pujara

ভারত ৭৪-৫ (পুজারা ৪৭ অপরাজিত, ধাওয়ান ৮, লকমল ৩-৫)

কলকাতা: প্রথম দিনের থেকে অনেকটাই ভালো খেলল ভারত। না, কোনো হেঁয়ালি নয়, পরিসংখ্যানের ভিত্তিতেই বলা যেতে পারে ভারত ভালো খেলেছে। কারণ প্রথম দিন যদি ১১ ওভারে ভারতের স্কোর হয় তিন উইকেটে ১৭, তা হলে দ্বিতীয় দিন ২১ ওভারে ভারত করল দুই উইকেটে ৫৭। প্রথম দিনের মতোই দিনের বাকিটা ধুয়ে দিল বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপ।

সারা রাত বৃষ্টি হলেও সকালের আগেই থেমে যাওয়ায় দ্বিতীয় দিন সময়ে খেলা শুরু করতে কোনো অসুবিধা হয়নি। প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনও পিচ এবং আবহাওয়া, সবই ছিল শ্রীলঙ্কার বোলারের অনুকূলে। সেই অবস্থাকে কাজে লাগিয়ে এ দিনও বল ছোটাতে শুরু করেন লঙ্কাবাহিনী। আরও দু’ উইকেট ফেলে ভারতীয় শিবিরে মৃদু ভূমিকম্প ঘটিয়ে দিয়েছে তারা। তবে এ সবের মধ্যেও একা কুম্ভ হয়ে লড়ে যাচ্ছেন শুধু চেতেশ্বর পুজারা।

একটা পরিসংখ্যান দেওয়া যাক। পুজারা ব্যাট করছেন ৪৭ রানে। ভারতের স্কোর তাঁর ঠিক উলটো, খোয়া গিয়েছে পাঁচ উইকেট। অর্থাৎ পুজারাকে বাদ দিলে ভারতের স্কোর পাঁচ উইকেটে ২৭। এর থেকেই বোঝা যায় ঠিক কতটা আধিপত্য নিয়ে এই সবুজ পিচে ব্যাট করেছেন ভারতের নতুন ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’। আরও আশ্চর্যজনক ব্যাপার হল পুজারা আদৌ পুজারাসুলভ ব্যাটিং করেননি। বরং শ্রীলঙ্কার বোলারদের রীতিমতো শাসন করে ৩৬ রানই তিনি করেছেন বাউন্ডারি মেরে।

পুজারা ছাড়া দ্বিতীয় দিনের বলার মতো ঘটনা হল লকমলের কোনো উইকেট না পাওয়া। এ দিন পাঁচ নম্বরের রাহানে এবং ছ’নম্বরের অশ্বিনকে আউট করেন দাশুন শনাকা। পাঁচ উইকেটে ৫০-এর পরে ভারতের ভাঙনটা যে একটু আটকানো গিয়েছে তার মূল কারণ হচ্ছে পুজারাকে ঋদ্ধির সংগত দেওয়া। এখনও পর্যন্ত ২২ বল খেলেছেন ঋদ্ধি, একটা চার সহযোগে করেছেন ৬। উইকেটে যতক্ষণ ছিলেন সাবলীল লেগেছে।

শনিবার বৃষ্টির পূর্বাভাস থাকলেও, রোদ উঠবে, সুতরাং সারা রাত প্রবল বৃষ্টি না হলে, খেলা যে হবে সেটা বলেই দেওয়া যায়। তৃতীয় দিনে পুজারা-ঋদ্ধি জুটি ভারতকে কতটা টেনে নিয়ে যান সেটাই দেখার।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here