হাঁপানি থাকলে কী খাবেন আর কী খাবেন না, জেনে নিন

0

ওয়েবডেস্ক: জীবন যত গতিময় হচ্ছে মানুষের শরীরে ক্রমাগত ব্যধির প্রকোপ বাড়ছে। তার মধ্যে সবথেকে এগিয়ে যে সব রোগ, তার একটি হল হাঁপানি। বহু মানুষের নিত্যদিনের সঙ্গী এই রোগ। তবে ব্যধি যখন রয়েছে, তার প্রতিরোধও আছে। জেনে নিন কী করা উচিত এবং কী নয় এই ব্যধিকে প্রতিরোধ করবার জন্য।

good food

কী কী খাবার প্রয়োজন:

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, সাধারণ ভিটামিন এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খুবই জরুরি। জাঙ্ক ফুড জাতীয় খাবার খেলে ফুসফুসে হতে পারে জ্বালা, প্রদাহ। যা ক্ষতি করতে পারে ব্রনকিয়াল টিউবকে। ডেকে আনতে পারে অ্যাসথেমিক অ্যাটাকের মতো বিপদকে। যদি সবজি এবং ফল খাওয়া যেতে পারে, তাহলে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আনা যেতে পারে হাঁপানি।

আমেরিকান থোরাসিক সোস্যাইটির এক গবেষণায় জানা যাচ্ছে, হাঁপানির বাড়ার আরেক কারণ কিন্তু ওবেসিটি বা স্থূলতা। ফলে ওবেসিটি আক্রান্ত মানুষদের কাছে এটি চিন্তার কারণ। এর ফলে শরীরে প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় এবং রোগীকে ঠিক মতন চিকিৎসা করা যায় না। তাই সাধারণ খাবার খুবই জরুরি। যেখানে সমপরিমাণে ফ্যাট, প্রোটিন, ইত্যাদি নির্দিষ্ট পরিমাণে উপস্থিত থাকবে।

শুধু তাই নয়, ফলের মধ্যে আপেল খুবই জরুরি হাঁপানি থেকে ফুসফুসকে সুস্থ রাখবার জন্য। ম্যাগনেসিয়ামে ভরপুর পালং, কুমড়ো এবং ডার্ক চকোলেটও খুবই উপকারী।

 

bad food

 

 

কী কী খাবার খাবেন না

খুব ভারী খাবার যা থেকে গ্যাসের সমস্যা হতে পারে, এড়িয়ে চলতে হবে। এই ধরনের খাবার খেলে যাদের অ্যাসিডিটি রয়েছে তাঁদের জন্য ডেকে আনতে পারে বুক জ্বালা এবং বুকে ব্যাথার মতো বড়ো বিপদ। বাঁধাকপি, রসুন, পেঁয়াজ, ঠান্ডা পানীয়, মদ  এড়িয়ে চলাই হবে সবচেয়ে ভালো সঙ্গে সালফাইট যুক্ত খাবার যেমন, আঁচার, লেবুর শরবত।

শুধু তাই নয়, যাদের স্যালিসাইলেট এবং অ্যালারজি রয়েছে তাঁদের চা, কফি, বাদাম, দুধ জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

 

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন