত্রা বাড়তে থাকে।

এতে একদিকে যেমন তার খিদে কমে যাবে অন্যদিকে অতিরিক্ত খাবার  খাওয়াতে লাগাম  টানতে পারবেন। এতে শরীরের ওজন আস্তে আস্তে কমতে শুরু করে।

২। হজম শক্তি বৃদ্ধিতে

দেহে হজম শক্তি বৃদ্ধি করতে মেথি বীজের দারুণ ভূমিকা রয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, মেথিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা হজম শক্তি বাড়াতে অনেক সহায়তা করে থাকে। 

এছাড়া কনস্টিপেশনের সমস্যা দূর করতে নিয়মিত সকালে খালি পেটে মেথি ভেজানো জল খাওয়া যেতে পারে। 

আরও পড়তে পারেন : বয়স ৩০ পেরিয়েছে? ৫ টি টিপস মেনে বয়সকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিন

৩। রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতেবেশ কিছু গবেষকরা জনিয়েছেন, যাদের কম বয়সেই  ব্লাড সুগার একেবারে উর্ধ্বে থাকে তারা নিয়মিত মেথি ভেজানো জল খেতে পারেন।

এটি তাদের শরীরে গ্লেকটোমেনানের পরিমাণ বাড়ানো ছাড়াও দেহে শর্করার শোষণের পরিমাণ কমিয়ে আনে। এতে রক্তে সুগার লেভেল বাড়ার আশঙ্কা  অনেক কমে যায়। এছাড়া মেথিতে থাকা অ্যামাইনো অ্যাসিড ইনসুলিনের কর্মক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয় ফলে ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় না।

৪। কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে

গবেষণার তথ্য থেকে জানা গেছে,  গত কয়েক দশকে দেশের যুব সমাজের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা উচ্চ মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এমনটা হওয়ার পিছনে হাই কোলেস্টেরলের এবং উচ্চ রক্তচাপকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই ২০-৫০ বছর বয়সিদের নিয়মিত মেথি জল পান করা উচিত।

কারণ মেথির মধ্যে থাকা স্টেরিওডাল সেপোনিনস নামক একটি উপাদান কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। ফলে হার্টের আর্টারি আটকে গিয়ে হঠাৎ করে স্ট্রোক বা হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা অনেকটাই কম হয়।

৫। ক্যান্সারকে দূরে রাখতে

বিশেষজ্ঞদের তথ্যানুযায়ী, রক্তে যদি টক্সিক উপাদানের মাত্রা বাড়তে থাকে তাহলে ক্যান্সার সেলের জন্ম নেওয়ার আশঙ্কাও  বেড়ে যায়। এই ক্যান্সারকে দূরে রাখতে মেথি বীজের রয়েছে গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা। এতে থাকা ক্যান্সার প্রতিরোধী উপাদান রক্তে ভেসে বেরানো টক্সিক উপাদানগুলোকে শরীর থেকে বের করে দিতে সাহায্য করে।

তাই শরীরে ক্যান্সার সেলের জন্ম নেওয়া প্রতিরোধ করতে নিয়মিত মেথিশাক কিংবা মেথি বীজ খাওয়া উচিত।

আরও পড়তে পারেন :

শরীরকে চাঙ্গা রাখতে চান?এই ৫ টি ভেষজ টিপস মেনে দেখুন

উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন? কিংবা হৃদযন্ত্রের সমস্যায়? আপনার ডায়েটে ব্ল্যাক টি রাখুন

শরীরস্বাস্থ্য সংক্রান্ত সব খবর পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন