watson-ipl

ওয়েবডেস্ক: ওয়াংখেরেতে অধিনায়ক হিসাবে ফের চ্যাম্পিয়ন মহেন্দ্র সিং ধোনি। চেন্নাই সুপার কিংসয়ের হয়ে তৃতীয় বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হলেন তিনি। আট উইকেটে তাঁর দল হারাল সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে। ধোনির মুকুটে এই শিরোপা এনে দিলেন শেন ওয়াটসন। একার হাতেই চ্যাম্পিয়ন করলেন চেন্নাইকে। সঙ্গে অনবদ্য সেঞ্চুরি। যা আইপিএল ফাইনালে অন্যতম সেরা হিসাবে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

এ দিন টসে জিতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ব্যাট করতে পাঠান ধোনি। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় তারা। রান আউট হয়ে ফিরে যান তরুণ খেলোয়াড় শ্রীবৎস গোস্বামী। উইকেট হারিয়েও অবশ্য পিছিয়ে পড়েনি হায়দরাবাদ। ধীরে ধীরে এগোতে থাকেন ওপেনার ধাওয়ান এবং নতুন ব্যাট করতে আসা অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। দ্বিতীয় উইকেটে পঞ্চাশ রানের পার্টনারশিপ এই জুটির। তবে সেট হয়ে যাওয়া এই জুটিকে নবম ওভারে ভেঙে দেন ভারতীয় দলের নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় রবীন্দ্র জাডেজা। আউট হন ধাওয়ান। নতুন ব্যাটসম্যান শাকিবকে নিয়ে কিছুটা চেষ্টা চালালেও বেশিক্ষণ স্থায়ী হননি উইলিয়ামসন। তাঁকে স্টাম্প আউট করেন ধোনি। ফের উইকেট আউট হন শাকিবও। অবশ্য উইকেট হারালেও রানের গতি কমেনি তাঁদের। সৌজন্যে ইয়ুসুফ পাঠান এবং ব্রেথওয়েট। এই দু’জনের চওড়া ব্যাটিংয়ে ভর করে ১৭৮/৬ শেষ করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ১১ বলে ২১ ব্রেথওয়েটের। অন্যদিকে ২৫ বলে অপরাজিত ৪৫ করেন পাঠান।

ব্যাট করতে নেমে শুরুতে কিছুটা চাপে পরে যায় চেন্নাই। বোলিংয়ে শুরুটা ভালোই করে সানরাইজার্স। ক্রমাগত চাপ রাখার ফলও পেয়ে যায় তারা। চতুর্থ ওভারে সন্দীপের বলে আউট ডু-প্লেসিস। উইকেট হারালেও, শেষমেশ এটাই হয়তো ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট হয়ে দাঁড়ায়। দ্বিতীয় উইকেটে ব্যাটিংয়ের হাল ধরে ধীরে ধীরে এগোতে থাকেন ওয়াটসন এবং নতুন ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না। পঞ্চাশ রানের পার্টনারশিপ এই জুটির। যত সময় যায় রানের ঝড় তুলতে থাকে এই জুটি। ব্যাস, আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁদের। সেঞ্চুরি করে ফাইনালকে আরও স্মরণীয় করে রাখলেন ওয়াটসন। শেষ দিকে রায়না আউট হয়ে গেলেও, রায়ডুকে সঙ্গী করে জয়ের রাস্তায় পৌঁছে যান ওয়াটসন। এই জয়ের ফলে তৃতীয় বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে ধরে ফেলল চেন্নাই সুপার কিংস।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here