Connect with us

দেশ

কোভিড ১৯ টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু, কবে, কোথায় মিলবে ভ্যাকসিন জানানো হবে এসএমএস-এর মাধ্যমে

কোভিড ১৯ টিকা দেওয়ার জন্য অঙ্গনবাড়ি কেন্দ্র, স্কুল এবং পঞ্চায়েত ভবন, এই জাতীয় প্রতিষ্ঠানগুলির চত্ত্বরকে ব্যবহার করা হবে।

Published

on

corona vaccine

খবর অনললাইন ডেস্ক : কোভিড ১৯-এর কোনো স্থায়ী প্রতিষেধক এখনও পাওয়া যায়নি। তবে আশা করা হচ্ছে আগামী বছরের গোড়ার দিকে এর প্রতিষেধক বাজারে আসতে পারে। সেই প্রতিষেধক কী ভাবে মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে, তার প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে কেন্দ্র।

জানা গিয়েছে, কোভিড ১৯ টিকা দেওয়ার জন্য অঙ্গনবাড়ি কেন্দ্র, স্কুল এবং পঞ্চায়েত ভবন, এই জাতীয় প্রতিষ্ঠানগুলির চত্ত্বরকে ব্যবহার করা হবে।

লাইভ মিন্টের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনেশন প্রোগ্রামের অধীনে এই টিকা প্রদান কমসূচি চলবে উপরে উল্লেখিত প্রতিষ্ঠানগুলির চত্ত্বর থেকে। যেগুলিকে বলা হচ্ছে ভ্যাকসিন বুথ।

Loading videos...

এই বুথগুলিতে বিদ্যামান ইউভার্সাল টিকাদান কর্মসূচিও সমান্তরালভাবে চলবে বলে জানা গিয়েছে। এসএমএস-এর মাধ্যমে ভ্যাকসিন সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য আপনি পেয়ে যাবেন।

সমগ্র কর্মসূচিটি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের একটি ডিজিট্যাল প্লাটফর্ম মারফত পর্যবেক্ষণ করা হবে। এর মাধ্যমে এসএমএস পাঠানো হবে এবং ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য একটি কিউআর কোড দেওয়া হবে।

করোনা ভাইরাস টিকা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নথী

টিকা কর্মমূচির আওতায় সমস্ত ব্যক্তিকে চিহ্নিত করতে এবং সুবিধাভোগীদের চিহ্নিত করতে তাদের আধার কার্ডের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে। যদি কোনো ব্যক্তির আধার কার্ড না থাকে তবে সনাক্তকরণের জন্য ফটো নেওয়া হবে।

কবে মিলবে করোনা প্রতিষেধক?

হিন্দুস্থান টাইমসের একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, কেন্দ্র নীতি আয়োগের সদস্য ভিকে পালের নেতৃত্বে একটি টিকা প্রদান পরিকল্পনা কমিটি গঠন করছে। এই ভ্যাকসিন সংরক্ষণ এবং বিতরণের বিষয়ে বিশদে পরিকল্পনা করেছে। মনে করা হচ্ছে ২০২১ সালে আগে ভারতের করোনা ভ্যাকসিন আসতে পারে।

ভারতের কোভিড পরিস্থিতি

গত বৃহস্পতিবার সারা দেশে ৫০ হাজারের বেশি কোভিড আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছিলেন। সেই সংখ্যা পরের দিন কিছুটা নামলেও এ দিন ফের ঊর্ধ্বমুখী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ হাজার ৩৫৬ জন। ফলে শনিবার পর্যন্ত ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮৪ লক্ষ ৬২ হাজার ৮০।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫৩ হাজার ৯২০ জন। মোট সুস্থ হয়ে ওঠা কোভিডরোগীর সংখ্যা ৭৮ লক্ষ ১৯ হাজার ৮৮৬। সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৯২.৪১ শতাংশ।

দেশ

হায়দরাবাদে উত্থান বিজেপির, ইস্তফা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির!

