নয়াদিল্লি: বন্ধুর বোনকে হয়রানির হাত থেকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ দিল ১৮ বছরের এক তরুণ। ঘটনাটি দিল্লির কীর্তিনগর এলাকার। রবিবার রাতের এই ঘটনা জানা গিয়েছে মঙ্গলবার। নিহতর নাম মনোজ। তাঁর গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়। তিনি হাসপাতালে মারা যান। আক্রমণকারীদের হাতে আহত হন বন্ধু রবিও।

রবি জানান, জনা চারেক লোক মত্ত অবস্থায় তাঁকে, তাঁর বোনকে ও বন্ধু মনোজকে ঘিরে ধরে। তারা রবির বোনকে বারণ করে মনোজের সঙ্গে কথা বলতে। রবি তাদের চলে যেতে বলে। কিন্তু ওরা হুমকি দিতে থাকে। তারা রবির বোনকে হয়রান করতে থাকে, গালিগালাজ করতে থাকে। এই সময় বাজারের কেউ তাঁদের সাহায্যে এগিয়ে আসেনি। অভিযোগ, ওই সময় বার তিনেক পুলিশকেও ডাকা হয়েছিল। রবির বোনের হয়রানি বাড়তে থাকায় দুই বন্ধু দুষ্কৃতীদের বাধা দেন। তখন তারা ছুরি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে তাঁদের ওপর। রবিকে সে ভাবে আহত করতে না পারলেও তারা মনোজের গলায় ছুরি চালিয়ে দেয়। হাসপাতালে মারা যান মনোজ।

এর পর জনতা পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে পুলিশকর্মীদের উপর ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে, কিছু দোকানে ভাঙচুর করে। পুলিশের এক অফিসার ও সাব ইনস্পেক্টর ইটের ঘায়ে আহত হন। দু’ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, পুরোনো পারিবারিক বিবাদের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে।

ছবি সৌজন্যে গুগল ম্যাপ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন