madhyamik exam 2018

ওয়েবডেস্ক: এই নিয়ে পর পর দু’ বছর পশ্চিমবঙ্গে মাধ্যমিক পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর সংখ্যার বিচারে মেয়েরা ছাপিয়ে গেল ছেলেদের। এ বছর মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১১ লক্ষ ২ হাজার ৯২১। এদের মধ্যে মেয়েদের সংখ্যা ৬ লক্ষ ২১ হাজার ৩৬৬, মোট পরীক্ষার্থীর ৫৬%। গত বছর মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১০ লক্ষ ৭১ হাজার ৮৮৬।

সোমবার শুরু হল ২০১৮ সালের পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ পরিচালিত ক্লাস টেনের ফাইনাল পরীক্ষা। এ দিন ছিল প্রথম পত্রের পরীক্ষা। পরীক্ষা নির্বিঘ্নেই সম্পন্ন হয়েছে বলে পর্ষদ সূত্রে জানানো হয়েছে।

পর্ষদের প্রশাসক কল্যাণময় গাঙ্গুলি জানিয়েছেন, রাজ্য জুড়ে ২৮১৯টি পরীক্ষাকেন্দ্রে মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। এই প্রথম পরীক্ষার্থীরা অলচিকি লিপিতেও পরীক্ষা দিতে পারবে। এ বার মোট ৮৩২ জন ওই লিপিতে পরীক্ষা দিচ্ছে।

অনেক সময় অভিযোগ আসে পরীক্ষা শুরু হওয়ার অনেক আগেই প্রশ্নপত্রের প্যাকেট খুলে ফেলা হয়েছে কিংবা পরীক্ষার হলে গণটোকাটুকি চলছে। এই সব ঘটনা ঠেকাতে এ ব্যাপার কর্তৃপক্ষ বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছেন। প্রশ্নপত্রের প্রতিটি সিলড্‌ প্যাকেটে একটি করে মাইক্রোচিপ থাকবে। পরীক্ষা শুরু হওয়ার পাঁচ মিনিটের বেশি আগে যদি ওই প্যাকেট খোলা হয় তা হলে পর্ষদের কেন্দ্রীয় সার্ভারে সঙ্কেত চলে যাবে।

মোবাইল ফোন, ডিজিটাল ঘড়ি, ক্যালকুলেটর নিয়ে কেউ পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে পারবে না। টোকাটুকির অতীত অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে রাজ্য সরকার কিছু কেন্দ্রকে ‘সেনসিটিভ’ ঘোষণা করেছে। সেখানে পরিদর্শকের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবং ওই সব কেন্দ্রে গোটা পরীক্ষাপর্বটি ভিডিও করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

মাধ্যমিক চলবে ২১ মার্চ পর্যন্ত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here