তেলঙ্গানার শাসক দল টিআরএস-কে বড়োসড়ো ধাক্কা দিয়ে ভিত মজবুত করতে সফল গেরুয়া শিবির।

Published

on

পুরভোটের প্রচারে অমিত শাহ। ফাইল ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: দলের তারকা প্রচারকদের ময়দানে নামিয়েও হায়দরাবাদ পুরসভার ক্ষমতা দখল থেকে দূরে থাকতে হল বিজেপিকে। তবে তেলঙ্গানার শাসক দল টিআরএস-কে বড়োসড়ো ধাক্কা দিয়ে দক্ষিণের এই রাজ্যে ভিত মজবুত করতে সফল গেরুয়া শিবির।

মোট ১৫০ ওয়ার্ডের গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে গত ২০১৬ সালের ভোটে বিজেপির প্রাপ্ত আসন সংখ্যা ছিল মাত্র চার। ফলে এ বার নতুন করে হারানোর কিছুই ছিল না তাদের। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ ফলাফল আসার আগেই বিজেপির দখলে চলে গিয়েছে গত বারের থেকে ১০গুণের বেশি আসন। ফলে ২০২৩ সালের তেলঙ্গানা বিধানসভা ভোটের আগাম প্রস্তুতি হিসাবে এই সাফল্যকেই আতসকাচের নীচে ফেলছেন বিজেপির উচ্চনেতৃত্ব। বিশেষত, রাজ্যের শাসক দল টিআরএস-এর ভোটব্য়াঙ্কে যে বড়োসড়ো ধাক্কা দিতে সক্ষম হয়েছে বিজেপি, সেটাই এখনও প্রাপ্ত ফলাফলে স্পষ্ট।

হায়দরাবাদের পুরনির্বাচনে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বও ঝাঁপিয়ে পড়েন। বিশেষত, ডুব্বক বিধানসভার উপ-নির্বাচনে গেরুয়া শিবিরের সাফল্য দক্ষিণের এই রাজ্যটিকে নিয়ে উৎসাহ কয়েকগুণ বাড়িয়ে তোলে। যে কারণে অমিত শাহ, জেপি নাড্ডা, যোগী আদিত্যনাথ, প্রকাশ জাভাড়েকর এবং স্মৃতি ইরানির মতো তারকা প্রচারকদের নামিয়ে দেওয়া হয় পুরভোটের প্রচারের ময়দানে। হায়দরাবাদ পুরসভায় ‘পরিবর্তন’ না হলেও বিজেপির টার্গেট এখন আগামী বিধানসভা ভোট।

Loading videos...

গতবার ৯৯টি আসনে জিতেছিল মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের দল টিআরএস। কিন্তু এ বারের প্রবণতায় স্পষ্ট ৬০-এর নীচেই থামতে হবে তাদের। সেই জায়গায় অভাবনীয় উত্থান ঘটে গিয়েছে বিজেপির। এক দিকে যেমন কয়েকগুণ আসন বাড়িয়ে নিয়েছে বিজেপি, সেখানে গতবারের তুলনায় কমপক্ষে ৪০ শতাংশ আসন খোয়াতে হল রাজ্যের শাসক দলকে।

তবে শুক্রবার ভোট গণনার শুরুতে প্রাথমিক ট্রেন্ডে অনেকটাই এগিয়ে ছিল বিজেপি। পোস্টাল ব্য়ালট গণনার সময় তার প্রথম স্থানেই ছিল। তবে বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই ফলাফল অভিমুখ পরিবর্তন করে।

অন্যদিকে কংগ্রেসের অবস্থার কোনো উন্নতি দেখা যায়নি। ২০১০ সালের ভোটে যে কংগ্রেস ৫২টি আসনে জিতে পুরসভার বৃহত্তম দল হয়েছিল, ২০১৬-য় তাদের আসন সংখ্যা নেমে আসে এক অঙ্কের সংখ্যায় (২)। এ বারেও পরিসংখ্যানে খুব একটা হেরফের ঘটেনি।

এ বারেও মাত্র দু’টি আসনে জয়ের পর পদত্যাগ করেন তেলঙ্গানা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি উত্তমকুমার রেড্ডি।

আরও পড়তে পারেন: হায়দরাবাদ পুরসভার ক্ষমতা দখল থেকে দূরে থাকলেও বড়োসড়ো সাফল্য বিজেপির!

