ডাঃ অনির্বাণ সেনগুপ্ত, দন্ত বিশেষজ্ঞ

অনেক ক্ষেত্রেই দাঁতে ব্যথা, মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসকের কাছে যেতে অনীহা, দাঁতের সমস্যাকে বাড়িয়ে তোলে অনেকাংশেই। কোনও কারণে দাঁতের স্তর ক্ষয় হলে কিংবা দাঁতের মজ্জায় সংক্রমণ হলে রুট ক্যানাল চিকিৎসার দরকার হয়ে পড়ে। আপাত ভাবে জেনে নেওয়া যাক কখন রুট ক্যানালের প্রয়োজন হয়:

রুট ক্যানাল চিকিৎসা কখন প্রয়োজন

  • দাঁতের মজ্জায় সংক্রমণের ফলে দাঁতে ব্যথা হলে
  • দাঁতের রঙ পরিবর্তন হলে
  • দাঁতে বড় গর্ত দেখা গেলে
  • দাঁত ভঙ্গুর হয়ে পড়লে

যদি প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসা না করানো হয় তাহলে দাঁতের গোঁড়ায় ও মাড়িতে পুঁজ জমে যা পরবর্তীতে দাঁতটিকে স্থায়ী ভাবে নষ্ট করে ভেঙ্গে ফেলতে পারে এমনকি ওখান থেকে আপনার মুখে ক্যান্সার হয়ে তা ছড়িয়ে পড়ে মৃত্যুও হতে পারে।

সব ক্ষেত্রে রুট ক্যানাল প্রয়োজন হয় না। রুট ক্যানাল করার প্রয়োজন কিনা সেটা সম্পূর্ণ নির্ভর করবে আপনার দাঁতের অবস্থার ওপর। অনেক সময় দেখা যায় ক্যারিজ শুধু মাত্র আপনার দাঁতের এনামেল বা ডেন্টিনের সামান্য অংশে ছড়িয়েছে সেক্ষেত্রে ওই অংশটুকু পরিষ্কার করে শুধু ফিলিং করে দিলেই চলে। কিন্তু যদি দেখা যায় ইনফেকশন আপনার দন্তমজ্জা পর্যন্ত ছড়িয়েছে সেক্ষেত্রে রুট ক্যানাল চিকিৎসার প্রয়োজন হয়।
রুট ক্যানাল চিকিৎসা কী
মুলত এই চিকিৎসায় দন্তমজ্জা ফেলে দিয়ে দাঁতের মধ্যকার সমস্ত ইনফেকশন উপযুক্ত পদ্ধতিতে পরিষ্কার করে বিশেষ ধরনের ওষুধ দিয়ে ড্রেসিং দিয়ে দাঁতটিকে পুরাপুরি সিল করে বিশেষ ধরনের ফিলিং ম্যাটেরিয়াল দিয়ে ফিলিং করে দেওয়া হয়।

রুট ক্যানাল পরবর্তী চিকিৎসা
পার্মানেন্ট ফিলিং মানেই চিকিৎসা সম্পূর্ণ নয়। কারণ রুট ক্যানেল ট্রিটমেন্টে আমরা দাঁতের ভিতরের সম্পূর্ণ দন্ত মজ্জাটুকু বের করে ফেলে দাঁতটিকে মৃত করে দেই। ফলে দাঁতটি খুব সহজেই ভেঙে যেতে পারে। তাই আমরা দাঁতের উপর এক ধরনের কৃত্তিম মুকুট পরাই যেটাকে ক্রাউন বা ক্যাপ বলে। যা আপনার মৃত দাঁতের স্থায়িত্ব বহু বছর বাড়িয়ে দেয়।

চিকিৎসা পরবর্তী দাঁতের যত্ন
কোন বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয় না। নিয়মিত দুবার ঠিক নিয়মে দাঁত ব্রাশ করুন, মাড়ির যত্ন নিন আর নিয়মিত ডেন্টাল চেকআপ করান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here