কলকাতা: সাতসকালে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটল কড়েয়া থানা এলাকার ব্রাইট স্ট্রিটে। ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় একজনের। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। অভিযুক্তের বাড়ি ভাঙচুর করে উত্তেজিত জনতা। পরিস্থিতির মোকাবিলায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

fazrul rahaman
ফজরুল রহমান।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন কলকাতা পুলিশের ডেপুটি কমিশনার কল্যাণ গাঙ্গুলি। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি। ঘটনাস্থলে যান স্থানীয় কাউন্সিলর তথা কলকাতা পুরসভার ডেপুটি মেয়র ইকবাল আহমেদ। তিনি মৃতের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন।

 

পুলিশ ও পরিবার সুত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকাল আটটা চল্লিশ নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। গুলিতে গুরুতর জখম হয় ফজরুল রহমান। সঙ্গে সঙ্গেই তাকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিশ সুত্রে খবর, শেখ ইদ্রিস ওরফে ভোলা ও ফজরুল রহমান প্রতিবেশী। তারা দু’জনেই এলাকায় প্রোমোটিং, দালালি, সিন্ডিকেট ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিল। স্থানীয় একটি আবাসনের ফ্ল্যাটের টাকার বখরাকে কেন্দ্র করে দু’জনের মধ্যে ঝামেলা বাধে। ফজরুলের কাছ থেকে টাকা পেত ভোলা। ভোলা একাধিক বার টাকা চাইলেও ফজরুল দেয়নি বলে অভিযোগ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’জনের মধ্যে বহু বার তর্কাতর্কি ও বাদানুবাদও হয়েছে। তার পর মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে ডেকে এনে একদম সামনে থেকে ফজরুলকে লক্ষ করে গুলি চালায় ভোলা। গুলির শব্দ পেয়ে প্রতিবেশীরা বেরিয়ে এসে দেখেন রাস্তায় পড়ে রয়েছে ফজরুল। ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় ভোলা। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন