madrasa independence day madhyapradesh
মুসলিমদের জাতীয়তাবোধ নিয়ে সন্দেহ? ছবি: মুসলিমমিরর.কম

ভোপাল: একটা স্বাধীনতা দিবস। তাকে নিয়ে স্কুল এবং মাদ্রাসাগুলির মধ্যে বিভাজন মধ্যপ্রদেশ সরকারের। ফলে তৈরি হয়েছে মহাবিতর্ক।

১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের দিন মাদ্রাসাগুলিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে, প্রমাণ হিসেবে তার ভিডিও রাজ্যের মাদ্রাসা বোর্ডের কাছে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। অথচ এমন কোনো নির্দেশ স্কুলগুলিকে দেওয়া হয়নি।

এই ব্যাপারে গত ৭ আগস্ট একটি নির্দেশিকা দিয়েছে মধ্যপ্রদেশের প্রশাসনিক দফতর। ‘পায়গাম-এ-মহব্বত’ নাম দিয়ে স্বাধীনতা দিবসে তিরঙ্গা র‍্যালি আয়োজনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মাদ্রাসাগুলিকে। তবে ব্যাপারটা নিয়ে যাতে বিতর্ক এড়ানো যায়, তার জন্য একটি প্রতিযোগিতার মোড়ক দেওয়া হয়েছে এই নির্দেশে।

বলা হয়েছে, ‘তিরঙ্গা র‍্যালি’ আয়োজন করে মাদ্রাসা দফতরে তার ছবি এবং ভিডিও পাঠাতে হবে। মাদ্রাসা বোর্ডের তরফ থেকে নির্বাচিত সেরা র‍্যালিকে পুরস্কৃত করা হবে। তবে এর পেছনে যে অন্য উদ্দেশ্য রয়েছে সেটা সহজেই অনুমেয়।

অথচ স্কুলগুলিকে এমন কোনো নির্দেশই দেওয়া হয়নি। শুধু স্বাধীনতা দিবসের দিন সকালে পতাকা উত্তোলন করতে বলা হয়েছে। ছবি বা ভিডিও পাঠানো বাধ্যতামূলক নয়।

গত বছরও এমন নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এর ফলে ‘মুসলিমদের জাতীয়তাবোধ নিয়ে সন্দেহ করা হচ্ছে’, এমন অভিযোগ করেছিল রাজ্যের অধিকাংশ মুসলিম এবং বিরোধীরা।  

তবে ব্যাপারটা নিয়ে বিশেষ বিতর্কের কিছু দেখছেন না মাদ্রাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান সৈয়দ ইমাদ-উদ-দিন। তিনি বলেন, “এর সঙ্গে আমরা কতটা জাতীয়তাবাদী, সেটা প্রমাণ করার কোনো ব্যাপার নেই। এটা সম্পূর্ণ একটা প্রতিযোগিতা। সেরা র‍্যালিকে আমরা পুরস্কৃত করব।”

তবে স্কুল এবং মাদ্রাসাগুলির জন্য দু’টি পৃথক নির্দেশের ফলে শিশুদের মনে এবং দুই সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ বাড়বে বলে অভিযোগ করেছেন বিভিন্ন মানবাধিকার কর্মী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন