যোধপুর: ১৮ বছরের পুরানো অস্ত্র মামলা থেকে রেহাই পেলেন সলমন খান। যোধপুর আদালত এই মামলায় তাঁকে ‘বেকসুর খালাস’ করে দিল।

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যায় বেআইনি অস্ত্র রাখার অভিযোগ সংক্রান্ত মামলায় বুধবার রায় ঘোষণা করে যোধপুর আদালত। রায়দানের সময় আদালতে হাজির ছিলেন ‘সল্লু’ । বোন অলভিরাকে নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধেতেই যোধপুর শহরে পৌঁছে যান তিনি।

১৯৯৮ সালে সলমনে বিরুদ্ধে যোধপুরের কাছে কাঙ্কানিতে দু’টি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ দায়ের হয়। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, শিকারের সময় একটি পিস্তল ও একটি রাইফেলের ব্যবহার করা হয়েছে যার লাইসেন্সের মেদায় ফুরিয়ে গিয়েছিল এবং তা আর পুনর্নবীকরণ করা হয়নি।

আদালতে সলমনের আইনজীবী বলেন, শিকারের সময় সলমন যে আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করেছিলেন, তার কোনো প্রমাণ নেই। তিনি এয়ারগান নিয়ে শিকারে এসেছিলেন।

কষ্ণসার হরিণ ছাড়াও দু’টি চিঙ্কারা হরিণ শিকার মামলায় ইতিমধ্যেই তিনি রাজস্থান হাই কোর্ট থেকে ছাড় পেয়েছেন। এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে রাজ্য সরকার সুপ্রিম কোর্ট গিয়েছে। 

 

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here