কলকাতা: অগ্রহায়ণের শেষে তেরোর নীচে নেমে গিয়েছিল কলকাতার তাপমাত্রা, কিন্তু পৌষের প্রথম দু’দিন যেন কিছুটা ব্যাকফুটে শীত। তবে শীত-প্রত্যাশীদের এখনই হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই। দু’দিনের মধ্যেই স্বমহিমায় ফেরার আশ্বাস দিয়েছে শীত।

শুক্রবার কলকাতার তাপমাত্রা ১২.৭-এ নেমেছিল, শৈত্যপ্রবাহের পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে রাঢ় অঞ্চল। কিন্তু তাল কাটল তার পরের দিনই। শনিবার কলকাতায় তাপমাত্রা এক ধাক্কায় তিন ডিগ্রি বেড়ে হয় ১৫.৬ ডিগ্রি, স্বাভাবিকের থেকে প্রায় দু’ডিগ্রি বেশি। রবিবার ফের কিছুটা কমে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দাঁড়িয়েছে ১৪.৯ ডিগ্রি। তাপমাত্রা বেড়েছে রাঢ় অঞ্চলেও। বোলপুরে শুক্রবার তাপমাত্রা ছিল ৮.৫ ডিগ্রি, রবিবার তা বেড়ে হয় ১১ ডিগ্রি। শীতের এই কিছুটা তাল কেটে যাওয়ার কারণ কী?

ত্রিপুরা আর সংলগ্ন বাংলাদেশে একটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। এর ফলে কিছুটা জলীয় বাষ্প ঢোকার ফলে বাধা পড়েছে উত্তুরে হাওয়ায়। এই ঘূর্ণাবর্তটি আগামী দু’দিনের মধ্যেই কেটে যাবে। তবে আবহাওয়া দফতরের মতে, শীতকালে হঠাৎ করে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়া একবারে স্বাভাবিক নিয়মের মধ্যেই পড়ে। ঘাবড়ানোর কিছু নেই। বঙ্গোপসাগরে এই মুহূর্তে কোনো নিম্নচাপ না থাকায় ওই দিক থেকে শীত বাধাপ্রাপ্ত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের মতে, মঙ্গলবার থেকেই ফের নামবে তাপমাত্রা। কনকনে উত্তুরে হাওয়াকে সঙ্গী করে বক্তব্যকে সমর্থন জানাচ্ছে। এমনকি বড়োদিনের ছুটিতেও কড়া শীতেরই আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here