ওয়েবডেস্ক: প্রায় এক মাস ধরে চলা একাদশ আইপিএল শেষ হল রবিবার। তৃতীয় বারের জন্য চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস। কিন্তু আইপিএল মানে শুধু হার জিত নয়। টি-২০ লিগকে কেন্দ্র করে অনেক খেলোয়াড়ের এমন সব রেকর্ড হয়েছে, যা না জানলে নয়। যার মধ্যে এমনও রেকর্ড রয়েছে যা সহজে ভাঙবে বলে মনে হয় না।

দেখে নিন এমনই কিছু অবিশ্বাস্য রেকর্ড এবং চিনে নিন তাদের মালিককে:

১। কেএল রাহুল

দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিরুদ্ধে ১৪ বলে দ্রুততম অর্ধশতক করেছেন তিনি। ভেঙে দিয়েছেন ইয়ুসুফ পাঠান এবং সুনীল নারিনের ১৫ বলে অর্ধ শতকের রেকর্ড।

kl600

২। সুনীল নারিন

প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে ১৭ বা তার কম বল খেলে দুটি অর্ধশতক করেছেন। শুধু তাই নয়, আইপিএলের ইতিহাসে প্রথম ওভারে ২১ রান করেছেন তিনি। রাজস্থানের বিরুদ্ধে এই কৃতিত্ব। তবে ২০০৯ সালে রাজস্থান রয়্যালসের নমন ওঝা কেকেআরের বিরুদ্ধে এই রেকর্ড করেছিলেন। একই সঙ্গে প্রথম বিদেশি স্পিনার হিসাবে আইপিএলে একশো উইকেটও নিলেন তিনি।

narine600

৩। মহেন্দ্র সিং ধোনি

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সঙ্গে প্রচুর রেকর্ডও রয়েছে মাহির ঝুলিতে। ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছয় মেরেছেন তিনি। ১৫৮ ইনিংসে ১৮৬টি ছয়। টি২০-তে সবচেয়ে বেশি ক্যাচ নেওয়ার রেকর্ডও ধোনির মুকুটে। একইসঙ্গে অধিনায়ক হিসাবে আইপিএলে সবচেয়ে রানের রেকর্ডও তাঁর ঝুলিতে। ফলে টপকে গিয়েছেন কলকাতার প্রাক্তন অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরকে। অধিনায়ক হিসাবে ১৫০ ম্যাচে অধিনায়কত্ব। প্রথম অধিনায়ক হিসাবে টি২০-তে পাঁচ হাজার রান পূর্ণ করেন তিনি। ফাইনালে হায়দরাবাদ অধিনায়ককে স্টাম্প আউট করে সবচেয়ে বেশি স্টাম্পের রেকর্ড তাঁর ঝুলিতে। প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে আটটি আইপিএল ফাইনাল খেললেন তিনি। ফাইনালে জয়ী হয়ে অধিনায়ক হিসাবে ১৫০ টি ম্যাচও জিতলেন। সবই এক একটা রেকর্ড।

Dhoni600

৪। ঋসভ পন্থ

প্রথম উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসাবে আইপিএলে একশোটি বাউন্ডারি মারেন তিনি। মোট ১০৫। যার মধ্যে ৬৮ চার এবং ৩৭ ছয়। শুধু তাই নয়, প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসাবে এক ম্যাচে সর্বোচ্চ রানের নজির করেছেন তিনি। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ১২৮ অপরাজিত।

rishav600

৫। বাসিল থাম্পি

প্রথম বোলার হিসাবে আইপিএলের এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ৭০ রান দিয়েছেন তিনি। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে এই রেকর্ড।

