অস্ট্রেলিয়া: প্রথম ইনিংস ৪৫১, দ্বিতীয় ইনিংস:  ২০৪-৬ (হ্যান্ডস্কোম্ব ৭২ নটআউট, মার্শ ৫৩, জাদেজা ৪-৫৪)

ভারত: প্রথম ইনিংস ৬০৩-৯ ডিঃ

রাঁচি: দিনের এক্কেবারে শেষ লগ্নে ভারতের জয়ের ক্ষীণ একটা আশা তৈরি করে দিয়েছিলেন অশ্বিন এবং জাদেজা। কিন্তু আট নম্বরে নামা মাথ্যু ওয়েডের ঠান্ডা মাথা টেস্টকে ড্রয়ের দিকে নিয়ে গেল।

ম্যাচের ভাগ্য সোমবার লিখে দিয়েছিলেন শন মার্শ এবং পিটার হ্যান্ডস্কোম্ব। রাঁচির পিচে বল সে ভাবে ঘোরেনি। কিন্তু পাহাড়প্রমাণ চাপ নিয়ে অনবদ্য ব্যাটিং করে গেলেন দু’জন। পঞ্চম দিন শুরুর ঘণ্টাখানেক অধিনায়ক স্মিথ এবং রেনশ টিকে গিয়েছিলেন। কিন্তু লাঞ্চের একটু আগেই অস্ট্রেলিয়া শিবিরে ধাক্কা দেন ইশান্ত এবং জাদেজা। অস্ট্রেলিয়ার স্কোর তখন চার উইকেটে ৬৩। 

হাতে গোটা দু’টো সেশন, ৮৯ রানে পিছিয়ে। এই অবস্থায় খেলা ধরে নেন মার্শ-হ্যান্ডস্কোম্ব জুটি। এই জুটিকে ভাঙার জন্য ভারতের বোলিং আক্রমণ আপ্রাণ চেষ্টা করলেও কোনো লাভ হয়নি। ৬২ ওভার ব্যাটসম্যানশিপের চূড়ান্ত পরীক্ষা দিয়ে যান দু’জনে। রান ওঠে মাত্র ১২৪। ৯২তম ওভারে নতুন একটা আশার আলো দেখান জাদেজা, মার্শকে তুলে নিয়ে। এর কয়েক ওভার পরেই ম্যাক্সওয়েলও ফিরে যান।

২০১০-১১-এর পর অস্ট্রেলিয়া প্রথম দল, যারা প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে থেকেও টেস্ট ড্র করল।

   

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন