Mukul Roy

কলকাতা: মাঝেরহাট সেতুর একাংশ ভেঙে পড়া নিয়ে তীব্র ভাষায় সমালোচনা করেছেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, সেতুতে গর্ত, ফাটল- সরকার কী জানত না? একই ভাবে সমালোচনায় সরব হয়েছেন রাজ্যের বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব। তবে বিজেপি নেতা মুকুল রায় সেতু ভাঙার জন্য সরকারকে দায়ী করলেও তুলে ধরলেন নেপথ্য কারণটিও।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, দীর্ঘ দিন ধরেই মাঝেরহাট সেতুতে একাধিক গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। দেখা মিলেছে ফাটলেরও। বৃষ্টি হলেই যে জায়গাগুলি থেকে চুঁইয়ে জল পড়তে দেখা যায়। এ বিষয়ে দায়িত্বে থাকা ইঞ্জিনিয়ারদের বলা সত্ত্বেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। উল্লেখ্য, মাত্র ৪০ বছর আগে এই সেতু নির্মাণ করা হয়েছিল। রেল লাইনের উপর দিয়ে গেলেও সেতুটির রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব ছিল রাজ্যের পূর্ত দফতরের হাতে।

Majherhat
চলছে উদ্ধারকাজ

রক্ষণাবেক্ষণ প্রসঙ্গেই রাজ্য সরকারকে এক হাত নিয়েছেন মুকুলবাবু। তিনি বলেছেন, “এই সেতু ভেঙে পড়ার সমস্ত দায় রাজ্য সরকারের। তারা বড়াই করে শহরের সৌন্দার্যায়নের কথা বলে থাকে। ফলে পুরনো সেতুগুলির রক্ষণাবেক্ষণের কথা তাঁর (মুখ্যমন্ত্রীর) মাথা্তেই নেই। রাজ্য সরকারকে সম্পূর্ণ দায় নিতে হবে”।

দু’বছর আগে একই ভাবে কলকাতার পোস্তার কাছে ভেঙে পড়ে ফ্লাইওভার। সে সময় রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে পুরনো উড়ালপুল এবং সেতুগুলির রক্ষণাবেক্ষণে একটি কমিটি গড়া হয়েছিল। সেই কমিটি উড়ালপুল এবং সেতুর পর্যবেক্ষণে নিযুক্ত ছিল। কিন্তু তাদের রিপোর্টে সম্পর্কে পরবর্তীকালে আর কোনো উচ্চবাচ্য হয়নি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন