deadbody at jaynagar ps

নিজস্ব সংবাদদাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: আর একটু দেরি করে পুলিশ পৌঁছোলে দেহটি পুড়ে ছাই হয়ে যেত। ঠিক সময়ে শ্মশানে পৌঁছে চিতা থেকে দেহ তুলে এনে থানায় নিয়ে এল পুলিশ। এ বার দেহটির ময়নাতদন্ত হবে। তার পরে জানা যাবে তার মৃত্যুর আসল কারণ।

মৃত ব্যক্তির নাম হারু সর্দার, বয়স ৫০ বছর। জয়নগর থানার জোসের চকের বাসিন্দা হারু মারা যান সোমবার রাতে। মঙ্গলবার সকালে গৌরহাট শ্মশানে তাঁর দেহ নিয়ে আসা হয় দাহ করার জন্য। পরিবারের বক্তব্য, হারুবাবু  আত্মঘাতী হয়েছেন। দেহটি যখন দাহ করার প্রস্তুতি চলছে, ঠিক সেই সময়ে জয়নগর থানার বিশেষ পুলিশ বাহিনী শ্মশানে হাজির হয়। তারা ডেথ সার্টিফিকেট দেখতে চায়। কিন্তু পরিবারের লোকজন তা দেখাতে না পারায় পুলিশের সন্দেহ হয়। তখন তারা দেহটি আটক করে।

পুলিশ প্রথমে দেহটি নিয়ে যায় পদ্মের হাট গ্রামীণ হাসপাতালে। সেখানেই জানতে পারা যায় হারুবাবু প্যারালিটিক ছিলেন। এক জন পক্ষাঘাতের রোগী কী ভাবে আত্মহত্যা করতে পারেন? সন্দেহ আরও জোরদার হয় পুলিশের। হারুবাবুর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে দেহটির ময়নাতদন্ত করা হবে। তা ছাড়া এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরিবারের কয়েক জনকে আটক করা হয়েছে।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন