mp birla school

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতা: এমপি বিড়লা স্কুলে শিশুছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে আদালতে প্রশ্নের মুখে পুলিশের ভূমিকা৷ এই ঘটনায় নির্যাতিতার পরিবার ১৫ সেপ্টেম্বর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷ মঙ্গলবার মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। এত দিন পর কেন গ্রেফতার হল তা নিয়ে প্রশ্ন করেন অভিযুক্তের আইনজীবী৷ অন্য দিকে সরকারি আইনীবী রাধাকান্ত মুখার্জি জানিয়েছেন, এই ঘটনার প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগ স্বীকার করেছেন অভিযুক্ত মনোজ মান্না৷ এই ঘটনায় গণেশ নামে আরও একজন জড়িত বলে জানতে পারা গিয়েছে৷

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, এই ঘটনা নিয়ে অভিযোগ হওযার পরেই নির্যাতিতার শারীরিক পরীক্ষা হয়৷ তার পর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বাবা৷ ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ নির্যাতিতার গোপন জবানবন্দি নেয়৷ মেডিক্যাল রিপোর্টেও যৌন হেনস্থার প্রমাণ মেলে৷ অভিযুক্ত মনোজ মান্নাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সে ঘটনার কথা স্বীকার করে। কিন্তু তা সত্ত্বেও কেন তাকে এত দিন কেন গ্রেফতার করা হল না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷

অভিযুক্তকে মঙ্গলবার আদালতে পেশ করা হলে ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের আবেদন জানানো হয়৷ এ দিন আলিপুর ৬ নম্বর এডিজে আদালতে তাকে পেশ করা হয়৷ পুলিশি হেফাজতের বিরোধিতা করেন অভিযুক্তের আইনজীবী৷ ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক৷

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here