Continue Reading

দেশ

হায়দরাবাদ পুরভোটে টিআরএস বৃহত্তম দল হলেও পোক্ত বিজেপির ভিত!

আগের বার ছিল চার, এ বার আসন সংখ্যা বেড়ে কমপক্ষে ন’গুণ!

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: হায়দরাবাদ পুরসভা (GHMC) নির্বাচনের ফলাফলে প্রথম স্থানে উঠে এল তেলঙ্গানার শাসক দল তেলঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি (TRS)। দ্বিতীয় স্থানে আসাদুদ্দিন ওয়েইসির অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (AIMIM) এবং তৃতীয় স্থানে নেমে গেল বিজেপি।

এমনিতে হায়দরাবাদ পুরসভা নির্বাচনে প্রচারে কোনো খামতি রাখেনি বিজেপি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থেকে শুরু করে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও পাড়ি দিয়েছিলেন সেখানে। শুক্রবার প্রাথমিক ট্রেন্ডে ভালো অবস্থানে ছিল বিজেপি। যা দেখে একাধিক বিজেপি নেতৃত্ব উৎফুল্ল হয়ে টুইটারে পরিবর্তনের ডাক দিয়ে ফেলেন। কিন্তু বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি বদলাতে শুরু করে।

পূর্ণাঙ্গ ফলাফলে ১৫০টি আসনের মধ্যে টিআরএস: ৫৫, বিজেপি: ৪৮, এআইএমআইএম: ৪৪ এবং কংগ্রেস: ২টি আসনে জয়লাভ করে।

Loading videos...

রাত ৮টায় সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, ১৫০ আসনের হায়দরাবাদ পুরসভায় ১৪৬টির ফলাফল মিলেছে। টিআরএস: ৫৬, বিজেপি: ৪৬, এআইএমআইএম: ৪২ এবং কংগ্রেস:২টি আসনে জয়ী। তৃতীয় স্থান থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এল বিজেপি।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সরকারি ভাবে ফল ঘোষিত হয় ১৩২টি (১৫০-এর মধ্যে) আসনের। এখনও পর্যন্ত টিআরএস: ৫৩, এআইএমআইএম: ৪২, বিজেপি: ৩৫ এবং কংগ্রেস: ২টি আসনে জয় পেয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের পুরনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থীরা মাত্র চারটি আসনে জয়ী হয়েছিলেন।

বিজেপির এক শীর্ষ নেতা এনডিটিভি-র কাছে বলেন, পুরসভার ক্ষমতা কে দখল করল, সেটা বড়ো কথা নয়। মাত্র কয়েক বছরের ব্যবধানে বিজেপির প্রতি হায়দরাবাদের মানুষের সমর্থন কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে। টিআরএস-এর ভোটব্যাঙ্কে ধস নামাতে সফল হয়েছে বিজেপি। যা ২০১৩ সালের তেলঙ্গানা বিধানসভা ভোটে ব্যাপক প্রভাব ফেলবে।

বিকেল সাড়ে ৫টার সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, টিআরএস: ৪১, এআইএমআইএম: ৩৪, বিজেপি: ২২ এবং কংগ্রেস: ২টি আসনে জয়ী হয়েছে।

বেলা ৪টের ফলাফল অনুযায়ী, টিআরএস এগিয়ে ৭১, এআইএমআইএম ৪৩ এবং বিজেপি ৩৪টি আসনে এগিয়ে অথবা জয়ী। এই একই সময়ে সরকারি ঘোষণায় ২৬টি ওয়ার্ডের ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। টিআরএস: ১২, এআইএমআইএম: ১১, কংগ্রেস: ২ এবং বিজেপি: ১টি আসনে জয়ী।

