murali vijay and cheteswar pujara against sri lanka in nagpur

শ্রীলঙ্কা ২০৫ (চণ্ডীমল ৫৭, করুণারত্নে ৫১, অশ্বিন ৪-৬৭)

ভারত ৩১২-২ (মুরলী বিজয় ১২৮, পুজারা ১২১ অপরাজিত, কোহলি ৫৪ অপরাজিত)

নাগপুর সারা দিন ঘাম ঝরিয়ে গেলেন শ্রীলঙ্কার বোলাররা। কিন্তু দিনের শেষে হাতে রইল পেনসিল। সারা দিনে দু’টো সেঞ্চুরি হল, এক জন অর্ধশতক। পড়ল মাত্র একটি উইকেট। সব মিলিয়ে প্রথম ইনিংসেই চালকের আসনে ভারত। এখনই ২ উইকেটে ৩০২। আশা করা যেতেই প্রথম ইনিংসে রানের পাহাড় গড়ে শ্রীলঙ্কার সামনে অশ্বিন-জাদেজার জুজুকে আবার ঝুলিয়ে দিতে চায় ভারত।

সারা দিন উইকেটের জন্য মাথা খুটে মরেছে শ্রীলঙ্কা। ১৯ রানে হেরাথের বলে একটা ক্যাচ আউটের আধখানা সুযোগ এবং ওই বলে রান আউটের পুরো সুযোগ দিয়েছিলেন টেস্টে ফিরে আসা মুরলী বিজয়। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। আবার ৬১ রানে আর একটা সুযোগ। সেই সুযোগও নষ্ট করে শ্রীলঙ্কা। শেষ পর্যন্ত টেস্টে দশম শতরানটি করে ফেলেন মুরলী।

ও দিকে পুজারাও তাঁর প্রথাসিদ্ধ ভঙ্গিমায় খেলে যাচ্ছিলেন। মুরলীর চেয়ে কিছুটা ধীরস্থির ভাবে। তাঁরও ১৪টি শতরান হয়ে গেল। দ্বিতীয় উইকেটে ২০৯ রান যোগ করে হেরাথের বলে বিদায় নেন মুরলী। মুরলী-পুজারা এই নিয়ে ১০টি শতরান এবং তিনটি দ্বিশতরানের জুটি গড়লেন। মুরলীর পর অধিনায়ক কোহলি নেমে মাঠে ঝড় তুললেন। বোঝাই গেল এই পাটা উইকেটে দ্রুত রান তুলে শ্রীলঙ্কার ঘাড়ে রানের পাহাড় চাপানোই তাঁর লক্ষ্য। দিনের শেষে পুজারা ১২১ রানে এবং কোহলি ৫৪ রানে ক্রিজে।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here