gopinath munde

ওয়েবডেস্ক: কাকা গোপীনাথ মুন্ডের মৃত্যু নিয়ে তদন্ত দাবি করলেন ভাইপো ধনঞ্জয় মুন্ডে। তিনি চান, হয় র’ না হয় সুপ্রিম কোর্টের কোনো বিচারপতিকে দিয়ে তাঁর কাকার মৃত্যুর তদন্ত করানো হোক। সোমবার লন্ডনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে সাইবার বিশেষজ্ঞ সৈয়দ শুজা দাবি করেন, এক সময়ের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোপীনাথ মুন্ডে ইভিএম হ্যাকিং নিয়ে তাঁর সরকারের কুকর্ম ফাঁস করতে গিয়েছিলেন। তাই তাঁকে খুন করে দেওয়া হয়। ২০১৪ সালের জুনে মুম্বইয়ে এক গাড়ি দুর্ঘটনায় মুন্ডে মারা যান।

আরও পড়ুন ২০১৪-এর ভোটে রিগিং হয়েছিল, ইভিএমে কারচুপি করা যায়, দাবি সাইবার বিশেষজ্ঞের

এনসিপি নেতা ধনঞ্জয় মুন্ডে মহারাষ্ট্র বিধান পরিষদে বিরোধী দলের নেতা। তিনি বলেন, তাঁর কাকার মৃত্যু নিয়ে সাইবার বিশেষজ্ঞ যে দাবি করেছেন তাতে আমরা মর্মাহত। কাকাকে যাঁরা ভালোবাসেন তাঁরা সব সময়েই তাঁর মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তাঁরা সব সময়েই ভেবেছেন, যে গাড়ি দুর্ঘটনায় কাকা মারা যান, তা কি সত্যিই দুর্ঘটনা নাকি অন্তর্ঘাত।

এক টুইট বার্তায় ধনঞ্জয় বলেছেন, “এক জন সাইবার বিশেষজ্ঞের চাঞ্চল্যকর দাবি, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোপীনাথ মুন্ডেকে খুন করা হয়েছে। এই দাবি নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। এই দাবি এক জন জননেতার মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত। অবিলম্বে র’ বা সুপ্রিম কোর্টের কোনো বিচারপতিকে দিয়ে তদন্ত করানো উচিত।”

ধনঞ্জয় আরও বলেছেন, “যাঁরাই মুন্ডেসাহেবের নেতৃত্ব অনুসরণ করেছেন, এবং তাঁকে ভালোবেসেছেন, তাঁদের সকলের মনে তাঁর মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন আছে। সাইবার বিশেষজ্ঞের কথায় এই সন্দেহের দিকেই দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। ইভিএম হ্যাকিং-এর দাবি যদি ঠিক হয়, তা হলে তা বিশ্বের সর্ব বৃহৎ গণতন্ত্রের নিয়মনীতিও লঙ্ঘন করে।”

মরাঠি ভাষায় আরও একটি টুইটে ধনঞ্জয় বলেছে, “মুন্ডেসাহেবকে যাঁরা ভালোবাসেন, তাঁরা প্রত্যেকে সন্দেহ করেন যে মুন্ডের মৃত্যু নিছক দুর্ঘটনায় নয়, এটা অন্তর্ঘাত। সেই সন্দেহই সমর্থিত হয়েছে সাইবার বিশেষজ্ঞের সাংবাদিক সম্মেলনে।”

সাইবার বিশেষজ্ঞের দাবি অবশ্য খারিজ করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here