রঙ্গারেড্ডি নগর ডিভিশনে জয়ী হয়েছেন টিআরএস প্রার্থী বিজয় শেখর গৌড়। অন্যদিকে মিম প্রার্থী মুখতাদির বাবা, শিরিন খাতুন, মহম্মদ রশিন ফরাজউদ্দিন নিজেদের ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছেন।

ভারতীনগর ওয়ার্ডে বিজয়ী হয়েছেন টিআরএস প্রার্থী সিন্ধু আদর্শ রেড্ডি। দলের আরও দুই প্রার্থী কোলানু লক্ষ্মী বাল রেড্ডি সনৎনগর এবং রশিদা মহম্মদ জিতেছেন চিন্তল ওয়ার্ড থেকে।

[সিন্ধু আদর্শ রেড্ডি]

বেলা আড়াইটা পর্যন্ত গণনায় দেখা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের টিআরএস ৬৪টি, ওয়েইসির দল ৩৪টি এবং বিজেপি এগিয়ে রয়েছে ৩১টি আসনে। অন্যদিকে কংগ্রেস এগিয়ে রয়েছে ৩টি আসনে।

হায়দারনগর ডিভিশনে জিতলেন টিআরএস প্রার্থী নারনে শ্রীনিবাস রাও। আবার বালানগরে জিতেছেন দলের প্রার্থী আভালু রবীন্দ্র রেড্ডি।

প্রসঙ্গত, গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে রয়েছে মোট ১৫০টি ওয়ার্ড। গত ২০১৬ সালের ভোটে মাত্র চারটি ওয়ার্ডে জিতেছিল বিজেপি। টিআরএস ৯৯টি ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছিল।

আরও পড়তে পারেন: হায়দরাবাদে উত্থান বিজেপির, ইস্তফা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির!

Continue Reading

দেশ

মঙ্গলবার ভারত বন্‌ধের ডাক দিলেন আন্দোলনরত কৃষকরা

৮ ডিসেম্বর দিল্লিতে ঢোকার সমস্ত পথ বন্ধ করে দেওয়া হবে, হুঁশিয়ারি কৃষকদের।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: মঙ্গলবার ভারত বন্‌ধের ডাক দিলেন আন্দোলনরত কৃষকরা। সেই সঙ্গে তাঁদের হুঁশিয়ারি ওই দিন, অর্থাৎ ৮ ডিসেম্বর দিল্লিতে ঢোকার সমস্ত পথ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

আইন সংশোধনে রাজি হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু  নিজেদের দাবি থেকে এক চুলও সরতে নারাজ আন্দোলনকারী কৃষকরা।বৃহস্পতিবার বৈঠকে কোনো রফাসূত্র না বেরোনোয় শনিবার পরিবর্তী বৈঠক হবে। কিন্তু তার আগেই সরকারের ওপরে চাপ বাড়াতে এই বন্‌ধের ডাক কৃষকরা দিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

৫ ডিসেম্বর অর্থাৎ শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কুশপুত্তলিকা পোড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার ভারতীয় কিসান ইউনিয়নের (বিকেইউ-লাখোওয়াল) তরফে এমনই ঘোষণা করা হয়েছে।

Loading videos...

শুক্রবার ভারতীয় কিসান ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এইচএস লাখোয়াল সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‘কৃষি আইন সম্পূর্ণ ভাবে প্রত্যাহার করতে হবে বলে গতকালই কেন্দ্রকে জানিয়ে দিয়েছিলাম আমরা। ৫ ডিসেম্বর দেশ জুড়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীর কুশপুত্তলিকা দাহ করব আমরা। ৮ ডিসেম্বর ভারত বনধের ডাক দিয়েছি।’’

লাখোয়াল বলেন, আন্দোলনের অঙ্গ হিসেবে মঙ্গলবার দিল্লির সব টোল প্লাজার দখল নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। ওই দিন টোল সংগ্রহ করতে দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার কৃষক সংগঠনগুলির সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সাত ঘণ্টারও বেশি ম্যারাথন বৈঠকের পরেও কোনো রফাসূত্র বেরোয়নি। ওই বৈঠকে কেন্দ্র আইন সংশোধন করার প্রতিশ্রুতি দিলেও কৃষকরা সেটা খারিজ করে দেন। তাঁদের একমাত্র দাবি, এই আইন বাতিল করতে হবে।

