sardar ballabhbhai patel
সর্দার বল্লভভাই পটেল। ছবি সৌজন্যে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

কলকাতা: ফের কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত। এ বার উপলক্ষ্য সর্দার বল্লভভাই পটেলের জন্মজয়ন্তী পালন। ৩১ অক্টোবর সর্দার বল্লভভাই পটেলের ১৪৪তম জন্মদিন। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পটেলের জন্মজয়ন্তী পালনের আর্জি জানিয়ে উপাচার্যদের চিঠি পাঠিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। রাজ্য সরকার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, এখানে কোনো ভাবে এই ধরনের কোনো জন্মজয়ন্তী পালন করা হবে না।

সর্দার বল্লভভাই পটেলের জন্মদিন রাষ্ট্রীয় একতা দিবস পালন করে কেন্দ্রীয় সরকার। উপাচার্যদের কাছে পাঠানো চিঠিতে ইউজিসি-র তরফে চিঠিতে বলা হয়েছে, রাষ্ট্রীয় একতা দিবস উপলক্ষ্যে ওই দিন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে কুইজ প্রতিযোগিতা, বিতর্কসভা ইত্যাদির আয়োজন করতে হবে। আর সংশ্লিষ্ট কলেজে যদি এনসিসি ইউনিট থাকে তা হলে সেনাবাহিনীর কোনো বর্তমান বা প্রাক্তন পদাধিকারীকে নিয়ে এসে সভার আয়োজন করতে হবে এবং ওই পদাধিকারী ওই সভায় জাতীয় ঐক্য এবং একতা নিয়ে ভাষণ দেবেন।

ইউজিসি-র চিঠি পাঠানোর কথা জানতে পেরে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়ে দেন, “রাজ্য সরকারকে অন্ধকারে রেখে সরাসরি উপাচার্যদের চিঠি দিয়েছে ইউজিসি। স্বাভাবিক ভাবেই রাজ্য তা মানবে না।

এ দিকে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, রাজনৈতিক মেনুকরণ তৈরি করার জন্যই স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতাদের নানা অছিলায় ব্যবহার করছে বিজেপি।

সব মিলিয়ে সর্দার বল্লভভাই পটেলের জন্মদিন পালন নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য বিবাদ এখন তুঙ্গে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here