খালি পেটে কলা খাওয়া কি উচিত?

0

ওয়েবডেস্ক: দিনের সমস্ত খাবারের মধ্যে প্রাতঃরাশ সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ। স্বাভাবিক ভাবেই সকালের খাবার ভালো মতো খাওয়া উচিত। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে প্রাত‌ঃরাশের কোনো পৃথক বন্দোবস্থ থাকে না। তবে স্বাস্থ্য সচেতন হলে অবশ্যই সকালের খাবার নেওয়া উচিত।

কলা অবশ্যই একটি স্বাস্থ্যকর খাবার। এই ফলের উপাদানগুলি স্বাস্থ্যকর। হার্ট সুস্থ রাখতে এবং দেহে ক্লান্তি হ্রাস করার জন্য, রক্তচাপ বজায় রাখা, হতাশা, কোষ্ঠকাঠিন্য, অম্বল এবং আলসারকে হ্রাস করতে এবং শরীরে শীতল প্রভাব সরবরাহ করার জন্য কলার অবদান রয়েছে। এতে আয়রনের পরিমাণও বেশি রয়েছে যা হিমোগ্লোবিন উৎপাদনকে উদ্দীপিত করতে এবং রক্তাল্পতা নিরাময়ে সহায়তা করে। তবে কলা খালি পেটে খাওয়া উচিত কি না, তা এখনও বিতর্কের বিষয়।

ম্যাক্রোবায়োটিক হেলথ কোচ (ইউকে)-এর পুষ্টিবিদ ডা. শিল্পা অরোরা জানান, “কলা পটাসিয়াম, ফাইবার এবং ম্যাগনেসিয়ামের উৎস, এটি আপনার দেহের বিভিন্ন পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা পূরণ করে। এটি শক্তি বাড়ায় এবং ক্ষুধার্ত বেদনা হ্রাস করে। একটা কলা প্রতিদিন অবশ্যই খাওয়া উচিত”।

বেঙ্গালুরু-ভিত্তিক পুষ্টিবিদ ডা. অঞ্জু সুদের মতে, “কলা প্রকৃতিতে অ্যাসিডযুক্ত এবং এতে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম থাকে। ফলে সকালে খালি পেটে কলা না খাওয়াই ভালো”। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, রক্তে ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়ামের মধ্যে উচ্চ ম্যাগনেসিয়ামের পরিমাণ ভারসাম্যহীনতা তৈরি করতে পারে, যা কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমে আরও বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

কলায় প্রচুর পরিমাণে প্রাকৃতিক শর্করা উপস্থিত থাকে, যা শক্তি বাড়ায়।
কলা অস্থায়ীভাবে নিদ্রাহীন এবং ক্লান্তিহীন থাকতে সহায়তা করে।
কলার প্রকৃতি অম্লযুক্ত; সুতরাং, খালি পেটে এটি গ্রহণ করলে অন্ত্রের সমস্যা হতে পারে

আয়ুর্বেদের মতে, সকালে খালি পেটে ফল খাওয়া এড়ানোর কথা বলা হয়েছে। আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞ, ডা. বি এন সিনহার ব্যাখ্যা, “বর্তমান সময়ের নিরিখে খালি পেটে শুধু কলা নয়, ফলমূল এড়ানো উচিত। আজকাল প্রাকৃতিক ফল পাওয়া খুব শক্ত। এই ফলগুলিতে আমাদের ভাবনার থেকেও বেশি ক্ষতিকারক পদার্থ থাকতে পারে। ফলে উপায় হল, এটি অন্য খাবারের সঙ্গে নিতে হবে, যাতে এগুলির মধ্যে থাকা ক্ষতিকারক প্রভাব হ্রাস পায় “।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here