৬। রাশিদ খান

সবচেয়ে তরুণ ক্রিকেটার হিসাবে একশোটি টি২০ ম্যাচ খেলার রেকর্ড করলেন আফঘান রাশিদ। দিল্লির বিরুদ্ধে ম্যাচের দিন এই রেকর্ড করলেন তিনি।

rashid600

৭। মুজিব জাডরান

সতেরো বছর বয়সি আফঘান মুজিব জাডরান সবচেয়ে কমবয়সী খেলোয়াড় হিসাবে আইপিএলে আত্মপ্রকাশ করলেন। দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিরুদ্ধে এই কৃতিত্ব তাঁর।

৮। অ্যারন ফিঞ্চ

প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে চলতি মরশুম মিলিয়ে সাতটি আইপিএল দলের হয়ে খেললেন তিনি। এর আগে রাজস্থান, মুম্বই, দিল্লি, হায়দরাবাদ, গুজরাত, পুনে এবং চলতি লিগে পঞ্জাবের হয়ে খেলেছেন তিনি।

৯। বিরাট কোহলি

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ৫৪ তম টি২০ অর্ধশতক করে তিনি টপকে গিয়েছেন গৌতম গম্ভীরকে। যা ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। শুধু তাই নয়, প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে চলতি মরশুমে মিলিয়ে মোট পাঁচ মরশুম করলেন পাঁচশোর বেশি রান।

virat600

১০। অঙ্কিত রাজপুত

আন্তর্জাতিক ম্যাচ না খেলেও, প্রথম ভারতীয় হিসাবে আইপিএলে এক ম্যাচে নিলেন পাঁচ উইকেট। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে তাঁর এই কৃতিত্ব।

১১। রোহিত শর্মা

প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসাবে টি২০-তে তিনশোর ওপর ছয় মেরেছেন তিনি। পঞ্জাবের বিরুদ্ধে এই কৃতিত্ব তাঁর।

১২। জোস বাটলার

আইপিএলের পরপর পাঁচ ম্যাচে অর্ধশতক করেছেন তিনি। ফলে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসাবে এই কৃতিত্ব রাজস্থানের ব্যাটসম্যানটির। এর আগে ২০১২ সালে দিল্লির হয়ে বীরেন্দ্রর সহবাগ এই কৃতিত্ব করেছিলেন।

buttler600

১৩। সন্দীপ লামিচ্ছান

প্রথম নেপালি ক্রিকেটার হিসাবে আইপিএলে আত্মপ্রকাশ হল সতেরো বছর বয়সী এই তরুণের। দিল্লির দলের অন্যতম সেরা আকর্ষণ ছিলেন তিনি।

lamicchan600

১৪। অভিষেক শর্মা

সতেরো বছর বয়সি হিসাবে সবচেয়ে বেশি একক আইপিএল রান করলেন দিল্লির এই খেলোয়াড়।

১৫। আন্দ্রে রাসেল

সপ্তম স্থানে ব্যাট করতে এসে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড করলেন রাসেল। চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে এই রেকর্ড তাঁর।

১৬। ক্রিস গেল

২০১৮ আইপিএলের প্রথম সেঞ্চুরির মালিক ক্রিস গেল। শুধু তাই নয়, লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি মোট ছয়টি সেঞ্চুরি রয়েছে তাঁর দখলে।

১৭। অনান্য

বেঙ্গালুরু এবং চেন্নাই ম্যাচে মোট ৩৩ টি ছয় হয়েছে। যা এখনও পর্যন্ত এক ম্যাচে সর্বোচ্চ। এর আগে ৩১ টি ছয় হয়েছিল দিল্লি এবং গুজরাত ম্যাচে। শুধু তাই নয়, এক মরশুমে সবচেয়ে বেশি ছয় হল ২০১৮-তেই। মোট ৮৭২। চলতি আইপিএলেই প্রথমবার একই ম্যাচে দুই অধিনায়ক করলেন ব্যক্তিগত নব্বইয়ের ওপর রান। মুম্বই এবং বেঙ্গালুরু অধিনায়ক রোহিত শর্মা (৯৪) এবং বিরাট কোহলি (৯২*) এই কৃতিত্ব গড়েন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here