high-court

কলকাতা: সুরক্ষা নিয়ে কমিশন সন্তুষ্ট হলে আদালত হস্তক্ষেপ করবে না। কারণ আদালতের হাতে সুরক্ষা ব্যবস্থা নেই। ফলে নির্বাচন কমিশনই স্থির করবে কবে হবে পঞ্চায়েত ভোট।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ নিরাপত্তা সংক্রান্ত রায় দেওয়ার সঙ্গেই পরিষ্কার হয়ে গেল, আগামী ১৪ মে রাজ্যের পঞ্চায়েত ভোটে আর কোনো বাধা রইল না।

আরও পড়ুন: ভোট চোদ্দ মে! কোন কোন আসনে?

যদিও ডিভিশন বেঞ্চ নির্দিষ্ট করে কোনো দিন ঘোষণা করেনি। বলা হয়েছে, কমিশন যখন মনে করবে ভোট নিয়ে যাবতীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিতে তারা সক্ষম তখনই ভোট করা সম্ভব। পাশাপাশি এ কথাও বলা হয়েছে, রাজ্য সরকারের দেওয়া সুরক্ষা ব্যবস্থাকে যদি কমিশন পর্যাপ্ত বলে মনে করে, তা হলেই তারা ভোটে যেতে পারে। যদি দেখা যায়, এ বারের ভোটে গতবারের তুলনায় অধিক মাত্রায় হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে থাকে তা হলে সংশ্লিষ্ট সরকারি আধিকারিকদের জবাবদিহি করতে হবে।

আরও পড়ুন: প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের রায় ঘোষণার আগেই পঞ্চায়েত নিয়ে হাইকোর্টে নতুন আবেদন

হিংসাত্মক ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতি এবং জীবনহানির ক্ষেত্রেও কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। প্রাণহানি হলে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য থাকবেন সরকারি আধিকারিকরা। সংশ্লিষ্ট আধিকারিকের বেতন কেটে সেই ক্ষতিপূরণ মেটাতে হবে। যদি ওই আধিকারিকের বেতন পর্যাপ্ত না হয়, তা হলে রাজ্য সরকার সেই ক্ষতিপূরণের দায় নেবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here