রফাসূত্র খুঁজতে শনিবার ফের বৈঠক হবে। সেখানেই চূড়ান্ত সমাধানসূত্র মিলবে বলে কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর আশা প্রকাশ করেছেন। তবে বর্তমানে যমুনার জল যে দিকে গড়াচ্ছে, তাতে এত তাড়াতাড়ি সমাধানসূত্র বেরোবে বলে মনে হয় না।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

মহারাষ্ট্রে বিধান পরিষদের ভোটে চূড়ান্ত ধাক্কা খেল বিজেপি

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
ফুটবল8 hours ago

মরশুমের প্রথম জয় বেঙ্গালুরুর, প্রথম হার চেন্নাইয়ের

রাজ্য10 hours ago

দুয়ারে সরকার: চার দিনেই ৭৫৮টি ক্যাম্পে ১৪ লক্ষ উপস্থিতি

রাজ্য10 hours ago

কলকাতায় সক্রিয় রোগী ৬ হাজারের নীচে, রাজ্যে নতুন সংক্রমণে ব্যাপক পতন

Vijay Mallya
বিদেশ11 hours ago

ফ্রান্সে বিজয় মাল্যের ১৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি

দেশ11 hours ago

হায়দরাবাদে উত্থান বিজেপির, ইস্তফা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির!

দেশ12 hours ago

হায়দরাবাদ পুরভোটে টিআরএস বৃহত্তম দল হলেও পোক্ত বিজেপির ভিত!

দঃ ২৪ পরগনা12 hours ago

সুন্দরবনের মৎস্যজীবীদের বিকল্প কাজ-সহ একাধিক দাবিতে চিতুরি বন দফতরে ডেপুটেশন

দেশ13 hours ago

মঙ্গলবার ভারত বন্‌ধের ডাক দিলেন আন্দোলনরত কৃষকরা

কেনাকাটা

কেনাকাটা21 hours ago

পোর্টেবল গিজারের ওপর বিশেষ ছাড় বেশ কয়েকটি মডেলে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীতকাল মানেই কনকনে ঠান্ডায় উষ্ণ জলের প্রয়োজন। সেই গরম জলের প্রয়োজন মেটাতে পারে গিজার। অ্যামাজনে কয়েক ধরনের...

কেনাকাটা4 days ago

ব্র্যান্ডেড কোম্পানির ইমারশন রডে ২ বছর পর্যন্ত ওয়ার‍্যান্টি পাওয়া যাচ্ছে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীতকালে গরম জলে স্নান করার মজাই আলাদা। জল গরম করার জন্য কি ওয়াটার হিটার খুঁজছেন? কিনতে পারেন...

কেনাকাটা1 week ago

৫০০ টাকার মধ্যে অত্যাধুনিক হেডফোন

খবর অনলাইন ডেস্ক: হেডফোন খারাপ হয়ে গেছে? সস্তায় নতুন ধরনের হেডফোন খুঁজছেন? হেডফোনের কয়েকটি অত্যাধুনিক কালেকশন রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা1 week ago

শীতের নতুন কিছু আইটেম, দাম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীত এসে গিয়েছে। সোয়েটার জ্যাকেট কেনার দরকার। কিন্তু বাইরে বেরিয়ে কিনতে যাওয়া মানেই বাড়ি এসে এই ঠান্ডায়...

কেনাকাটা1 week ago

ঘর সাজানোর জন্য সস্তার নজরকাড়া আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরকে একঘেয়ে দেখতে অনেকেরই ভালো লাগে না। তাই আসবারপত্র ঘুরিয়ে ফিরে রেখে ঘরের ভোলবদলের চেষ্টা অনেকেই করেন।...

কেনাকাটা2 weeks ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা1 month ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

নজরে