dr. richard thaler

স্টকহোলম এ বছর অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন মার্কিন অর্থনীতিবিদ রিচার্ড থেলার। বিহেভিয়রাল ইকোনমিক্স তথা ‘আচরণগত অর্থনীতিতে’ তাঁর অনন্য অবদানের জন্য স্বীকৃতিস্বরূপ এই পুরস্কার দেওয়া হল বলে সোমবার রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমির তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

মানুষের মনস্তত্ত্ব কী ভাবে বাজারের ওপর প্রভাব ফেলে তা নিয়েই গবেষণা ড. থেলারের। এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই ঘোষণা করে নোবেল কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়, প্রতিটি মানুষ যে তাঁর অর্থনীতি সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেন, সেই প্রক্রিয়ায় দু’টি বিষয় কাজ করে – একটি অর্থনৈতিক ও একটি মনস্তাত্ত্বিক। ড. থেলারের গবেষণা এই দু’টি বিষয়ের মধ্যে সেতু বন্ধনে সাহায্য করেছে। এখন অর্থনৈতিক গবেষণা ও নীতির ক্ষেত্রে ‘আচরণগত অর্থনীতির’ একটা বড়ো প্রভাব কাজ করে। ড. থেলারের পরীক্ষালব্ধ তথ্য এবং তাত্ত্বিক দর্শন ‘আচরণগত অর্থনীতির’ নতুন ও দ্রুত ক্রমবর্ধমান ক্ষেত্র তৈরি করতে সাহায্য করেছে।

৭২ বছরের ড. থেলার বর্তমানে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের বুথ স্কুল অব বিজনেসে ‘আচরণগত বিজ্ঞান’ ও অর্থনীতির অধ্যাপক। তাঁকে ‘আচরণগত অর্থনীতি’র পথিকৃৎ হিসাবে গণ্য করা হয়।

২০০৮ সালে হার্ভার্ড ল’ স্কুলের অধ্যাপক কাস আর সুনস্টাইনের সঙ্গে যৌথ ভাবে ‘নাজ’ নামে একটি বই লেখেন। বিশ্বব্যাপী বেস্টসেলার হিসাবে স্বীকৃতি পায় বইটি। সমাজের প্রধান প্রধান সমস্যা মোকাবিলার ক্ষেত্রে কী ভাবে ‘আচরণগত অর্থনীতি’কে কাজে লাগানো যায়, সেটাই দেখানো হয়েছে ওই বইয়ে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here