cricket association of bengal

বিদর্ভ ৪৯৯

বাংলা ২০৭ (মনোজ ৫০, ওয়াখাড়ে ৩-৪৫) এবং ৮৬-৩ (সুদীপ ৪০ অপরাজিত, যাদব ৩-১৬)

কল্যাণী: সেই পুরোনো রোগ কিছুতেই যেন পিছু ছাড়ছে না বাংলার। মরশুমে ভালো শুরু করেও মাঝপথে মুখ থুবড়ে পড়ে বাংলা। আশা জাগিয়েও আর পরবর্তী রাউন্ডে ওঠা হয় না। এ বারও সে রকম কিছু হওয়ারই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

রঞ্জি মরশুমের প্রথম তিনটে ম্যাচ ভালো খেলে চতুর্থ ম্যাচে হারের ভ্রূকুটি এখন বঙ্গ শিবিরের সামনে। ম্যাচ বাঁচাতে হলে রবিবার মনোজ-সুদীপ-ঋদ্ধিদের দুর্দান্ত ব্যাট করতে হবে।

শনিবার খুব খারাপ শুরু করেননি আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মনোজ তিওয়ারি এবং কৌশিক ঘোষ। চতুর্থ উইকেটে বেশ জমাটি শুরু করেছিলেন দু’জনে। এরই মধ্যে নিজের অর্ধশতরানও পেরিয়ে যান মনোজ। কিন্তু পঞ্চাশ রানে মনোজ আউট হতেই সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ে বাংলার ব্যাটিং। ৭৫ রানের মধ্যে শেষ সাতটি উইকেট হারায় বাংলা। তবে এরই মধ্যে লৌহ কঠিন মানসিকতার পরিচয় দিয়ে অর্ধশতরান করেন নবাগত কৌশিক।

বিদর্ভের থেকে প্রথম ইনিংসে ২৯২ রান দূরে থেমে যাওয়ায় বাংলাকে ফলোঅন করাতে বেশি ভাবতে হয়নি বিদর্ভ অধিনায়ককে। এবং শুরুতে ফের চাপ। ললিত যাদবের সুইং-এর সামনে দশ রানের মধ্যেই তিন উইকেট যায় বাংলার। এরপর ক্রিজে সুদীপকে সঙ্গ দিতে আসেন মনোজ। দু’জনে অবশ্য যথেষ্ট সাবলীল ভাবেই খেলেছেন। তবে দু’জনের মধ্যে তৈরি হওয়া ৭৬ রানের জুটিতেও বঙ্গশিবিরে কোনো স্বস্তি নেই। বরং রবিবার মনোজরা অতিমানবিক কিছু না করলে হার যে নিশ্চিত, সেটা এখনই বলে দেওয়া যায়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here