কলকাতা: তেলেনিপাড়া জেটিঘাটে দুর্ঘটনার পরে নড়েচড়ে বসেছে পরিবহন দফতর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যপাধ্যায়ের নির্দেশে প্রশাসনের কর্তারা রাজ্যের সব জেটি ঘুরে দেখেন। জেটিগুলি ঘুরে দেখার পর তাঁরা একটি রিপোর্ট জমা দেন নবান্নে। সেই রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে, রাজ্যের প্রায় ৬০ শতাংশ জেটির হাল খুব খারাপ। এ সব বেহাল জেটি কী ভাবে অতি দ্রুত মেরামত করা যায় তা নিয়ে প্রতিটি জেলা প্রশাসনের মতামত জানতে চাইবে রাজ্য পরিবহণ দফতর। এই খবর দফতর সূত্রে মিলেছে।

ফেরিঘাটগুলির নিরাপত্তা সুনিশ্চিত না করে যাত্রীদের পারাপার করতে দেওয়া যাবে না বলে বিভিন্ন জেলা প্রশাসনকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, ব্যারাকপুরের দু’টি ফেরিঘাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ওই দু’টি ফেরিঘাটের সংস্কারের জন্য দফতর ইতিমধ্যেই টাকা বরাদ্দ করেছে। রাজ্যের বাকি ঘাটগুলির ক্ষেত্রে জেলাগুলিকে যাত্রীদের সুরক্ষায় অবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া প্রায় অধিকাংশ ঘাটেই পারাপারের জন্য অতিরিক্ত যাত্রী নেওয়া হয়। এর পাশাপাশি যাত্রী পারাপারের জন্য অসাধু ব্যবসায়ীরা অস্থায়ী জেটি বানিয়ে বেআইনি ব্যবসা করছেন। এই বিষয়গুলি যাতে বন্ধ করা হয় তার জন্য জেলাগুলিকে একটি নির্দেশিকা পাঠিয়েছে পরিবহন দফতর।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here